কূটনীতিকদের নিরাপত্তায় টাস্কফোর্স বৈঠক অনুষ্ঠিত

কূটনৈতিক প্রতিবেদক

বাংলাদেশে অবস্থানরত বিদেশী নাগরিক ও কূটনীতিকদের নিরাপত্তার জন্য গঠিত জাতীয় টাস্কফোর্সের বৈঠক আজ বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে সার্বিক নিরাপত্তা পরিস্থিতি পর্যালোচনা করা হয়েছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। এতে দূতাবাস ও হাইকমিশনগুলোর আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে কূটনীতিকদের গাড়িতে নির্ধারিত হলুদ রংয়ের নম্বর প্লেটের পরিবর্তে সাধারনের ব্যবহার্য সাদা নম্বর প্লেট লাগানো, মিশনগুলোর চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে সশস্ত্র আনসার সরবরাহ এবং আমার্ড ভেইক্যাল আমদানির অনুমতির অগ্রগতি পর্যালোচনা করা হয়।

ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ কয়েকটি দূতাবাস সরকারের নিয়োগকৃত নিয়মিত আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অতিরিক্ত হিসাবে সশস্ত্র আনসার নিয়োগ করেছে। কূটনৈতিক মিশনে সরবরাহের জন্য ব্যাটালিয়ান আনসারের বিশেষ পুল গঠন করে অতীত কর্মকাণ্ড পরীক্ষা-নীরিক্ষা, উন্নত প্রশিক্ষণ ও অস্ত্র সরবরাহ করা হয়। তবে এই পুল থেকে আনসার নিয়োগের খরচ সংশ্লিষ্ট দূতাবাসগুলোকেই বহন করতে হচ্ছে।

হলি আর্টিজানে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার পর কয়েকটি দূতাবাস বেসরকারি নিরাপত্তা বাহিনীর জন্য অস্ত্র সরবরাহ ও আমার্ড ভেইক্যাল আমদানির অনুমতি চেয়েছিল। কিন্তু ভিয়েনা কনভেনশন অনুযায়ী বিদেশী মিশনসমূহের নিরাপত্তার দায়িত্ব হোস্ট কান্ট্রি বা আমন্ত্রণকারী সরকারের। আর বাংলাদেশের আইনে বেসরকারী নিরাপত্তা বাহিনীর জন্য অস্ত্র সরবরাহের অনুমতি নেই। তাই বিশেষ ব্যবস্থায় আনসার সরবরাহ করা হয়েছে। যে সব দূতাবাস আমার্ড ভেইক্যাল আনতে চেয়েছে, তাদের প্রয়োজনীয় অনুমতি দেয়া হয়েছে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.