ঢাকা, সোমবার,২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭

অবকাশ

পোশাক

জোবায়ের রাজু

২৫ ডিসেম্বর ২০১৬,রবিবার, ০০:০০


প্রিন্ট

রুমি টেইলার্সের কর্ণধার আলী আকবর। বয়স চল্লিশ পেরিয়েছে। এই বয়সে যতখানি রোগ হওয়ার কথা নয়, ততখানি রোগে ভুগছেন তিনি। প্রেশার আর ডায়াবেটিস তার অতিমাত্রায়।
এই বাজারে রুমি টেইলার্সের এক সময় বেশ দাপট ছিল। দশ গেরামের মানুষ জামা-কাপড় সেলাইয়ের জন্য রুমি টেইলার্সে লাইন দিতো। দুই ঈদে আলী আকবরের দম ছাড়বার সময় ছিল না। সকাল-সন্ধ্যা সেলাই মেশিনে নিরন্তর বসে থেকেছেন।
সময়ের আবর্তে আজ তার বিপরীত অবস্থা। এই বাজারে এখন আধুনিক মেশিন স্থাপন করা উন্নতমানের বেশ কয়েকটা টেইলার্স হয়েছে। যার কারণে আলী আকবরের বেশির ভাগ কাস্টমার হাতছাড়া হয়েছে। রুমি টেইলার্সে আগের মতো ব্যস্ততা এখন আর চোখে পড়ে না। সংসার বড় হয়েছে আলী আকবরের। ব্যবসায় আগের সুদিন নেই বলে সেই সংসারে রোজদিনের অভাবটাও দেখার মতো একটি বড় ধরনের ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে।
এখন শীতকাল। শীতের পোশাক বানানোর জন্য দু-চারজন কাস্টমার পেয়েছেন আলী আকবর। গরম কাপড়ের জামা বানানোর জন্য কেউ না কেউ আজকাল রুমি টেইলার্সে আসে। মনে মনে খুশি হন আলী আকবর।
গতকাল চৌধুরীবাড়ির ছোট সাহেব এসেছেন শীতের পোশাক বানাতে। নিজের জন্য নয়। তাদের পোষা বিলেতি কুকুরটার জন্য শীতের পোশাক বানানোর কাপড় নিয়ে এসেছেন ছোট সাহেব। তিনি বিলেতি কুকুরের পোশাকের জন্য যে কাপড়ের টুকরাটা এনেছেন, সেটি বেশ দামি। আলী আকবর ভালো-মন্দ কাপড় চেনেন। চলে যাওয়ার সময় ছোট সাহেব কুকুরের পোশাকটি জলদি বানানোর হুকুম জারি করে গেলেন। তার পোষা বিলেতি কুকুর নাকি শীতে অনেক কষ্ট পায়।
সেই দামি কাপড় নিয়ে কুকুরের জন্য পোশাক বানাতে আলী আকবর মেশিনের সামনে বসলেন। কাপড়ে সুইয়ের চালান দিচ্ছেন আর আলী আকবর বিলাসী মানুষের বিচিত্র কর্মকাণ্ডের কথা ভাবছেন।
তার ছোট মেয়ে রুমি। এই শীতে উষ্ণ পোশাকের অভাবে ঠকঠক কাঁপছে। গত কয়েক দিন ধরে বাবার কাছে তার আবদার একটি শীতের জামার। কিন্তু আলী আকবর টাকার অভাবে মেয়ের ইচ্ছা পূরণ করতে পারছেন না। মেয়েটা রোজ ভোরে হাড় কাঁপানো শীতে কাঁপতে কাঁপতে মক্তবে আরবি পড়তে যায়।
আলী আকবর গভীর যতেœ বিলেতি কুকুরের জন্য দামি কাপড়ের শীতের পোশাক বানাতে বানাতে মেয়ে রুমিকে মনে পড়ে গেল। ক্যাটক্যাট শব্দে তিনি পা দিয়ে সেলাই মেশিনের প্যাডেল চাপছেন আর বিলেতি কুকুরের শীতের পোশাকের কাজ এগিয়ে যাচ্ছেন। আলী আকবরের চোখের সামনে হঠাৎ রুমির মুখখানা ভেসে উঠতেই তিনি বোবা কান্নায় মূর্ছা গেলেন। কেউ শীতে কাপড় পায় না আবার কেউ শীতে কুকুরের জন্য...। এই জীবন কত বিচিত্র।
আমিশাপাড়া, নোয়াখালী

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫