ঢাকা, সোমবার,২৬ জুন ২০১৭

মোবাইল

স্মার্টফোন দুনিয়ায় নতুনত্বের কমতি ছিল

২৩ ডিসেম্বর ২০১৬,শুক্রবার, ১৭:৩৯ | আপডেট: ২৩ ডিসেম্বর ২০১৬,শুক্রবার, ১৭:৪৪


প্রিন্ট

চলতি বছর নতুন অনেক স্মার্টফোন বাজারে এসেছে। এসব স্মার্টফোনে নতুন ফিচার ও উদ্ভাবনী নকশা দৃষ্টি কেড়েছে গ্রাহকদের। বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় মোবাইল হ্যান্ডসেট ব্র্যান্ডগুলো ২০১৬ সালে নতুন স্মার্টফোন বাজারে এনেছে। এর মধ্যে বিখ্যাত কিছু ব্র্যান্ড তাদের ডিভাইস নিয়ে বিপত্তিতেও পড়েছে। সবকিছু মিলিয়ে স্মার্টফোনের চলতি বছরের প্রেক্ষাপট নিয়ে লিখেছেন আহমেদ ইফতেখার

আর কয়েক দিন পরেই শুরু হবে নতুন আরেকটি বছর। বছরের শেষ প্রান্তে এসে সব বড় বড় প্রতিষ্ঠানই লাভ-ক্ষতির হিসাব মেলাতে শুরু করেছে। প্রযুক্তি বিশ্বেও চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ। অ্যাপল, স্যামসাং, নকিয়া ব্লাকবেরিসহ বিভিন্ন স্মার্টফোন নির্মাতাদের জন্য এ বছরটিতে নতনত্বের কমতি ছিল।

ফিরে এলো নকিয়া
গত ১৩ ডিসেম্বর মোবাইল ফোনের দুনিয়ায় ফিরে এলো নকিয়া। আবার নতুন করে নকিয়া ব্র্যান্ডের দু’টি মডেলের ফিচার ফোন উন্মুক্ত করেছে এইচএমডি গ্লোবাল। এ প্রতিষ্ঠানটি নকিয়ার ফোন তৈরি করছে। নকিয়া ১৫০ ও ১৫০ ডুয়াল সিম দু’টি ফিচার ফোন। নকিয়া ১৫০ ও ১৫০ ডুয়াল সিম ফিচার ফোন হওয়ায় এতে ইন্টারনেট সুবিধা নেই। তবে এমপিথ্রি প্লেয়ার, এফএম রেডিও, ব্লুটুথ, এলইডি ফ্ল্যাশসহ ভিজিএ ক্যামেরা আছে। ফোন দু’টিতে ২ দশমিক ৪ ইঞ্চি মাপের কিউভিজিএ ডিসপ্লে (২৪০ বাই ৩২০ পিক্সেল) থাকবে। এতে ব্যবহৃত হচ্ছে নকিয়া সিরিজ ৩০+ অপারেটিং সিস্টেম। এর ব্যাটারি লাইফ ২২ ঘণ্টা। এর দাম ২৬ মার্কিন ডলার। নকিয়ার মোবাইল ফোন বিভাগটি মাইক্রোসফটের অধীনে ছিল। ফিনল্যান্ডের প্রযুক্তিপ্রতিষ্ঠান এইচএমডি গ্লোবাল নকিয়ার কাছ থেকে ব্র্যান্ড লাইসেন্স ও মাইক্রোসফটের কাছ থেকে নকিয়ার বেসিক ফোনের ব্যবসা কিনে নিয়েছে। আগামী বছর থেকে ফিচার ফোনের পাশাপাশি স্মার্টফোন তৈরি করবে এইচএমডি গ্লোবাল। নকিয়ার নামেই বাজারে পাওয়া যাবে সব ফিচার ও স্মার্টফোন।

গতানুগতিক অ্যাপল
২০১৬ সালের জন্য অ্যাপল অনেক চমক জমিয়ে রেখেছিল বলেও কিছু প্রতিবেদন প্রকাশিত হয় বছরের শুরুর দিকে। কিন্তু বাস্তবে দেখা গেল তেমন কিছু নয়। কার্যত অ্যাপল তাদের আইফোন, যা থেকে প্রতিষ্ঠানটির বেশির ভাগ রাজস্ব আসে, তার বড় কোনো হালনাগাদ সংস্করণ বাজারে আনতে পারেনি। আইফোন ৭ নিয়ে নতুন কোনো গবেষণা না চালিয়ে গত দুই বছরে বাজারে আসা ফোনের আদলেই এর নকশা প্রণয়ন করেছে। আরএর ফলে রিতীমতো হতাশ হয়েছে গ্রাহক। অ্যাপলের একমাত্র চমকটি ছিল এ বছরের অক্টোবরে যখন তারা টাচ বার যুক্ত ম্যাকবুক প্রো বাজারে আনার ঘোষণা দিয়েছিল।
অ্যাপলের এই কম্পিউটারে প্রথমবারের কি-বোর্ডের ওপরের দিকে আলাদা একটি টাচস্ক্রিন যুক্ত ছিল। চলতি বছর নতুন আইফোনের ঘোষণা ছাড়াও ফোনে সুপার ম্যারিও গেম ও অ্যাপল ওয়াচে পোকেমন গো সুবিধা যুক্ত করার কথা বলেছে অ্যাপল।

অ্যাপলকে ঠেকাতে গুগল
অক্টোবর মাসে অ্যাপলকে ঠেকাতে নতুন স্মার্টফোন আনে গুগল। নেক্সাস ব্র্যান্ড বাদ দিয়ে আনল নতুন ব্র্যান্ড। নতুন এই ব্র্যান্ডের নাম পিক্সেল। পিক্সেল ও পিক্সেল এক্সএল গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট বিল্ট-ইন সুবিধার প্রথম ফোন। পিক্সেল ফোনটিতে রয়েছে ৫ ইঞ্চি মাপের ফুল এইচডি অ্যামোলেড ডিসপ্লে ও পিক্সেল এক্সএলে রয়েছে সাড়ে পাঁচ ইঞ্চি মাপের কোয়াড এইচডি অ্যামোলেড ডিসপ্লে। দু’টি মডেলেই কর্নিং গরিলা গ্লাস ৪ সুরক্ষা রয়েছে। দু’টি মডেলে অ্যালুমিনিয়ামের কাঠামো ও পেছনে গ্লাস যুক্ত করা হয়েছে। কোয়ালকমের স্ন্যাপড্রাগন ৮২১ প্রসেসর যুক্ত স্মার্টফোনে চার জিবি র‌্যাম আছে এতে। স্মার্টফোনটির পেছনে সনির আইএমএক্স সেন্সরযুক্ত ১২ দশমিক ৩ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা ও সামনে ৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা রয়েছে।
অ্যান্ড্রয়েড নোগাট অপারেটিং সিস্টেমচালিত ফোনে ইউএসবি টাইপ সি ও ৩ দশমিক ৫ মিমি অডিও জ্যাক থাকবে। যুক্তরাষ্ট্রের ওই অনুষ্ঠানে স্মার্টফোন ছাড়াও ডেড্রিম ভিআর হেডসেট, ক্রোমক্রাস্ট আলট্রা, গুগল ওয়াই-ফাইয়ের ঘোষণা দিয়েছে গুগল কর্তৃপক্ষ। যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে ৩২ জিবি মডেলের গুগল পিক্সেলের দাম হবে ৬৪৯ মার্কিন ডলার আর ১২৮ জিবি মডেলের দাম হবে ৭৪৯ মার্কিন ডলার। ৩২ জিবির পিক্সেল এক্সএলের দাম হবে ৭৬৯ মার্কিন ডলার ও ১২৮ জিবি মডেলের দাম হবে ৮৬৯ মার্কিন ডলার। অ্যাপলের সঙ্গে পাল্লা দিতে গুগল অ্যান্ড্রয়েড ফোন আনায় তীব্র প্রতিযোগিতার মুখে পড়ে স্যামসাং।

স্যামসাংয়ের বিরুদ্ধে মামলা
সেপ্টেম্বর মাসে স্যামসাং ইলেকট্রনিকস কোম্পানির বিরুদ্ধে মামলা ঠুকে দিয়েছেন জোনাথন স্ট্রবেল নামে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার এক নাগরিক। তার অভিযোগ, স্যামসাং কোম্পানির গ্যালাক্সি নোট ৭ মডেলের একটি স্মার্টফোন তার প্যান্টের সামনের পকেটে রাখা ছিল। কিন্তু হঠাৎই সেটি বিস্ফোরিত হয়ে পুড়ে যায়। এতে তার ডান পা অনেকটা পুড়ে যায়।
চলতি বছরে বাজারে আসা আসার দুই মাসের মাথায় শেষ পর্যন্ত গ্যালাক্সি নোট ৭ তৈরির ইতি টানে স্যামসাং। চলতি বছর ২ আগস্ট উন্মোচন আর ১৯ অগাস্ট থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে বাজারে ছাড়ার ঘোষণা দেয়া এই ফ্ল্যাগশিপ হ্যান্ডসেট নিয়ে শুরু থেকেই নানা বিপত্তির মুখে পড়ে স্যামসাং।
স্মার্টফোন বাজারে শীর্ষস্থানীয় প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অ্যাপলের আইফোন ৭-এর সঙ্গে লড়তে এই ফ্ল্যাগশিপ হ্যান্ডসেটই ছিল একমাত্র হাতিয়ার। ২০১৫ সালে বাজারে ছাড়া আগের সংস্করণগুলো বিক্রির সংখ্যাকে নোট ৭ ছাড়িয়ে যাওয়ার আশা প্রকাশ করেছিলেন স্যামসাংয়ের মোবাইল ব্যবসা বিভাগের প্রধান কোহ ডং-জিন। যদিও তার আশা বাস্তবায়ন হয়নি।

আর স্মার্টফোন বানাবে না ব্ল্যাকবেরি!
অনেক চেষ্টার পরও ব্যবসায়িকভাবে লাভবান হতে না পেরে অবশেষে সেপ্টেম্বর মাসে কানাডার স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ব্ল্যাকবেরি স্মার্টফোন বানাবে না বলে ঘোষণা দিয়েছে। এখন থেকে প্রতিষ্ঠানটি শুধু স্মার্টফোনের নিরাপত্তা এবং সফটওয়্যার নিয়ে কাজ করবে। যন্ত্র তৈরির সব কাজ অংশীদার প্রতিষ্ঠানের ওপর হস্তান্তর করতে যাচ্ছে। মূলত গুগলের অ্যান্ড্রয়েড সফটওয়্যার ব্যবহার করার সর্বশেষ প্রচেষ্টাটি ব্যর্থ হওয়ার পরই প্রতিষ্ঠানটি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। মূলধন বাঁচাতে ব্ল্যাকবেরি এখন নকশা এবং বিক্রির ক্ষেত্রে অন্যদের ওপর নির্ভর করবে।
ব্ল্যাকবেরির এ সিদ্ধান্তের ফলে স্মার্টফোন শিল্পে গুরুত্বপূর্ণ একটি অধ্যায়ের সমাপ্তি ঘটে। আধুনিক মোবাইল ফোনের প্রথম যুগে ব্ল্যাকবেরি ছিল সবচেয়ে আকর্ষণীয় হ্যান্ডসেট। অন্য প্রতিষ্ঠানগুলোর মতোই সত্যিকার অর্থে ব্ল্যাকবেরি অ্যাপলের আইফোন এবং গুগলের অ্যান্ড্রয়েড সফটওয়্যার চালিত ফোনের উত্থানের কারণে ব্যবসায়িক প্রতিযোগিতায় টিকতে পারছিল না, যা বাজার থেকে ছিটকে পড়ার অন্যতম কারণ।

কোডাকের নতুন স্মার্টফোন
স্মার্টফোনে এখন চলছে ছবি তোলার ধুম। সেই ছবিকে কেন্দ্র করে আলোকচিত্রীদের স্মার্টফোনে আগ্রহী করতে ক্যামেরা নির্মাতা প্রতিষ্ঠান কোডাক উন্মুক্ত করেছে একত্রা নামের একটি স্মার্টফোন। এই ফোনে রয়েছে অনন্য নকশা ও পেছনে বিশাল এক ক্যামেরা লেন্স। এর ফলে স্মার্টফোনটি দিয়ে ডিএসএলআরের মতো নানা মোড ও ফিচার ব্যবহার করা যাবে। একত্রার পেছনে ২১ মেগাপিক্সেল ফাস্ট ফোকাস সেন্সর, ডুয়াল এলইডি ফ্ল্যাশ, সামনে ১৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা আছে। এতে ডিএসএলআরের বিভিন্ন মোড থাকায় আলোকচিত্রীদের নানা সুবিধা হবে। ৫ ইঞ্চি ফুল এইচডি ডিসপ্লের স্মার্টফোনটিতে ২.৩ গিগাহার্টজ হেলিও এক্স ২০ ডেকাকোর প্রসেসর, ৩ জিবি র‌্যাম, ৩২ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ, ৩০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি ও ইউএসবি টাইপ সি সুবিধা আছে। ইউরোপের বাজারে ৪৯৯ ইউরোতে বিক্রি হচ্ছে ফোনটি।

বিশাল ব্যাটারির স্মার্টফান
১০ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারির স্মার্টফোন বাজারে আনছে চীনের মোবাইল ফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অকিটেল। বিশাল ব্যাটারির কারণে এই ফোনটি পাওয়ার ব্যাংক হিসেবেও ব্যবহার করা যাবে। সাধারণত বড় ব্যাটারির কারণে ফোনটি অনেক বেশি মোটা দেখানোর কথা। ফোনটিকে হালকা-পাতলা ও দ্রুতগতির করতে বিশেষ নকশা ও দ্রুতগতির প্রসেসর যুক্ত করছে। সবকিছু মিলিয়ে ২০১৬ সালে প্রতিযোগিতা ছিল স্মার্টফোন ডিভাইসে নতুনত্ব নিয়েই।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫