শিক্ষা ব্যবস্থা ধ্বংসের মুখে : মিলন

মালয়েশিয়া সংবাদদাতা

সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী ও বিএনপির আন্তর্জাতিক সম্পাদক আনম এহসানুল হক মিলন বলেছেন- সরকার শিক্ষা ব্যবস্থা ধ্বংস করে দেশকে মেধাশূন্য করে ফেলেছে।
রোববার বিকেলে কুয়ালালামপুরের হোটেল সলিলে বিএনপির মালয়েশিয়া শাখার উদ্যোগে ৪৫তম বিজয় দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
সাবেক এই শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী বলেন, উচ্চ বেতনে প্রতিবেশী দেশের মেধা আমদানি করে চালানো হচ্ছে দেশ। প্রবাসীদের রক্তঝরা রেমিটেন্স সঠিক পথে খরচ না করে উল্টো সেই টাকা আওয়ামী নেতারা অবৈধ পথে বিদেশে পাচার করছে। বিদেশে স্থায়ীভাবে বসবাস করতে কিনছে বাড়ি গাড়ি।

বিএনপি মালয়েশিয়া শাখার সহ-দফতর সম্পাদক একেএম হাবিবুর রহমান শিশিরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিএনপি মালয়েশিয়া শাখার সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার বাদলুর রহমান খান।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, বিএনপি মালয়েশিয়া শাখার সাধারণ সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মোহাম্মদ মোশাররফ হোসেন, সিনিয়র সহ-সভাপতি ও স্বেচ্ছাসেবক দল কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি মাহবুব আলম শাহ্, সহ-সাধারণ সম্পাদক ফজলুল করিম সোহরাব, প্রচার সম্পাদক এসএম বশির আলম, যুব-বিষয়ক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম খান, ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিষয়ক সম্পাদক মো. গিয়াস উদ্দিন, কেএল সেন্ট্রাল শাখা বিএনপির সভাপতি মো. আবুল কাশেম নয়ন প্রমুখ।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, বিএনপি মালয়েশিয়া শাখার সহ-সভাপতি হাজি জাকিরুল আলম, সেলিম ভুঁইয়া ও আব্দুল জলিল লিটন, সহ-সাধারণ সম্পাদক এসএম জাহাঙ্গীর, আবদুল্লাহ আল মামুন লিটন, দফতর সম্পাদক মো. আমিনুল ইসলাম (রতন), সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আজিজ, যুব বিষয়ক সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর আলম খান, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক মো. নজরুল ইসলাম মানিক, প্রকাশনা সম্পাদক মো. মামুন বিন আবদুল মান্নান, প্রবাসী কল্যাণ সম্পাদক মঞ্জু খাঁ, তথ্য প্রযুক্তি ও আর্কাইভ সম্পাদক এম ফরহাদ হোসেন, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক কায়সার হামিদ হান্নান, আপ্যায়ন সম্পাদক সুলাতান সালাহ উদ্দিন, সহ-অর্থ সম্পাদক এমএ কালাম, সহ-তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক খন্দকার মোস্তাক আহম্মেদসহ বিএনপির অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মিরা উপস্থিত ছিলেন।

পরে বাংলাদেশ কালচারাল সেন্টার মালয়েশিয়ার শিল্পীদের পরিবেশনায় এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করেন দর্শকরা।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.