ঢাকা, শুক্রবার,২৩ জুন ২০১৭

রকমারি

বিজয়ের জয়গান

ফাহমিদা জাবীন

১২ ডিসেম্বর ২০১৬,সোমবার, ১৭:৪০


প্রিন্ট

ডিসেম্বর বাঙালির বিজয়ের মাস। আগামী ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ উদযাপন করবে এর ৪৫তম বিজয় দিবস। সময়ের পরিক্রমায় বাঙালি জাতি তার বিজয় কেতন তুলে দিয়েছে নতুন প্রজন্মের হাতে। যারা এ দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। যাদের মেধা মনন আর দেশপ্রেম সমুন্নত রাখবে আমাদের বিজয়ের অহঙ্কার। প্রতি বছর আমাদের তরুণ প্রজন্ম গভীর শ্রদ্ধা ও দেশপ্রেমের প্রগাঢ় চেতনা নিয়ে উদযাপন করে বিজয়ের এ দিনটিকে।

বিজয় দিবসে তাদের অনুভূতি ও ভাবনা
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অনার্সের শিক্ষার্থী জুনায়েদ এসেছিলেন আজিজ সুপার মার্কেটের একটি দোকানে বিজয় দিবসের জন্য পোশাক কিনতে। তার কাছে জানতে চাওয়া হলো- কেন তিনি বিজয় দিবসের জন্য পোশাক কিনছেন? জুনায়েদ বললেন, পোশাকের মাধ্যমে নিজের অনুভূতিকে প্রকাশ করা বেশ সহজ। আমাদের পতাকার লাল-সবুজ রঙ নানা আঙ্গিকে ব্যবহার করে তৈরি করা হয় বিজয় দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন ধরনের পোশাক। সেই সাথে মোটিফ হিসেবে থাকে মানচিত্র, পতাকা, কবিতার লাইন ও বৃত্তসহ বাংলাদের নানা প্রতিচিত্র। আমার মনে হয়, জন্মভূমির প্রতি নিজের মমত্ব, শ্রদ্ধা ও সম্মান জানানোর একটি বড় মাধ্যম হতে পারে পোশাক। শুধু তাই নয়, এমন একটি পোশাক পরার পর নিজের মধ্যেই স্বদেশ প্রেমের চেতনাকে অনুভূত করতে পারি আরো জোরালোভাবে।
আনিকা তাবাসসুম একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে বিবিএ করছেন। ১৬ ডিসেম্বর নিয়ে কিভাবে ভাবেন সে বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে তিনি আবেগপ্রবণ হয়ে বলেন, ১৬ ডিসেম্বর অর্থ আমাদের বিজয়ের দিন। লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত আমাদের এ জন্মভূমি বাংলাদেশ। এ দিন আমাদের গৌরবের, অহঙ্কারের দিন। স্বদেশ প্রেমের চেতনায় নতুন করে উজ্জীবিত হওয়ার দিন। কারণ আমাদের বিজয় দিয়েছে নিজস্ব মানচিত্র, পতাকা ও পরিচিতি। এ পতাকাকে সমুন্নত রাখার দায়িত্বও আমাদের।
১৬ ডিসেম্বর শুধু একটি দিবস নয়, আমাদের জন্য এ দিনটির গুরুত্ব অনেক বেশি। কারণ এ দিনেই আমরা পেয়েছি আমাদের প্রিয় দেশ ও পৃথিবীর বুকে একটি স্বাধীন দেশের নাগরিক হিসেবে বাঁচার স্বীকৃতি। নিজেদের লাল-সবুজ পতাকা। বিশ্বের দেশে দেশে আজ যে অস্তিরতা চলছে সেদিকে লক্ষ করলেই বোঝা যায়, একটি স্বাধীন দেশের নাগরিক হওয়া কতটা সৌভাগ্যের বিষয়। তাই বিজয় দিবসে আবার নতুন করে আমাদের ভাবতে হবে স্বদেশের মর্যাদার বিষয়ে। নতুন করে অন্তরে ধারণ করতে হবে আমাদের এ গৌরব আর অহঙ্কারকে। অঙ্গীকার করতে হবে এ মানচিত্র ও পতাকাকে সমুন্নত রাখার বিষয়ে। স্বদেশ প্রেমে উদ্বুদ্ধ হওয়ার পাশাপাশি নিজের দেশকে আরো সুন্দর সমৃদ্ধি ও শান্তির পথে নিয়ে যাওয়ার প্রচেষ্টাও থাকতে হবে। বিজয় অর্জনই শেষ কথা নয়, বিজয়কে সম্মুন্নত রাখার অঙ্গীকার করতে হবে। তখনই স্বার্থক হয়ে উঠবে আমাদের বিজয় দিবস উদযাপন।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫