চাপা রঙে সাজ

ফাহমিদা জাবীন

সাজের ক্ষেত্রে স্কিনটোন বা গায়ের রঙ একটি বড় বিষয়। স্কিনটোনের সাথে সামঞ্জস্য রেখে মেকআপ করলেই পারফেক্ট লুক আসে। আমাদের এ অঞ্চলের মানুষের গায়ের রঙ, চোখ ও চুলের রঙ পাশ্চাত্যের মানুষের চেয়ে ভিন্ন। চাপা গায়ের রঙ আর বাদামি চোখই এ অঞ্চলের মানুষের প্রধান বৈশিষ্ট্য। বাদামি-ঘেঁষা ত্বকের সাজ কেমন হবে, সেই বিষয়ে জানাচ্ছেন নভিন’স বিউটি পার্লারের রূপবিশেষজ্ঞ আমিনা হক

ফাউন্ডেশন : ব্রাউন স্কিনটোনের জন্য ফাউন্ডেশন বাছাই করতে হয় সতর্কভাবে। খুব হালকা বা খুব গাঢ় টোন এই ত্বকে মানায় না। ব্রাউন কালারের মধ্যেও অনেক ধরনের টোন দেখতে পাওয়া যায়। তাই সঠিক টোন বাছাই করতে কিছুটা সময় দিতে হবে। স্কিনে ফাউন্ডেশন ব্লেন্ড করে আপনার স্কিনটোনের সাথে ম্যাচ করবে যে কালারটি, সেটা বেছে নিতে হবে।

পাউডার : ফাউন্ডেশনের সাথে ম্যাচ করে পাউডার বাছাই করে নিন। ট্রান্সপারেন্ট পাউডারও ব্যবহার করতে পারেন। তবে পাউডার লাগানোর আগে চোখের নিচ, নাকের নিচের অংশ, ঠোঁটের কোনা, গালের নিচের অংশে কনসিলার লগিয়ে নিন। এতে আপনার মুখমণ্ডলে সার্পনেস আসবে। একশেড হালকা পাউন্ডার আপনার গালের ওপর ব্রাশ করে নিন শেষ ধাপে।

ব্লাশন : ব্রাউন স্কিনটোনের জন্য ব্লাশন হিসেবে কোরাল, রোজ ও ডিপ অরেঞ্জ কালার বেছে নিন। ব্রাউন ও পিচ রঙের শেডগুলো বাদ দিন। গালের বোনের ওপর ব্লাশন লাগান। গিমারি ব্রোঞ্জ কালার ব্যবহার করতে পারেন পার্টি মেকআপে।

চোখের সাজ : ডার্ক ব্রাউন চোখের সাথে পাম, চারকোল, গ্রে, ডকি ব্লু, ডার্ক ব্রাউন, গোল্ড ও ব্রোঞ্জ কালার খুবই মানানসই। এসব রঙ ব্রাউন চোখকে সহজেই আকর্ষণীয় করে তোলে। এসব রঙের বিভিন্ন শেডও আপনার চোখের সাজে আইলাইনার ও আইশ্যাডো হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। সব সময় লাইনার ও আইশ্যাডো ব্লেন্ড করে দেবেন ভালোভাবে। এতে চোখের সাজে কমনীয়তা আসবে। নাইট ব্রাউন স্কিনটোনের সাথে ডিপ ব্রাউন চোখ চমৎকার লাগে। সেই সাথে সবুজ বা গোল্ডেনের সাথে লালের ছোঁয়াও চমৎকার মানায় চোখের মেকআপ হিসেবে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.