esans aroma gebze evden eve nakliyat Ezhel Şarkıları indir Entrumpelung wien Installateur Notdienst Wien webtekno bodrum villa kiralama
২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০

বাংলাদেশের শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসান দুবাইয়ে গ্রেফতার

ঢাকার আন্ডারওয়ার্ল্ড ডন জিসান আহমেদ - ফাইল ছবি

সংযুক্ত আরব আমিরাতে ভারতীয় নাগরিক সেজে আত্মগোপন করেও শেষ রক্ষা হলো না ঢাকার আন্ডারওয়ার্ল্ড ডন জিসান আহমেদের। বহুল আলোচিত বাংলাদেশের তালিকাভুক্ত এ শীর্ষ সন্ত্রাসীকে বুধবার রাতে সংযুক্ত আরব আমিরাতের বাণিজ্য নগরী দুবাইয়ে গ্রেফতার করা হয়েছে।

শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসানের দীর্ঘদিনের ঘনিষ্ঠ সহচর যুবলীগ নেতা জিকে শামীম ও খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া গ্রেফতার হওয়ার পর বেরিয়ে আসে শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসানকে ঘিরে ঢাকার অপরাধ জগতের চাঞ্চল্যকর অনেক তথ্য। এরই পরিপ্রেক্ষিতে সম্প্রতি বাংলাদেশ ন্যাশনাল সেন্ট্রাল ব্যুরো (যা ইন্টারপোলের সাথে যোগাযোগ করে) ইন্টারপোলের মাধ্যমে তার বিরুদ্ধে রেড নোটিশ জারি করে। ইন্টারপোলের মাধ্যমে রেড নোটিশ জারির পরপরই তাকে গ্রেফতার করে দুবাই কর্তৃপক্ষ।

সংস্থাটির ওয়েবসাইটে জিসান সম্পর্কে বলা আছে, তার বিরুদ্ধে হত্যাকাণ্ড ঘটানো এবং বিস্ফোরক বহনের অভিযোগ আছে। ২০০৩ সালে মালিবাগের একটি হোটেলে দুজন ডিবি পুলিশকে হত্যার পর আলোচনায় আসেন জিসান। এরপরেই গা-ঢাকা দেন। ২০০৫ সালে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযানের মুখে তিনি দেশ ছাড়েন বলে ধারণা করা হয়।

সূত্র জানায়, সে সময় পালিয়ে ভারতে প্রবেশ করেন জিসান। এরপর নিজের নাম পরিবর্তন করে আলী আকবর চৌধুরী নামে ভারতীয় পাসপোর্ট সংগ্রহ করেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, দুবাইয়ে শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসানের দুটি রেস্টুরেন্ট আছে; আছে গাড়ির ব্যবসাও। এসব দেখভাল করেন তার ছোট ভাই শামীম এবং ছাত্রলীগের সাবেক নেতা শাকিল মাজহার। এর মধ্যে শাকিল মাজহার যুবলীগ ঢাকা দক্ষিণের সহ-সম্পাদক রাজিব হত্যা মামলার অন্যতম আসামি। এ হত্যাকাণ্ডের পর পালিয়ে দুবাই চলে যান তিনি।

উল্লেখ্য, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘোষিত দেশের গত এক দশকের শীর্ষ ২৩ সন্ত্রাসীর একজন হলো জিসান। তাকে ধরিয়ে দেয়ার জন্য পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছিল। দুবাই কর্তৃপক্ষ তাকে যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তরের প্রস্তুতি নিচ্ছে।


আরো সংবাদ




short haircuts for black women short haircuts for women Ümraniye evden eve nakliyat