২০ নভেম্বর ২০১৮

খুলনা ও যশোরে ‘বন্দুকযুদ্ধ’ ও ‘গোলাগুলিতে’ নিহত ৩

-

চলমান মাদকবিরোধী অভিযানের মাঝে আজ খুলনা ও যশোরে তিনজন নিহত হয়েছেন। খুলনায় র‌্যাবের সাথে কথিত বন্দুকযুদ্ধে একজন নিহত এবং যশোরে গুলিবিদ্ধ দুইজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

খুলনা ব্যুরো জানায়, খুলনায় র‌্যাবর সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী ইমরান ওরফে রকি (৩৮) নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার গভীর রাতে নগরীর মহেশ্বরপাশা এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। র‌্যাব ঘটনাস্থল থেকে একটি রিভলবার, তিন রাউন্ড গুলি ও ৩০৮ পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে।

র‌্যাব-৬ এর এএসপি বজলুর রশিদ জানান, মঙ্গলবার রাত দেড়টার দিকে র‌্যাবের একটি দল নগরীর মহেশ্বরপাশা এলাকায় টহলে বের হয়। এ সময় একটি মোটরসাইকেলে তিনজন যুবকেকে দ্রুত ছুটতে দেখে তাদেরকে দাঁড়ানোর জন্য সংকেত দেয় র‌্যাব। কিন্তু তারা না দাঁড়িয়ে মোটরসাইকেলে গতি বাড়িয়ে দিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে।

তিনি জানান, বিষয়টি র‌্যাবর কাছে সন্দেহজনক মনে হলে র‌্যাব তাদের পিছু নেয়। এ সময় তারা র‌্যাবের গাড়ি লক্ষ্য করে গুলি ছুড়তে থাকে। র‌্যাবও এ সময় পাল্টা গুলি চালায়। গোলাগুলির একপর্যায়ে মো: ইমরান ওরফে রকি গুলিবিদ্ধ হয়। বাকি দুইজন পালিয়ে যায়। ইমরানকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

র‌্যাব জানায়, নিহত রকি নগরীর দৌলতপুর থানার দেয়ানা এলাকার তালিকাভুক্ত শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী শেখ মিজানুর রহমান ওরফে হাতকাটা মিজার ছেলে। তার বিরুদ্ধে হত্যা ও মাদক মামলাসহ ৬/৭টি মামলা রয়েছে।

যশোরে আরো দুইজনের গুলিবিদ্ধ লাশ
যশোর অফিস জানায়, যশোরে গুলিবিদ্ধ আরো দুইজনের লাশ উদ্ধার হয়েছে। পুলিশ বলছে, ডাকাতির প্রস্তুতিকালে নিজেদের মধ্যে গোলাগুলিতে তাদের মৃত্যু হতে পারে। বুধবার ভোরে যশোর-মণিরামপুর সড়কের কানাইতলা এলাকা থেকে তাদের লাশ এবং তিনটি হাসুয়া, একটি করাত, কিছু দড়ি ও এক জোড়া স্যান্ডেল উদ্ধার করা হয়।

যশোর কোতয়ালী থানার এসআই কাইয়ুম মুন্সী বলেন, ‘রাত দুইটা ৫৫ মিনিটে টেলিফোনে খবর পাই, কানাইতলা যাত্রী ছাউনির পাশে দুর্বৃত্তরা ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে। এরপর ঘটনাস্থলে গিয়ে দুটি লাশ পড়ে থাকতে দেখি। পাশেই হাসুয়া, করাত, কিছু রশি ও স্যান্ডেল ছিল। এগুলো উদ্ধার করে লাশ হাসপাতালে রেখে আসি। ঘটনার ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।’

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ডাকাতির প্রস্তুতিকালে নিজেদের মধ্যে দ্বন্দ্বে গোলাগুলিতে এদের মৃত্যু হতে পারে।

যশোর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডাক্তার কাজল মল্লিক জানান, হাসপাতালে আনার আগেই তাদের মৃত্যু হয়। নিহত দুজনের মধ্যে একজনের পরনে চেক লুঙি ও শার্ট এবং অপরজনের পরনে কালো প্যান্ট ও ফুলহাতা গেনজি রয়েছে। বয়স যথাক্রমে প্রায় ৩৫ ও ৪৫ বছর।

প্রসঙ্গত, সোমবার দিনগত রাতেও অজ্ঞাত দুই ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছিল যশোর পুলিশ। এখন পর্যন্ত তাদের পরিচয় মেলেনি।


আরো সংবাদ