২৩ জানুয়ারি ২০২০

পরাজয়ের পর ক্ষেপে গেলেন কোহলি

ফিল্ডিং নিয়ে সন্দিহান বিরাট কোহলি - ছবি : সংগৃহীত

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচে হারের কারণ হিসেবে ফিল্ডিংকে দায়ী করেছেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহালি। তিনি নিজে বাউন্ডারি লাইন থেকে দৌড়ে ডান-প্রান্তে ঝাঁপিয়ে শিমরন হেটমায়ারকে তালুবন্দি করলেও বাকিদের হাত থেকে সহজ ক্যাচ পড়েছে। লেন্ডল সিমন্সের অত্যন্ত সহজ ক্যাচ ফেলেছেন ওয়াশিংটন সুন্দর। এভিন লুইসের সহজ ক্যাচ পড়েছে ঋষভ পন্থের হাত থেকে।
রোববার দ্বিতীয় টি২০ ম্যাচে ভারতকে ৮ উইকেটে পরাজিত করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

ম্যাচের পর কোহালি জানিয়েছেন, একাধিক ক্যাচ ফস্কানোর খেসারতই তার দলকে দিতে হয়েছে। ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে ভারতীয় অধিনায়ক বললেন, ‘‘ওয়েস্ট ইন্ডিজ খুব ভালো বল করেছে। ওদের পেসাররা কাটারের খুব ভালো প্রয়োগ করেছে। কিন্তু এ রকম ফিল্ডিং করলে যত বেশি রানই হোক, আটকানো সম্ভব নয়। শেষ দু’টি ম্যাচেই খারাপ ফিল্ডিং হয়েছে। একই ওভারে দু’টি ক্যাচ পড়েছে আমাদের।’’ যোগ করেন, ‘‘ভেবে দেখুন। সেই ওভারে পরপর দু’টি উইকেট চলে গেলে ম্যাচটি কোন জায়গায় দাঁড়াত। পরের ম্যাচ থেকে এ রকম ফিল্ডিং করলে চলবে না। আরো সাহসী হতে হবে প্রত্যেককে।’’

দেখা যাচ্ছে, প্রথমে ব্যাট করলে টি-টোয়েন্টিতে জিততে সমস্যা হচ্ছে ভারতের। কোহালি যদিও এই পরিসংখ্যানে বিশ্বাসী নন। তার কথায়, ‘‘পরিসংখ্যান অনেক কিছু বলে। অনেক অজানা তথ্যও সামনে নিয়ে আসে। ব্যাটিংয়ে প্রথম ১৬ ওভার আমরা খারাপ খেলিনি। কিন্তু শেষ চার ওভারে ৪০-৪৫ রান হবে, এটাই আশা করা হয়। সেখানে আমরা ৩০ রান করেছি।’’

ব্যাট হাতে ১৯ রান করে ফিরে গেলেও, দুরন্ত ক্যাচ নিয়ে মন কাড়লেন বিরাট। কী ভাবে সম্ভব হল সেই ক্যাচ? বিরাটের উত্তর, ‘‘বলটি হাতে জমে গিয়েছে। গত ম্যাচে এ রকমই একটি ক্যাচ হাত থেকে বেরিয়ে গিয়েছিল। কারণ, দু’হাতের পরিবর্তে এক হাতে চেষ্টা করেছিলাম। এ বার সেই ভুল করিনি।’’

বিপক্ষ অধিনায়ক কায়রন পোলার্ড আপ্লুত তার দলের পারফরম্যান্সে। আন্দ্রে রাসেল, সুনীল নারাইন, ডোয়েন ব্র্যাভোদের ছাড়াই ভারতের মতো শক্তিশালী দলকে হারিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। পোলার্ড বলছিলেন, ‘‘আমি প্রচুর রান দেয়ার পরও ভারতকে ১৭০ রানে আটকে দেয়া সহজ নয়। বোলাররা অসাধারণ কাজ করেছে। এই দলের সাফল্যে ভীষণ খুশি। ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে ওরা প্রত্যেকে পারফর্ম করছে। সেই ছন্দ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ধরে রাখবে, অনেকেই ভাবেনি।’’ তিনি আরও বলেন, ‘‘এখনও অতিরিক্ত রান দিয়ে ফেলছি। পরের ম্যাচ থেকে ওয়াইড ও নো-বলের সংখ্যা কমাতে হবে।’’

ম্যাচের সেরা লেন্ডল সিমন্স জানিয়েছেন, বেশ কিছু দিন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বাইরে থাকার কারণে একটু জড়তায় ছিলেন। তিনি বলেছেন, ‘‘চ্যালেঞ্জ হিসেবেই নিয়েছিলাম এই ম্যাচকে। অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে উইকেটের চরিত্র বুঝে শট নিয়েছি।’’
সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা


আরো সংবাদ

নীলফামারীতে আজ আজহারীর মাহফিল, ১০ লক্ষাধিক লোকের উপস্থিতির টার্গেট (১৬৬৬৩)ইসরাইলের হুমকি তালিকায় তুরস্ক (১৪৪৬৩)বিজেপি প্রার্থীকে হারিয়ে মহীশূরের মেয়র হলেন মুসলিম নারী (১৩৮৭০)আতিকুলের বিরুদ্ধে ৭২ ঘণ্টায় ব্যবস্থার নির্দেশ (৮৩৫১)জয় বাংলা স্লোগান দিয়ে তাবিথের প্রচারণায় হামলা (৮১০২)মসজিদে মাইক ব্যবহারের অনুমতি দিল না ভারতের আদালত (৫৯৫১)মৃত ঘোষণার পর মা কোলে নিতেই নড়ে উঠল সদ্য ভূমিষ্ঠ শিশুটি (৫৭৮২)তাবিথের ওপর হামলা : প্রশ্ন তুললেন তথ্যমন্ত্রী (৫৪৪৯)দ্বিতীয় স্ত্রী তালাক দিয়ে ফিরলেন স্বামী, দুধে গোসল দিয়ে বরণ করলেন প্রথমজন (৫৩৯৭)ইশরাককে ফুল দিয়ে বরণ করে নিলো ডেমরাবাসী (৪৭৪৬)



unblocked barbie games play