০৮ ডিসেম্বর ২০১৯

অভিষেক ক্যাপ পেয়ে কাঁদলেন সেই পাকিস্তানি পেসার

-

জাতীয় দলের হয়ে অভিষেক যেকোন ক্রিকেটারের স্বপ্ন। শত সাধনার পর সেই স্বপ্ন পূরণ হয় কারো কারো। বৃহস্পতিবার অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেনে স্বাগতিকদের বিপক্ষে পাকিস্তান দলের হয়ে টেস্ট অভিষেক হয় নাসিম শাহ নামের এক তরুণের। ১৬ বছর বয়সী এই স্কুল বালককে এদিন টেস্ট ক্যাপ পরিয়ে দেন সাবেক কিংবদন্তী পেসার ও পাকিস্তান দলের বোলিং কোচ ওয়াকার ইউনুস।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানিয়েছে, ক্যাপ পেয়ে তাতে চুমু খেয়ে সতীর্থ শাহিন শাহ আফ্রিদিকে আলিঙ্গন করেন। এরপরই আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন তিনি। সতীর্থদের অভিনন্দনের জোয়ারে যখন ভাসছিলেন তখন তার চোখে দেখা যায় অশ্রু।

পার্থে অস্ট্রেলিয়া এ দলের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচের সময় নাসিম শাহর মা মারা যান। ম্যাচের প্রথম দুই দিন তাই তার মাঠে নামা হয়নি। দেশে ফেরার প্রস্তুতি চলছিল। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার সাথে পাকিস্তানের যা দূরত্ব তাতে দেশে ফিরে মায়ের জানাজা ও দাফনে অংশ নেয়ার সুযোগ ছিলো না। তাই পরিবারের সদস্যদের পরামর্শে দেশে ফেরা স্থগিত করেন নাসিম। দলের সাথে থেকে যান মাঠেই।

ম্যাচের তৃতীয় দিন নিজেকে শক্ত করে মাঠেও নামেন। সেদিন ৮ ওভার বল করে একটি উইকেট নেন। ওই বোলিংই তাকে টেস্ট অভিষেকের সুযোগ করে দেয়। সেদিন মাত্র ১ উইকেট পেলেও দারুণ বোলিং করেছেন। দুর্দান্ত সব ডেলিভারিতে উসমান খাজাসহ অস্ট্রেলিয়ার বেশ কয়েকজন ব্যাটসম্যানকে রীতিমতো নাচিয়ে ছাড়েন নাসিম।

এই ম্যাচের মাধ্যমে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে সবচেয়ে কম বয়সে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার কৃতিত্ব অর্জন করেন নাসিম। অভিষেকের দিন তার বয়স ১৬ বছর ২৭৯ দিন। এদিন আগে ব্যাটিং করে পাকিস্তান ২৪০ রানে অলআউট হয়েছে। নাসিম ১০ নম্বরে ব্যাট করতে নেমে ৭ রান করে মিচেল স্টার্কের বলে আউট হয়েছেন। 

পাকিস্তানের আফগান সীমান্ত এলাকায় জন্ম নেয়া নাসিম মাত্র ৭টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলে টেস্ট খেলার সুযোগ পেলেন।

আরো পড়ুন :

মায়ের মৃত্যুতেও মাঠ ছাড়েননি পাকিস্তানি পেসার

দেখুন:

আরো সংবাদ




Paykwik Paykasa
Paykwik