১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

বকেয়া মিটিয়ে বিপিএলে থাকছে সিলেট সিক্সার্স

অবশেষে বকেয়া মিটিয়ে বিপিএলে ফিরছে সিলেট সিক্সার্স।গতকাল শনিবার বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সঙ্গে বৈঠক শেষে নিজেদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করেন সিলেট সিক্সার্সের প্রধান নির্বাহী ইয়াসির ওবায়েদ।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) সপ্তম আসরে সিলেট সিক্সার্সের অংশগ্রহণ নিয়ে সংশয় ছিল। গুঞ্জন ওঠে, ক্রিকেটের এই দলটির মালিকানা পরিবর্তন নিয়েও। তবে আশার খবর হলো, আসন্ন বিপিএলে থাকছে ফ্র্যাঞ্চাইজিটি।

কয়েক দিন ধরে ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিকদের সঙ্গে বৈঠক করছে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। মালিকপক্ষকে জানানো হচ্ছে আসন্ন বিপিএলের নতুন নিয়মকানুন নিয়ে। পাশাপাশি ফ্র্যাঞ্চাইজির মালিকদের মতামতও শুনেছে বিসিবি।

তারই ধারাবাহিকতায় গতকাল শনিবার সিলেট সিক্সার্সের সঙ্গে আলোচনায় বসে বিসিবি। বৈঠকে অংশ নিতে মিরপুর শেরেবাংলায় আসেন সাবেক অর্থমন্ত্রী ও সিলেটের প্রধান পৃষ্ঠপোষক আবুল মাল আবদুল মুহিত এবং প্রধান নির্বাহী ইয়াসির ওবায়েদ।

বৈঠক শেষে নিজেদের সমস্যা সমাধানের কথা জানানোর সঙ্গে বেশ কয়েকটি দাবিও সংবাদমাধ্যমের কাছে তুলে ধরে সিলেট সিক্সার্স।

সিলেটের সঙ্গে মূল সমস্যা ছিল বিপিএলের অংশগ্রহণ ফি নিয়ে। টুর্নামেন্টের আগে মোট ফির ৭০ শতাংশ, অর্থাৎ প্রায় ৮০ লাখ টাকা দিতে হয় বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলকে। সেই টাকা পরিশোধ করতে ব্যর্থ হওয়ায় তাদের অংশগ্রহণ নিয়ে শঙ্কা ওঠে। অবশেষে সব পরিশোধ করে বিপিএলে খেলছে দলটি।

প্রধান নির্বাহী ইয়াসির ওবায়েদ বলেন, ‘বকেয়া নিয়ে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সঙ্গে যে সমস্যাটা ছিল, সেটার নিষ্পত্তি হয়েছে। আশা করি, পরবর্তী আসরে আমরা অংশ নেব এবং আমরা সেভাবেই প্রস্তুতি নিচ্ছি। বিসিবি ডেকেছিল আগামী চার বছরে টুর্নামেন্ট এগিয়ে নিতে আমাদের মতামত জানতে, আমরা তা জানিয়েছি।’

সপ্তম আসর মাঠে গড়াতে এখনো মাস তিনেক বাকি। তবে খেলোয়াড় নির্বাচনের সুবিধার জন্য আগেভাগে সূচি প্রকাশের দাবি জানিয়েছেন সিলেট সিক্সার্সের প্রধান নির্বাহী। তিনি বলেন, ‘আমরা জানিয়েছি, টুর্নামেন্ট কখন হবে, সেটি যেন আগে থেকে জানানো হয়। এখন তো এফটিপি প্রায় সবারই জানা। টুর্নামেন্টে অনেক সময় বিদেশি খেলোয়াড় পেতে সমস্যা হয়। আগে থেকে টুর্নামেন্টের তারিখ জানলে বুঝতে পারব কোন খেলোয়াড় পাব আর কাকে পাব না।


আরো সংবাদ