২৩ আগস্ট ২০১৯

রবি শাস্ত্রীকে বাদ দেয়া হচ্ছে?

রবি শাস্ত্র, বিরাট কোহলি - ছবি : সংগৃহীত

ক্যারিবিয়ান সফরে মিরাকেল কিছু না-ঘটেল ভারতীয় ক্রিকেটে শেষ হতে চলেছে শাস্ত্রীয় যুগ! ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের পরই ভারতীয় দলের সাপোর্ট স্টাফ পদে রদবদলের সম্ভাবনা প্রবল৷ প্রধান কোচ-সহ সবকটি পদের জন্যই নতুন করে আবেদনপত্র চাওয়া হবে বলে সোমবারই ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের তরফে জানিয়ে দেয়া হয়েছে।

তবে বিরাট-রোহিতদের হেডস্যার পদে থাকার জন্য পুনরায় আবেদন করতে হবে রবি শাস্ত্রীকে৷ ভারতের প্রধান কোচ হিসেবে দু’ বছর দায়িত্ব সামলাচ্ছেন টিম ইন্ডিয়ার সাবেক ব্যাটসম্যান৷ কিন্তু বুধবার ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে বিরাটদের হারের সঙ্গে সঙ্গে টিম ইন্ডিয়ার প্রধান কোচ রবি শাস্ত্রী, বোলিং কোচ ভরত অরুণ, ব্যাটিং কোচ সঞ্জয় বাঙ্গার এবং ফিল্ডিং কোচ আর শ্রীধরের মেয়াদ শেষ হয়ে যায়। এই চার জনেরই চুক্তি ছিল বিশ্বকাপ ২০১৯ পর্যন্ত।

কিন্তু আসন্ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের জন্য আপাতত ৪৫ দিনের প্রত্যেকেরই চুক্তির মেয়াদ বাড়ানো হয়৷ তবে প্রত্যেকেই নিজ নিজ দায়িত্ব ফির পাওয়ার জন্য ফের আবেদন করতে পারেন। যদিও ফিজিকাল ট্রেনার ও ফিজিও পদে নতুন মুখ একেবারে নিশ্চিত। বিশ্বকাপের পরই দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নিয়েছেন ট্রেনার শঙ্কর বসু ও ফিজিও প্যাট্রিক ফারহার্ট।

এতদিন শাস্ত্রীর সহকরি হিসেবে কাজ সামলেছেন ব্যাটিং কোচ সঞ্জয় বাঙ্গার, বোলিং কোচ ভরত অরুণ এবং ফিল্ডিং কোচ আর শ্রীধরের৷ ২০১৭ আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি ফাইনালে পাকিস্তানের কাছে হারের পর অনিল কুম্বলেকে বিতর্কিতভাবে ভারতীয় দলের কোচ হয়েছিলেন শাস্ত্রী। তার কোচিং-এ ভারত কোনও আইসিসি টুর্নামেন্ট না-জিতলেও, প্রথমবার অস্ট্রেলিয়ায় টেস্ট সিরিজ জিতেছে ভারত। দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথমবার ওয়ান ডে সিরিজেও চ্যাম্পিয়ন হয়েছে শাস্ত্রীর ভারত।

৩ আগস্ট ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর শুরু হচ্ছে ভারতের। এরপরই ভারত সফরে আসবে দক্ষিণ আফ্রিকা। ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে সফর শুর করবে বোর্ড। তার আগেই প্রধান কোচ ও অন্যান্য সাপোর্ট স্টাফ নিয়োগের কাজ শেষ করে নিতে চাইছে বিসিসিআই।
বোর্ডের এক কর্তা জানান, ‘দু-এক দিনের মধ্যেই বোর্ডের ওয়েবসাইটে সাপোর্ট স্টাফের সবকটি পদে আবেদনের জন্য বিজ্ঞাপন দেওয়া হবে। সাফোর্ট স্টাফ ছাড়াও টিম ইন্ডিয়ার ম্যানেজার পদেও আবেদন করা হবে৷ ২০১৭ বিরাটদের টিম ম্যানেজার পদে নিযুক্ত হন তামিলনাড়ু ক্যাপ্টেন সুনীল সহ্মমনীয়ম৷ কিন্তু ম্যানেজারের পদ গত বছরই মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছে তার৷ কিন্তু এক বছরের মেয়াদ বাড়িয়ে বিশ্বকাপ পর্যন্ত দলের ম্যানেজার ছিলেন সুনীল৷


আরো সংবাদ




mp3 indir bedava internet