১৭ অক্টোবর ২০১৯

বিন্দুমাত্র সুযোগ থাকলেও ভারতের বিপক্ষে নামবো : মাহমুদউল্লাহ

বাংলাদেশ দলের অলরাউন্ডার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। - ছবি : সংগৃহীত

বিন্দুমাত্র সুযোগ থাকলেও ভারতের বিপক্ষে খেলতে নামবেন বাংলাদেশ দলের অলরাউন্ডার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। পায়ের পেশিতে চোট পাওয়া মাহমুদউল্লাহকে নিয়ে শঙ্কার মধ্যে পড়ে গেছে বাংলাদেশ। আগে থেকেই কাঁধের চোটে থাকা এই ডানহাতি ব্যাটসম্যানকে ভারতের বিপক্ষে ‘মাস্ট উইন’ ম্যাচে পাওয়া যাবে কি-না তা নিয়ে তৈরি হয়েছে দোলাচল। তবে টাইগার দলনেতা মাশরাফি বিন মর্তুজা জানিয়েছেন, মাহমুদউল্লাহর খেলার ব্যাপারে আশাবাদী তিনি।

সাউদাম্পটনে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ব্যাটিংয়ের সময় পায়ে টান লেগেছিল মাহমুদউল্লাহর। পরে আর ফিল্ডিংয়ে নামেননি তিনি। এরপর স্ক্যান করে পাওয়া রিপোর্টে জানা গেছে, তার চোটটা গ্রেড ওয়ান। অর্থাৎ, খুব বেশি গুরুতর নয়। তবে সম্পূর্ণ সুস্থ হতে সাত থেকে দশদিন লাগবে। এই সময়ের মধ্যেই আবার বার্মিংহামে ভারতের মোকাবেলা করতে হবে বাংলাদেশকে (২ জুলাই)। সেমিফাইনালে খেলার আশা বাঁচিয়ে রাখতে যে ম্যাচে জয়ের বিকল্প নেই মাশরাফিদের।

গুরুত্বপূর্ণ ওই ম্যাচে মাহমুদউল্লাহকে পাওয়া না গেলে তা বাংলাদেশের জন্য হবে বিশাল একটি ধাক্কা। তবে সতীর্থের ওপর আস্থা রাখছেন মাশরাফি। মঙ্গলবার (২৫ জুন) তিনি বলেছেন, শারীরিক দুর্বলতা থাকলেও মনের জোর দিয়ে সেটাকে জয় করে মাঠে নামতে পারবেন মাহমুদউল্লাহ, ‘আমি নিশ্চিত যে, যদি বিন্দুমাত্রও সুযোগ থাকে, ভারতের বিপক্ষে সে খেলবে। মানসিক শক্তি দিয়ে শারীরিক ঘাটতি পুষিয়ে নিতে পারবে সে।’

বাংলাদেশ দলের ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজনও একই আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন, ‘এটা গ্রেড ওয়ান চোট। কিন্তু এটা নিরাময়যোগ্য। আমাদের পরের খেলাটা আগামী মঙ্গলবার। আমাদের হাতে সাতদিন সময় আছে। এই মুহূর্তে সম্ভাবনাটা ৫০-৫০। আমরা বলতে পারছি না, সে খেলবে না-কি খেলবে না। আগামী কয়েক দিন তার অবস্থাটা আমাদের পর্যবেক্ষণ করতে হবে। মাহমুদউল্লাহ আমাদের দলের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ একজন খেলোয়াড়। আমি বিশ্বাস করি, ওই ম্যাচের আগে সে সেরে উঠবে।’

২০১৫ বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সেরা পারফর্মার ছিলেন মাহমুদউল্লাহ। ছয় ইনিংসে দুই সেঞ্চুরি ও এক হাফসেঞ্চুরিতে ৩৬৫ রান করেছিলেন তিনি। বিশ্বকাপে বাংলাদেশের প্রথম সেঞ্চুরিটি এসেছিল তার ব্যাট থেকেই। এবারের আসরটাও এখন পর্যন্ত ভালো কেটেছে মাহমুদউল্লাহর। পাঁচ ইনিংসে ব্যাটিং করে ৪৭.৫০ গড়ে ১৯০ রান সংগ্রহ করেছেন তিনি। হাফসেঞ্চুরি করেছেন একটি। ৫০ বলে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ৬৯ রানের ইনিংস খেলেছিলেন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে।


আরো সংবাদ




astropay bozdurmak istiyorum
portugal golden visa