২১ জুলাই ২০১৯

ভারতের বিপক্ষেই সেরাটা খেলবো : স্টোকস

শ্রীলংকার কাছে হারের পর ২০১৯ বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে অস্ট্রেলিয়ার কাছেও পরাজিত হয়েছে টুর্নামেন্টের অন্যতম ফেভারিট স্বাগতিক ইংল্যান্ড। মঙ্গলবার লর্ডসে বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের কাছে ৬৪ রানে পরাজিত হয়েছে ইয়োইন মর্গানের নেতৃত্বাধীন দলটি। পরপর দুই ম্যাচে এই হার তাদের সেমি-ফাইনালে অংশগ্রহনও অনিশ্চত করে তুলেছে। এখন শেষ চারে খেলার সুযোগ বাঁচিয়ে রাখতে হলে পরের দুটি ম্যাচেই জয়লাভ করতে হবে ইংলিশদের।

অপরদিকে মঙ্গলবারের ওই জয়ে সেমি-ফাইনাল নিশ্চিত হয়ে গেছে অস্ট্রেলিয়ার। পরবর্তী ম্যাচে আগামী রোববার বার্মিংহ্যামে ভারতের মোকাবেলা করবে ইংল্যান্ড। টুর্নামেন্টে এখনো অপরাজিত রয়েছে ভারত। তবে ইংলিশ পেসার বেন স্টোকস গত বছর তাদের(ভারত) বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জয় আসন্ন ম্যাচে ইংল্যান্ডের বড় অনুপ্রেরনা হিসেবে বাজ করবে।

স্টোকস বলেন, ‘ইংল্যান্ডের মাটিতে ভারতের বিপক্ষে আমরা রেকর্ড গড়েছি। তবে এখন তারা অন্যরকম। যথেষ্ট ফর্মে রয়েছে। আশা করবো ওই ম্যাচে নিজেদের সোরাটা বের করে আনতে পারব।’
অস্ট্রেলিয়ার কাছে পরাজিত হবার পরও টুর্নামেন্ট পুর্ব ফেভারিট ইংল্যান্ড সেমি-ফাইনালে কোয়ালিফাই করবে বলে আশাবাদ জানিয়ে স্টোকস বলেন,‘ এটি আমাদের বিশ্বকাপ’। চ্যাম্পিয়নদের ২৮৬ রানের জবাবে ২২১ রানেই গুটিয়ে যায় ইংল্যান্ড। ফলে ২০১৭ সালের জানুয়ারির পর প্রথম আন্তর্জাতিক কোন ওয়ানডে ম্যাচে পরপর পরাজয়ের স্বাদ পেল ইংল্যান্ড। আগের ম্যাচে শ্রীলংকার দেয়া টার্গেট অতিক্রম করতে গিয়েও ২০ রানের দূরত্বে থেমে যেতে হয়েছিল স্বাগতিকদের।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে ৮৯ রান করেছিলেন স্টোকস। আগের ম্যাচে শ্রীলংকার বিপক্ষেও অপরাজিত ৮২ রান করেছিলেন এই অল রাউন্ডার। কিন্তু তার ওই সংগ্রহ দলকে জয়ে পৌঁছাতে পারেনি। এই নিয়ে আসরে তিন ম্যাচে পরাজিত হল ইংল্যান্ড। টুর্নামেন্টের শুরুতে পাকিস্তানের কাছে পরাজিত হয়েছিল তারা।

স্টোকস বলেন,‘ গত দুই ম্যাচে হারের পর সবাই হতাশ হয়েছে। কিন্তু আপনি জানেন, এটি আমাদের বিশ্বকাপ। আমরা সেই পথেই হাটতে যাচ্ছি। আমরা জানি কিভাবে সোরাটা খেলতে হয়।’ সেমি-ফাইনালে খেলতে হলে গ্রুপ পর্বের শেষ দুই ম্যাচে ভারতও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে জয়লাভ করতে হবে ইংল্যান্ডকে।

স্টোকস বলেন,‘ আমাদের শুধুমাত্র কন্ডিশন ও পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিতে হবে। অন্তত গ্রুপ পর্বের শেষ দুই ম্যাচে আমরা একবিন্দুও পিছু হটতে রাজি নই। একজন ক্রিকেটারের জন্য এটি হচ্ছে বৃহৎ ও শ্রেষ্ঠ সময়। যার মাধ্যমে বিশ্বকাপে আপনি দেশকে প্রতিনিধিত্ব করবেন।’

ফর্মে থাকা ওপেনিং ব্যাটসম্যান জেসন রয়ের হ্যামস্ট্রিংয়ের কারণে অনুপস্থিতিতেই ইংল্যান্ড সর্বশেষ দুই ম্যাচে পরাজিত হয়েছে। তার পরিবর্তিত হিসেবে দলভুক্ত হওয়া জেমস ভিন্স শ্রীলংকার বিপক্ষে ১৪ রান সংগ্রহ করতে পারলেও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে শুন্য রানেই মাঠ ছেড়েছেন।


আরো সংবাদ

gebze evden eve nakliyat instagram takipçi hilesi