২১ জুলাই ২০১৯

বাংলাদেশ, শ্রীলংকা ও পাকিস্তানের সেমিফাইনাল সমীকরণ

-

 

বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে যাওয়ার লড়াইয়ে অনেকটাই নির্ভার তিনটি দল- অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড ও ভারত। তারা যে যাচ্ছে সেটি অনেকটাই নিশ্চিত। কিন্তু চতুর্থ দলটি কারা হবে। ইংল্যান্ড শ্রীলঙ্কা ও অস্ট্রেলিয়ার সাথে হেরে যাওয়ায় েতাদের বাদ পড়ার শঙ্কা তৈরি হয়েছে।

তাই চতুর্থ জায়গাটির জন্য লড়াই হচ্ছে চারদলের। তবে ফেভারিট ইংল্যান্ড সেই জায়গাটি আগে থেকেই দখলে রেখেছে। অর্থাৎ বর্তমানে তারাই আছে পয়েন্ট টেবিলের চার নম্বরে।

কিন্তু এই চার নম্বর পজিশনে কি তারা থাকতে পারবে? সেটার উত্তর দেবে সময়। টুর্নামেন্টের শুরুতে হট ফেভারিট ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল, পাকিস্তান, শ্রীলংকা ও অস্ট্রেলিয়ার কাছে হেরে টুর্নামেন্ট থেকে বাদ পড়ার শঙ্কা জাগিয়ে তুলেছে। আর তারা বাদ পড়লে সেই সুযোগটি নেবে বাংলাদেশ, পাকিস্তান অথবা শ্রীলঙ্কার কোন একটি। এই তিনটি দলেরই সেমিফাইনালে ওঠার সম্ভাবনা এখনো টিকে আছে।

বাংলাদেশ ৭ ম্যাচ খেলে তিন জয়ে ৭ পয়েন্ট পেয়েছে। পরবর্তী ম্যাচ এজবাস্টনে ভারতের বিপক্ষে। আগামী মঙ্গলবার এই ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে। তবে এই ম্যাচটি জেতা সহজ হবে না বাংলাদেশের জন্য।

কিন্তু যদি বাংলাদেশ এই ম্যাচে জয় পায়, সেক্ষেত্রে পাকিস্তানের বিপক্ষে ৫ই জুলাইয়ের ম্যাচটি 'ডু অর ডাই' হয়ে যেতে পারে।
পাকিস্তান ও বাংলাদেশ ৫ই জুলাই লর্ডসে মুখোমুখি হবে। এই দুই ম্যাচে জয় পেলে বাংলাদেশের পয়েন্ট দাঁড়াবে ১১।

এখন পর্যন্ত ছয় ম্যাচে মাত্র দুটো জয় পেয়েছে শ্রীলংকা। কিন্তু তাদের এখনো সুযোগ রয়েছে সেমিফাইনালে ওঠার। দুটো ম্যাচ পরিত্যক্ত হওয়ায় শ্রীলংকা পেয়েছে দুটো মূল্যবান পয়েন্ট। এরপর হারিয়েছে ইংল্যান্ডকে।

শ্রীলংকার ম্যাচ বাকি আছে তিনটি। ২৮শে জুন, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। ১ জুলাই, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে, এবং ৬ই জুলাই, ভারতের বিপক্ষে।
যদি শ্রীলংকা ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে জিতে যায় সেক্ষেত্রে তারা সেমিফাইনালের পথে বড় ধাপ এগোবে। অন্যথা বিপত্তি ঘটবে, কারণ যদি পয়েন্ট সমান হয়ে যায় সেক্ষেত্রে বিবেচ্য হবে মুখোমুখি লড়াই, সেখানে পিছিয়ে শ্রীলংকা, এমনকি নেট রান রেটেও নেতিবাচক শ্রীলংকার অবস্থান।

পাকিস্তানের অন্যতম খ্যাতি তারা আনপ্রেডিক্টেবল। এই বিশ্বকাপেও সেটার ছাপ রেখেছে দলটি। প্রথম ম্যাচেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ১০৫ রানে অল-আউট হওয়া দলটি ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তোলে ৩৪৮ রান, জয়ও তুলে নেয় ১৪ রানে। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে পাকিস্তান যদি জিতে যায়, সেক্ষেত্রে ইংল্যান্ডের চেয়ে ১ পয়েন্ট পেছনে থেকে পাঁচ নম্বরে থাকবে দলটি। নিউজিল্যান্ডের বিপেক্ষ যদি হেরেও যায় সেক্ষেত্রে তাদের পরবর্তী দুটো ম্যাচ আফগানিস্তান ও বাংলাদেশের বিপক্ষে।

যদিও এই দুই ম্যাচ জিতলেই যে পাকিস্তান সেমিফাইনাল খেলবে সেটা নিশ্চিত নয়। সেক্ষেত্রে অন্যদের ফলাফলের দিকেও চোখ রাখতে হবে মিকি আর্থার ও সরফরাজের দলকে। তবে পাকিস্তান তাদের তিন ম্যাচের সবগুলো জিতলে সেমিতে খেলার লড়াইয়ে তারাই এগিয়ে থাকবে অন্যদের চেয়ে। বিবিসি


আরো সংবাদ




gebze evden eve nakliyat instagram takipçi hilesi