১৮ জুন ২০১৯

বিশ্বখ্যাত ১০০ ক্রীড়াবিদের তালিকায় বাংলাদেশের ৩ জন

ক্রিকেট
সাকিব, মুশফিক ও মাশরাফি - ছবি : ইএসপিএন

ইএসপিএন ২০১৯ সালের সেরা ১০০ ক্রীড়াবিদের তালিকা করেছে। সে তালিকায় রয়েছেন বাংলাদেশের তিন তারকা ক্রিকেটার।

এই প্রথমবারের মতো ইএসপিএনের শত ক্রীড়াবিদের তালিকায় স্থান করে নিলেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। তারা হলেন, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম ও মাশরাফি বিন মুর্তজা।

এই তালিকার এক নম্বরে আছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। সাকিবের অবস্থান ৯০, মুশফিকের ৯২ আর মাশরাফির ৯৮।

আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসি আছেন তিন নম্বরে। রোনালদোর পরেই আছেন যুক্তরাষ্ট্রের বাস্কেটবল তারকা লেবর্ন জেমস। চার নম্বরে আছেন ব্রাজিলীয় ফুটবল তারকা নেইমার জুনিয়র।

তালিকায় বিশ্বের অন্য ক্রিকেটারদের মধ্যে আছেন বিরাট কোহলি (৭), মহেন্দ্র সিং ধোনি (১৩), যুবরাজ সিং (১৮), সুরেশ রায়না (২২), রোহিত শর্মা (৪৬), রবিচন্দ্রন অশ্বিন (৪২), হরভজন সিং (৭৪) ও শিখর ধাওয়ান (৯৪)।

উপমহাদেশের বিখ্যাত টেনিস খেলোয়াড় ভারতের সানিয়া মির্জা আছেন এ তালিকার ৯৩তম অবস্থানে। বিশ্বখ্যাত নারী টেনিস তারকা সেরেনা উইলিয়ামসের অবস্থান ১৭তম। পুরুষ টেনিস তারকা রাফায়েল নাদালের অবস্থান ৮ নম্বরে। যুক্তরাষ্ট্রের বিখ্যাত গলফ খেলোয়াড় টাইগার উডস আছেন তালিকার ১০ম অবস্থানে।

এছাড়া বাক্সেটবল খেলোয়াড় স্পিফেন কারি আছেন ৯ম অবস্থানে।

এ তালিকায় ফুটবলারদেরই প্রাধান্য রয়েছে।

বিশ্বের ৭৮টি দেশের প্রায় ৮০০ ক্রীড়াবিদের মধ্য থেকে এই তালিকা করা হয়েছে। মূলত, তিনটি বিষয়কে এই তালিকা তৈরির সময় জোর দেয়া হয়েছে—গুগলে ওই নির্দিষ্ট খেলোয়াড়কে খোঁজার সংখ্যা, ফেসবুক-টুইটারে তাদের অনুসারীর সংখ্যা আর বিজ্ঞাপন ও পণ্যের দূতিয়ালি থেকে করা আয়।

আরো পড়ুন :
ইংরেজি মাধ্যম পরীক্ষায় বিশ্বসেরা বাংলাদেশের ৪৮ শিক্ষার্থী
নিজস্ব প্রতিবেদক, ০৮ ডিসেম্বর ২০১৮
ইংরেজি মাধ্যমে আন্তর্জাতিক পরীক্ষায় (ক্যামব্রিজ এক্সামিনেশন সিরিজ) বিশ্বসেরা হয়েছে বাংলাদেশের ৪৮জন শিক্ষার্থী। ক্যামব্রিজ আইজিসিএসই, ও-লেভেল, এএস এবং এ-লেভেলে বিভিন্ন বিষয়ে সর্বোচ্চ ফলাফল অর্জন করেছে এ সব শিক্ষার্থী। এর মধ্যে ৩৫ জন শিক্ষার্থী সব পরীক্ষায় দেশসেরা হয়েছে। এ বছর বাংলাদেশের মোট ৯৮ জন শিক্ষার্থী আউটস্ট্যান্ডিং ক্যামব্রিজ লার্নার অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে।

শনিবার ক্যামব্রিজ ইন্টারন্যাশনাল ও ব্রিটিশ কাউন্সিলের উদ্যোগে আয়োজিত অনুষ্ঠানে রাজধানীর বসুন্ধরার আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটিতে বাংলাদেশের বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষার্থীদের বিশেষ ফলাফলের জন্য এ সব স্বীকৃতি দেয়া হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ব্র্যাকের চেয়ারপারসন স্যার ফজলে হাসান আবেদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ব্রিটিশ ডেপুটি হাইকমিশনার কানবার হোসেন।

ব্রিটিশ কাউন্সিলের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক অ্যান্ড্রিউ নিউটন বলেন, ‘ইংরেজি মাধ্যমে শিক্ষায় শীর্ষস্থান অর্জনে তোমাদের সাফল্য অনেক বছরের কঠোর পরিশ্রম, সাহস ও প্রতিশ্রুতির ফল। দেশের নেতৃস্থানীয় পর্যায়ে পৌঁছাতে আরও সাফল্যের ক্ষেত্রে এ অর্জন তোমাদের জন্য ভিত্তি হিসেবে কাজ করবে।’

ক্যামব্রিজ ইন্টারন্যাশনালের দক্ষিণ এশিয়ার আঞ্চলিক পরিচালক রুচিরা ঘোষ বলেন, ‘ক্যামব্রিজ ইন্টারন্যাশনালের প্রধান লক্ষ্য কঠিন বিষয় সহজে প্রস্তুত করা এবং তাদের প্রয়োজনীয় বিভিন্ন দক্ষতা, যেমন সৃষ্টিশীলতা, বিশ্লেষণী চিন্তা ও সমস্যা সমাধানে দক্ষতা বৃদ্ধির মাধ্যমে ভবিষ্যৎ জীবনের জন্য প্রস্তুত করে তোলা। বাংলাদেশের শিক্ষার্থীরা আমাদের কর্মসূচির মাধ্যমে তাদের লক্ষ্য ও স্বপ্ন অর্জন করেছে, এটা দেখতে পেরে আমরা অত্যন্ত আনন্দিত। শিক্ষক ও অভিভাবকরা শিক্ষার্থীদের সাফল্য অর্জনে সঠিক পথে যেতে সহায়তা করেছেন এবং দিক নির্দেশনা দিয়েছেন। এজন্য আমরা তাদের বিশেষ ধন্যবাদ দিতে চাই।’

অনুষ্ঠানে ব্রিটিশ কাউন্সিলের ডিরেক্টর এক্সামিনেশনস সেবাস্তিয়ান স্বাগত বক্তব্য দেন। এরপর সানিডেল স্কুলের শিক্ষার্থীরা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করে। অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের প্রতিনিধি হিসাবে বক্তব্য রাখে খন্দকার তামকিন সাকির। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ক্যামব্রিজ ইন্টারন্যাশনালের পূর্ব ভারত, বাংলাদেশ ও নেপালের ব্যবস্থাপক সত্যজিৎ সরকার, ক্যামব্রিজ ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার শাহিন রেজা প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, পুরস্কারপ্রাপ্ত ৪৮ জন শিক্ষার্থী দেশের ১৩টি স্কুলের ছাত্র-ছাত্রী। বিগত বছরগুলোর তুলনায় এ বছর বাংলাদেশ সর্বমোট বিজয়ীর সংখ্যা উল্লেখযোগ্যভাবে বেড়েছে।


আরো সংবাদ