২৫ মার্চ ২০১৯

নির্যাতন ও শ্লীলতাহানি অভিযোগ : ফেঁসে গেলেন সামি!

সামি ও হাসিন - সংগৃহীত

অবশেষে ক্রিকেটার মোহাম্মদ সামি’র বিরুদ্ধে কেবলমাত্র বধূ নির্যাতনের অভিযোগ এনে আদালতে চার্জশিট পেশ করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার আলিপুরের অতিরিক্ত মুখ্য বিচার বিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেট (এসিজেএম) আদালতে ওই চার্জশিট পেশ করা হয়। অন্যদিকে, ধর্ষণের মতো গুরুতর অভিযোগের প্রমাণ না মেলায় সেই অভিযোগ থেকে অভিযোগকারিণী হাসিন জাহানের ভাসুরকে অব্যাহতি দেয়া হয়।
চার্জশিটে তার বিরুদ্ধে নির্যাতন ও শ্লীলতাহানি অভিযোগ আনে পুলিশ। তবে স্ত্রীকে মারধর ও অন্যান অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয় সামিকে।

যদিও হাসিনের আইনজীবী জাকির হোসেন বৃহস্পতিবার বলেন, আমরা এই চার্জশিটে খুশি নই। আমরা আদালতের পেশ করা ওই নথির সার্টিফায়ের্ড কপি হাতে পেলে চিন্তা‑ভাবনা করব এই নিয়ে বিষয়টি নিয়ে উচ্চ আদালতে যাওয়া যায় কি না?

এদিকে, সামির আইনজীবী মোহাম্মদ সেলিম রহমান ও অনির্বাণ গুহঠাকুরতা বলেন, অভিযোগকারিণী যে একাধিক মিথ্যা অভিযোগ এনেছিলেন, পুলিশি তদন্তেই তা প্রমাণিত হয়ে গেল। আর সেই কারণেই পুলিশ গুরুতর অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দিয়ে কেবলমাত্র লঘু ধারায় চার্জশিট পেশ করেছে। শুধু তাই নয়, মামলায় প্রাথমিকভাবে অভিযোগের কোনো সারবত্তা না মেলায় এই মামলা থেকে মামলাকারিণীর শ্বশুরবাড়ির তিন অভিযুক্তকে অব্যাহতি দেয় পুলিশ।
ওই আইনজীবীদের বক্তব্য, আমাদের মক্কেলরা চার্জশিটের প্রতিলিপি পেলে পরবর্তী সময় আমরা প্রয়োজনীয় আইনি পদক্ষেপ নেব। যদিও সরকারি আইনজীবীদের বক্তব্য, কোনো মামলায় যা অভিযোগ করবে সেই ধারাতেই যে চার্জশিট দিতে হবে, তার কোনো ভিত্তি নেই। দেখতে হবে, অভিযোগের যথেষ্ট সারবত্তা আছে কি না। যদিও থেকে থাকে, তাহলে চার্জশিট হবে। না হলে তা সম্ভব নয়।

পুলিশ ও আদালত সূত্রে জানা গেছে, গত বছরের মার্চ মাসে সামি’র স্ত্রী হাসিন জাহান পুলিশের কাছে একাধিক ধারায় এফআইআর দায়ের করেন। পরে মামলার তদন্তভার গ্রহণ করে কলকাতা গোয়েন্দা পুলিশ।

মামলার তদন্তে নেমে পুলিশ একাধিক জনের বক্তব্য নথিভুক্ত করে। অবশেষে বৃহস্পতিবার আদালতে চার্জশিট পেশ করা হয়। তবে প্রশ্ন উঠছে, একজন চার্জশিট প্রাপ্ত ক্রিকেটারকে কি বিশ্বকাপ দলে রাখবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআই? কারণ, সামির বিরুদ্ধে যখন একাধিক অভিযোগ করেছিলেন তার স্ত্রী, তখন সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত প্রশাসক কমিটি ভারতীয় পেসারটির চুক্তি স্থগিত রেখেছিল। পরবর্তীকালে বোর্ডের তদন্ত রিপোর্টের ভিত্ততে সামি বোর্ডের চুক্তিতে অর্ন্তভুক্ত হন।

তবে ওই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে সামির ক্রিকেট কেরিয়ার প্রায় শেষ হতে বসেছিল। সেখান থেকে তিনি দারুণ কামব্যাক করেন। নিউজিল্যান্ডে ভারতের হয়ে সর্বাধিক ৯টি উইকেট নিয়েছিলেন তিনি। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে দারুণ বোলিং করার সুবাদে ভারতীয় নির্বাচকদের আস্থা অর্জন করে নেন তিনি। বিশ্বকাপ দলেও সামির জায়গা প্রায় পাকা। তবে কলকাতা পুলিশ চার্জশিট দেওয়ার পর সিওএ কী পদক্ষেপ নেয় সেটাই দেখার!


আরো সংবাদ




iptv al Epoksi boya epoksi zemin kaplama Daftar Situs Agen Judi Bola Net Online Terpercaya Resmi

Hacklink

Canlı Radyo Dinle hd film izle instagram takipçi satın al ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme

instagram takipçi satın al