২৫ মার্চ ২০১৯

দ্বিতীয় ইনিংসে পথ খুঁজছে বাংলাদেশ

দ্বিতীয় ইনিংসে পথ খুঁজছে বাংলাদেশ
সাদমান ইসলামকে আউট করার পর নিউজিল্যান্ডের খেলোয়াড়দের উল্লাস - এএফপি

নিউজিল্যান্ডের প্রথম ইনিংসে করা ৪৩২ রানের জবাবে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে বিপর্যয়ে পড়েছে বাংলাদেশ। দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুতেই টাইগাররা হারিয়েছে ৩টি উইকেট। চতুর্থ দিন শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২৩ ওভারে ৩ উইকেটে ৮০ রান। টাইগাররা এখনো পিছিয়ে আছে ১৪১ রানে।

দুর্দান্ত ফর্মে থাকা তামিম ইকবাল দ্বিতীয় ইনিংসে ফিরে গেছেন সবার আগে। দলীয় চার রানে প্রথম উইকেট পতনের পর ২০ রানে ফিরে যান মুমিনুল হক। আর দলীয় ৫৫ রানে আউট হন সাদমান ইসলাম। কিউই পেসার ট্রেন্ট বোল্ট ২টি ও হেনরি নেন একটি উইকেট।

এর আগে রস টেইলরের ডাবল সেঞ্চুরি ও হেনরি নিকোলসের সেঞ্চুরিতে ভর করে ৬ উইকেটে ৪৩২ রান করে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে নিউজিল্যান্ড।

বৃষ্টির বাধায় প্রথম দুইদিন মাঠে গড়াতে পারেনি খেলা। তৃতীয় দিন টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ২১১ রানে অল আউট হয়ে যায় বাংলাদেশ। আর নিউজিল্যান্ড ব্যাট করতে নামেল ৮ রানেই দুই ওপেনারকে হারিয়ে বসে। তবে বৃষ্টির বাধায় শেষ দিকে খেলা বন্থ হয়ে যায়। ২ উইকেটে ৩৮ রান করে তৃতীয় দিন শেষ করে নিউজিল্যান্ড।

অপরাজিত থাকা দুই ব্যাটসম্যান উইলিয়ামসন ও টেইলর শুরু করেন চতুর্থ দিন। এই জুটিতে আসে ১৭২ রান। ব্যক্তিগত ৭৪ রানে আউট হন আগের ম্যাচের ডাবল সেঞ্চুরিয়ান উইলিয়ামসন। তবে টেইলর তুলে নেন নেন ডাবল সেঞ্চুরি। মোস্তাফিজুর রহমানের বলে আউট হওয়ার আগে কাঁটায় কাঁটায় ২০০ রান করেন তিনি। ২১২ বল খেলে তিনি মেরেছেন ৪টি ছক্কা ও ১৯টি চার।

এছাড়া সেঞ্চুরি পেয়েছেন নিকোলস। ১২৯ বলে ১০৭ রান করে আউট হন তিনি। কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম ২৩* রানে অপরাজিত ছিলেন। ৯৪ রানে ৩ উইকেট নিয়েছেন আবু জায়েদ রাহী। তাইজুল ইসলাম নিয়েছেন ২ উইকেট।

 

আরো পড়ুন : বৃষ্টিবিঘ্নিত তৃতীয় দিনেও খেলা হলো না সারাদিন
নয়া দিগন্ত অনলাইন, (১০ মার্চ ২০১৯)

টানা মুষলধারে বৃষ্টি, আউটফিল্ডে পানি জমে যাওয়া, মাঠ খেলার অনুপযোগী। এসব কারণে বাংলাদেশ বনাম নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচের প্রথম দুই দিন মাঠে বল গড়ানো তো দূরের কথা, টসই করা সম্ভব হয়নি। তাই সিদ্ধান্ত হয় ম্যাচের শেষ তিনদিন এক ঘণ্টা করে বেশি খেলা হবে। কিন্তু বৃষ্টির বাধায় তা কি আর সম্ভব হলো? তৃতীয় দিন নির্ধারিত সময়ের আধঘণ্টা আগে খেলা শুরু হলেও শেষ করা যায়নি সারা দিনের নির্ধারিত ওভারের খেলা। বৃষ্টির কারণে প্রায় দেড়ঘণ্টা আগেই খেলা বন্ধ ঘোষণা করতে বাধ্য হয়েছেন দুই আম্পায়ার।

আবহাওয়ার পূর্ভাবাস অনুযায়ী ওয়েলিংটনে রোববার বৃষ্টি হওয়ার খুব বেশি সম্ভাবনা ছিল না। তবু হালকা বৃষ্টির আভাস ঠিকই দেয়া হয়েছিল। সেই আভাসেই মোটামুটি ভারী বর্ষণ শুরু হয়েছে ওয়েলিংটন টেস্টের তৃতীয় দিনেও। যে কারণে আবারও বন্ধ হয়ে যায় খেলা।


বৃষ্টি নামার আগে তৃতীয় দিনে খেলা হয়েছে সবমিলিয়ে ৭২.৪ ওভার। তখনো বাকি ছিলো দিনের অন্তত ২৫.২ ওভার। ম্যাচের তৃতীয় দিনে এসে হওয়া টসে হেরে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ৬১ ওভার ব্যাটিং করে বাংলাদেশ দল স্কোরবোর্ডে জমা করে ২১১ রান। জবাবে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে খেলা বন্ধ হওয়ার আগে ১১.৪ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে ৩৮ রান করে নিউজিল্যান্ড।

কিউইরা ৮ উইকেট হাতে রেখে এখনও পিছিয়ে ১৭৩ রানে। ম্যাচের আর বাকি আছে দুই দিন। বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ হওয়ার আগে নিউজিল্যান্ডের হারানো দুটি উইকেটই তুলে নেন ডানহাতি পেসার আবু জায়েদ রাহী। কিউই ইনিংসের শুরুতেই জোড়া আঘাত হানেন সিলেটের এই পেসার। মাত্র ৮ রানেই সাজঘরে ফিরে যান দুই কিউই ওপেনার টম লাথাম এবং জিত রাভাল।

রোববার দিনের তৃতীয় সেশনে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই আবু জায়েদ রাহী ও ইবাদত হোসেনের বোলিংয়ের বিপক্ষে অস্বস্তিতে ছিলেন রাভাল এবং লাথাম। ইনিংসের পঞ্চম ওভারে লাথামের বেশ কঠিন পরীক্ষাই নেন রাহী। ওভারের শেষ বলে বাঁহাতি এ ওপেনারকে উইকেটের পেছনে ক্যাচে পরিণত করে সাজঘরে পাঠান ২৫ বছর বয়সী এ পেসার। লাথাম করেন ৪ রান।


মাত্র ৫ রানে প্রথম উইকেট হারিয়ে খোলসবন্দী হয়ে যায় নিউজিল্যান্ড। দ্বিতীয় উইকেটে রক্ষণাত্মক ব্যাটিং শুরু করেন কেন উইলিয়ামসন এবং জিত রাভাল। অপরপ্রান্ত থেকে দারুণ লাইন-লেন্থে বোলিং করেন ইবাদত। নবম ওভারে যার ফায়দা নেন রাহী। এবার তিনি সাজঘরে পাঠান আরেক ওপেনার রাভালকে। শর্ট কভারে ক্যাচটি ধরেন সৌম্য সরকার।

এর আগে তৃতীয় দিনে বেসিন রিজার্ভে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে দেখে শুনেই ব্যাট চালাতে থাকেন বাংলাদেশের দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও সাদমান ইসলাম। উদ্বোধনী জুটিতে দু’জন মিলে গড়েন ৭৫ রানের জুটি। কিন্তু সাদমান ২৭ রান করে গ্রান্ডহোমের বলে আউট হন। তামিম টেস্ট ক্যারিয়ারে ২৭তম অর্ধশতক তুলে নেন। বৃষ্টিভেজা দু’টি দিনের পর ওয়েলিংটনে তৃতীয় দিনে বাংলাদেশের বিপক্ষে টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন।

এছাড়া মুমিনুল ১৫, মিঠুন ৩, সৌম্য ২০, মাহমুদউল্লাহ ১৩, লিটন দাস ৩৩ রান করেন। শেষ দিকে তাইজুল ৮ ও আবু জায়েদ করেন ৪ রান।


আরো সংবাদ




iptv al Epoksi boya epoksi zemin kaplama Daftar Situs Agen Judi Bola Net Online Terpercaya Resmi

Hacklink

Canlı Radyo Dinle hd film izle instagram takipçi satın al ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme

instagram takipçi satın al