২০ মে ২০১৯

১০ জন মিলে ৯ রান

ম্যাচের একটি মুহূর্ত - ছবি : সংগ্রহ

২৪ রানে অলআউট দল, তার মধ্যে একজনই করেছেন আবার ১৫ রান। বাকি দশ জন মিলে করেছেন মাত্র ৯ রান। বুধবার স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে এমনই অবস্থা হয়েছে ক্রিকেটে প্রায় নতুন দল ওমানের। দেশটি আগে ব্যাট করতে নেমে অলআউট হয়েছে ২৪ রানে।

ওমানের ওয়ানডে স্ট্যাটাস নেই, তাই এই ম্যাচটিও স্বীকৃতি পায় আন্তর্জাতিক একদিনের ম্যাচ(ওডিআই) হিসেবে। নইলে বিশ্বরেকর্ডই হয়ে যেত। বুধবারের ম্যাচটি তাই ‘লিস্ট এ’ ক্যাটাগরির ম্যাচ ছিল। লিস্ট এ ক্রিকেটের ইতিহাসে এটি চতুর্থ সর্বনিম্ন স্কোর। এক্ষেত্রে রেকর্ড ওয়েস্ট ইন্ডিজ অনূর্ধ-১৯ দলের। ২০০৭ সালে তারা বার্বাডোজের(সিনিয়র দল) বিপক্ষে অলআউট হয়েছিল মাত্র ১৮ রানে। প্রসঙ্গত একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সর্বনিম্ন স্কোর জিম্বাবুয়ের। ৩৫ রানে অলআউট হয়েছিল তারা শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে।

এদিন ব্যাটিংয়ে নেমে মনে হচ্ছিলো, ক্রিকেট জগতে নতুন কোন ইতিহাসে রচনা করতে নেমেছেন ওমানী ব্যাটসম্যানরা। দলের ১১ জন ব্যাটসম্যানের মধ্যে শূন্য রানে আউট হয়েছেন ছয় ব্যাটসম্যান। দুই অঙ্কের ঘরে পৌঁছাতে পেরেছন মাত্র একজন খেলোয়াড়। সর্বোচ্চ খাওয়ার আলী ৩৩ বলে এক বাউন্ডারির সাহায্যে ১৫ রান সংগ্রহ করেন।

স্কোর বোর্ডে ১৭ রান তুলতেই ৬ উইকেট হারায় ওমান। এরপর সপ্তম উইকেট জুটিতে তারা যায় ২৪ রান পর্যন্ত। আর সেই ২৪ রানেই পরপর শেষ হয় চারটি উইকেট। এক পর্যায়ে তাদের স্কোর ছিলো ৭ উইকেটে ২৪, আর সেই ২৪ রানেই অলআউট।

স্কটিশ অধিনায়কের আগে বোলিং করার সিদ্ধান্তের দাম খুব ভালোভাবেই দিয়েছেন তার বোলাররা। রুয়াধ্রি স্মিথ ও আদ্রিয়ান নেইল দুই জনের চারটি করে উইকেট এবং অ্যালাসডাইর ইভানসের দুই ইউকেট নেওয়ার মধ্য দিয়ে ১৭ ওভার ১ বলে ২৪ রানে গুটিয়ে যায় ওমান ব্যাটিং লাইন আপ।

স্বাগতিকদের দেওয়া ২৪ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৩ ওভার ২ বল খেলে কোন উইকেট না হারিয়ে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় স্কটল্যান্ড। ওপেনার ম্যাথু ক্রস ১১ বলে ১০ রান ও অধিনায়ক কোয়েটজার ৯ বলে দুই চারের সাহায্যে ১৬ রান করে অপরাজিত থেকে ম্যাচ শেষ করেন।


আরো সংবাদ