২৪ জানুয়ারি ২০১৯

স্টোনিসের সেই ২ ওভারেই হারলো ভারত

শেষ দুই ওভারে ২৯ রান তুলেন স্টোনিস - সংগৃহীত

সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে ৩৪ রানে হারলো ভারত। ইনিংসের ৪৮ ওভার পর্যন্ত প্রতিপক্ষের জন্য চ্যালেঞ্জিং স্কোর দাঁড় করাতে পারছিল না অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু শেষ দুই ওভারে মার্কাস স্টোনিসের ঝড়ো ব্যাটিং সে কাজটি করে দেয়। চার-ছক্কায় দুই ওভারে ২৯ রান তুলে ভারতের জন্য কিছুটা চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়ে। অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ গিয়ে দাঁড়ায় ৫ উইকেটে ২৮৮ রান। লক্ষ্যটা তাড়া করতে নেমে শুরুতেই নাস্তানাবুদ হয় ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা।

১ রানে ১ উইকেটে আর ৪ রানে জোড়া উইকেট হারিয়ে বিপর্যয়ের মুখে পড়ে ভারত। শূন্যতে ফিরে যান দুই ব্যাটসম্যান আর অধিনায়ক বিরাট কোহলি ফিরেন ৩ রানে। পরে এই বিপর্যয় থেকে দলকে টেনে তুলেন ওপেনার রোহিত শর্মা ও মহেন্দ্র সিং ধোনি। অর্ধশত করেন দু'জনেই।

কিন্তু দলীয় ১৪১ রানের মাথায় সাজঘরে ফিরেন ধোনি। আবারো বিপদে পড়ে ভারত। একপ্রান্ত রোহিত আগলে রাখেন। আর অপরপ্রান্তের ব্যাটসম্যানরা আসা-যাওয়ার মধ্যেই ছিলেন।

ধোনির পর যোগ্য সঙ্গী পাননি রোহিত। কিন্তু রানের চাকা সচল রেখেছেন। ফলাফল সেঞ্চুরি। ক্যারিয়ারের ২২তম সেঞ্চুরিটি তুলে নিয়েছেন তিনি। এরপর আরো কিছুটা পথ এগিয়ে ১৩৩ রানে সাজঘরে ফিরেন রোহিত। ১২৯ বলে ১০ বাউন্ডারি ও ৬টি ছক্কা হাঁকান তিনি।

রোহিতের বিদায়ের পরই ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় ভারত। ফলাফলটা তখনই প্রায় নিশ্চিত ছিল। এরপর কুলদ্বীপ যাদব ও মোহাম্মদ শামি জুটি বাধেন। দু'জনে মিলে ৪ রান করে বাড়ি ফিরেন। ফলাফল ৩৪ রানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে অস্ট্রেলিয়া। সর্বোচ্চ চারটি উইকেট শিকার করেছেন তরুণ রিচার্ডসন। এর পুরস্কার হিসেবে ম্যান অব দ্য ম্যাচ হয়েছেন  তিনি।

এর আগে সিরিজের প্রথম ওয়নডেতে সিডনিতে টস জিতে ব্যাট করতে নামে অস্ট্রেলিয়া। তৃতীয় ওভারেই ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ সাজঘরে ফিরেছেন। দলীয় ৪১ রানে কুলদ্বীপ যাদবের শিকার হয়ে ফিরেছেন আরেক ওপেনার অ্যালেক্স কেরি। এরপর উসমান খাজা আর শন মার্শ জুটি দলের হাল ধরে অনেকটা দুর এগিয়ে নিয়ে যায়। অর্ধশত করেন দু'জনেই। এ জুটির ভাঙন ধরান জাদেজা। খাজা সাজঘরে ফেরার পর মার্শের সাথে হ্যান্ডসকম্ব জুটি বাধেন। এ জুটি দলের সংগ্রহ বাড়ান। দলীয় ১৮৬ রানে সাজঘরে ফিরেন মার্শ।

এরপর হ্যান্ডসকম্ব মারমুখী ব্যাটিং করে দলের সংগ্রহ বাড়ান। কিন্তু ভুবনেশ্বর কুমারের বলে ৭৩ রানে মাঠ ছাড়েন তিনি। বাকি কাজটা সুচারুরূপে সম্পন্ন করেছেন স্টোনিস।

৪৮ ওভার পর্যন্ত দলের সংগ্রহটা চ্যালেঞ্জিং ছিল না। কিন্তু শেষ দুই ওভারে স্টোনিসের ঝড়ো ব্যাটিং অস্ট্রেলিয়ার স্কোরটা কিছুটা চ্যালেঞ্জিং করে দেয়। চার-ছক্কায় দুই ওভারে ২৯ রান তুলেছেন স্টোনিস। ফলে অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ গিয়ে দাঁড়িয়েছে ৫ উইকেটে ২৮৮ রান। আর স্টোনিসের সংগ্রহ ছিল ৪৩ বলে ৪৭ রান।


আরো সংবাদ