১৯ মার্চ ২০১৯

ভারতীয় ব্যাটসম্যানকে সাজঘরে ফিরিয়ে নারসের উদযাপন এখন ভাইরাল

নারসের উদযাপন - সংগৃহীত

ভাইজাগে ম্যাচ টাই হওয়ার পর শনিবার পুণেতে জয় ছিনিয়ে নিয়েছে ক্যারিবিয়ানরা। টেস্ট সিরিজে ২-০ তে হারের পর তৃতীয় একদিনের ম্যাচে ভারত সফরে প্রথম জয়ের মুখ দেখেছে উইন্ডিজরা। পাঁচ ম্যাচের একদিনের সিরিজে সমতায় ফিরেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তৃতীয় একদিনের ম্যাচ ব্যাটে-বলে দুরন্ত পারফরম্যান্স করে ম্যাচের সেরা হয়েছেন অ্যাশলে নারস। তার নাচ এবার ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়।

পুণেতে তৃতীয় একদিনের ম্যাচে ২২ বলে ৪০ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলার পাশাপাশি দুটি উইকেট নিয়েছেন নারস। কিন্তু শিখর ধাওয়ানকে আউট করার পরেই নারসের উদযাপন নিয়ে সোশাল মিডিয়াতে ঝড় উঠেছে। কিন্তু কেন এমন উদযাপন?

নারস জানিয়েছেন, ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে নারসের সাথে পরিচয় হয় ভারতীয় সানি সোহালের। সেই বন্ধু সানির কাছেই 'বাবাজি কি ঠুল্লু' নাচ শিখেছেন তিনি। ম্যাচ শেষে বলেন, "আমার সেলিব্রেশন উৎসর্গ করছি ভারতীয় বন্ধু সানি সোহালকে। ওই বলেছিল, উইকেট পেলে বাবাজি কা ঠুল্লুর মতো করতে।"

শুধুমাত্র তৃতীয় একদিনের ম্যাচেই নয় দ্বিতীয় একদিনের ম্যাচে আম্বাতি রায়াডুকে আউট করেও 'বাবাজি কি ঠুল্লু' নাচের সেলিব্রেশনে মেতে উঠেছিলেন নারস।

প্রসঙ্গত, ভারতীয় সিনেমায় 'বাবাজি কি ঠুল্লু' নাচের জনক বলিউডের প্রয়াত অভিনেতা রাজকুমার। পরবর্তীকালে অনেক বলিউড তারকাকে এই নাচের ভঙ্গি করতে দেখা গেছে। সম্প্রতি দেশটির জনপ্রিয় টিভি শো কপিল শর্মার 'কমেডি নাইটস উইথ কপিল' শোতে 'বাবাজি কি ঠুল্লু' নাচ দেখা যায়।

 

স্নায়ুচাপের ফাঁদে ভারত

অবশেষে সাফল্যের উচ্ছ্বাস ক্যারিবীয় ড্রেসিংরুমে। টেস্ট ফরম্যাটে বিধ্বস্ত দলটি ওয়ানডেতে আত্মবিশ্বাসী সূচনার পুরস্কারও বুঝে পেল তৃতীয় ম্যাচে। টানা দুই খেলায় ৩০০ প্লাস সংগ্রহে উজ্জীবিত উইন্ডিজের লড়াকু নৈপুণ্য নিশ্চিত করেছে পাঁচ ম্যাচের ট্রফির রেসে টানটান উত্তেজনার প্রত্যাবর্তন। তিন খেলা শেষে সিরিজে সমতা ১-১ ব্যবধানে। শনিবার পুনেতে বিরাট কোহলির অনবদ্য ব্যাটিং পারফরম্যান্স সত্ত্বেও সফরে প্রথম জয়োৎসব তুঙ্গে তুলে দিয়েছে ক্যারিবীয়দের আত্মবিশ্বাসও। দলটির ক্রিকেটারদের নজর এখন ট্রফি উৎসবে।

মানসিকভাবে ফুরফুরে মেজাজেই আজ মুম্বাইয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ চতুর্থ ওয়ানডেতে মুখোমুখি হচ্ছে স্বাগতিক ভারতের। দল দুটির মধ্যকার সিরিজের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বেলা ২টায়।

দ্বিতীয় ম্যাচের টাইয়ের দুঃস্বপ্ন পেছনে ফেলে পুনেতে ক্যারিবীয়দের ৩০০-এর আগে গুটিয়ে দেয় ভারতীয় বোলিং অ্যাটাক। চেজের সূচনা প্রত্যাশিত না হলেও কোহলির অতি-মানবীয় ফর্মে খেলার নিয়ন্ত্রণ দখলে নিতে বেশিক্ষণ লাগেনি স্বাগতিকদের। কিন্তু মিডলঅর্ডারে আচমকা ধস শেষ পর্যন্ত ‘এক্স ফ্যাক্টর’ ভূমিকা রেখেছে কোহলির দুঃস্বপ্নের সমাপ্তিতে। তার ক্যারিয়ারের উল্লেখযোগ্য একটি রেকর্ডের উৎসব ভেস্তে গেছে সতীর্থদের ব্যর্থতার মিছিলে।

ইতিহাসের প্রথম ভারতীয় ক্রিকেটার হিসেবে কোহলির ওয়ানডেতে টানা তিন শতকের কৃতিত্ব রচনার ম্যাচে জয়োৎসব উইন্ডিজের। সিরিজে তাদের নাটকীয় প্রত্যাবর্তনে অবশিষ্ট দুই খেলায় বাড়তি স্নায়ুচাপে স্বাগতিকেরা। ২৮৪ রানের টার্গেটে অধিনায়কের সেঞ্চুরি ২-১ ব্যবধানে লিডের রেসে এগিয়ে দেয় ভারতীয়দের। কিন্তু চরম ব্যর্থতার পরিচয় দেন দলটির মিডল অর্ডারের ব্যাটসম্যানেরা। তাদের ভরাডুবির মঞ্চের দর্শক কোহলির এক প্রান্ত আগলে রেখে দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ের কৃতিত্বও বিফলে গেছে। ৭২ রানে ৬ উইকেট পতনে সফরকারীদের বিপক্ষে চলমান দ্বিপক্ষীয় সিরিজে প্রথম পরাজয়ের ফাঁদে ভারত। কোহলির ক্যারিয়ারের স্মরণীয় অর্জনের ম্যাচে স্বাগতিকদের ৪৩ রানে হারিয়ে সফরের প্রথম জয়ের উল্লাসে উইন্ডিজ।

দলটির সমন্বিত বোলিং তাণ্ডবে ১৪ বল অবশিষ্ট থাকতেই ২৪০ রানে অলআউট ভারত। ব্যক্তিগত ১০৭ রানে কোহলির উইকেট শিকারি পার্টটাইমার মারলন স্যামুয়েলস গুটিয়ে দেন স্বাগতিক লোঅর্ডার। ১২ রানে নেন ৩ উইকেট। সিরিজের টানা তৃতীয় সেঞ্চুরির ১১৯ বলের ইনিংসে একটি ছক্কা ও ১০টি বাউন্ডারি হাঁকান কোহলি। পুনেতে তার কারিশম্যাটিক ব্যাটিং নৈপুণ্যের পরও ওয়েস্ট ইন্ডিজের জয়ে বাড়তি চাপের মধ্যে পড়ে গেছে ভারত। ট্রফি নিশ্চিত করতে অবশিষ্ট দুই ম্যাচেই জিততে হবে তাদের।


আরো সংবাদ




iptv al Epoksi boya epoksi zemin kaplama Daftar Situs Agen Judi Bola Net Online Terpercaya Resmi

Hacklink

instagram takipçi satın al ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme

instagram takipçi satın al