২১ নভেম্বর ২০১৮

এশিয়া কাপ : যে কারণে স্পটলাইটে সাকিব-রশিদসহ ৫ জন

এশিয়া কাপ : যে কারণে স্পটলাইটে সাকিব-রশিদসহ ৫ জন - ছবি : সংগৃহীত

আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর সংযুক্ত আরব আমিরাতে শুরু হচ্ছে এশিয়া কাপ ক্রিকেটের ১৪তম আসর। আসন্ন আসরে ব্যাটসম্যান-বোলারাদের চোখ ধাধাঁনো পারফরমেন্স দেখার জন্য উন্মুখ হয়ে আছে ক্রিকেটপ্রেমিরা। তাই ১৪তম আসরে স্পট লাইট থাকছে অনেক খেলোয়াড়ের ওপরই। এর মধ্যে যেই সেরা পাঁচজন খেলোয়াড়ের ওপর স্পট লাইট থাকছে তারা হলেন- বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান, ভারতের অধিনায়ক রোহিত শর্মা, পাকিস্তানের ফখর জামান-শোয়েব মালিক এবং আফগানিস্তানের রশিদ খান।

সাকিব আল হাসান : বাংলাদেশ ক্রিকেটের প্রাণ অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। তিন ফরম্যাটেই ব্যাট-বল হাতে বাংলাদেশকে সেরা পারফরমেন্স উপহার দেন তিনি। ১৮৮ ওয়ানডেতে ৭টি সেঞ্চুরি ও ৩৯টি হাফ-সেঞ্চুরিতে ৫,৪৩৩ রান করেছেন সাকিব। বল হাতে ২৩৭ উইকেট রয়েছে সাকিবের। তাই সাকিবের অভিজ্ঞতা এশিয়া কাপে কাজে দেবে এটি বলার অপেক্ষা রাখে না। বাংলাদেশের সাফল্য অনেকাংশেই নির্ভর করছে সাকিবের পারফরমেন্সের ওপর।

রোহিত শর্মা : ওয়ানডে ক্রিকেটে তিনবার ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন রোহিত। ২০৯, ২৬৪ ও অপরাজিত ২০৮। পাশাপাশি ওয়ানডেতে এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রানের মালিকও রোহিত। ২০১৪ সালে ইডেন গার্ডেন্সে শ্রীলংকার বিপক্ষে ২৬৪ রানের মহাকাব্যিক ইনিংস খেলেছিলেন। আসন্ন আসরে ভারতের অধিনায়ক রোহিত। নিয়মিত অধিনায়ক বিরাট কোহলি বিশ্রামে থাকায় ভারতীয় দলের নেতৃত্ব দেবেন তিনি। তাই আসন্ন এশিয়া কাপে রোহিতের পারফরমেন্স ও অধিনায়কত্বের দিকে চোখ থাকবে ক্রিকেটপ্রেমিদের। অবশ্য ইতোমধ্যে অধিনায়ক হিসেবেও নিজেকে প্রমাণ করেছেন রোহিত। শ্রীলংকার মাটিতে নিদাহাদ টি-২০ ট্রফিতে রোহিতের নেতৃত্বে শিরোপা জিতেছে ভারত।

ফখর জামান : ওপেনিং-এ পাকিস্তানের নির্ভারতা নাম ফখর জামান। ১৮ ওয়ানডেতে অংশ নিয়ে ইতোমধ্যে নিজের জাত চিনিয়েছেন এই বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান। ৩টি সেঞ্চুরি ও ৬টি হাফ-সেঞ্চুরিতে ১,০৬৭ রান করেছেন ফখর। সম্প্রতি ওয়ানডেতে ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সবচেয়ে ধারাবাহিক ফখর। গেলো আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে ভারতের বিপক্ষে দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে দলকে শিরোপার স্বাদ দিয়েছেন জামান।

শোয়েব মালিক : এশিয়া কাপে পাকিস্তান দলের মধ্যে সবচেয়ে অভিজ্ঞ খেলোয়াড় শোয়েব মালিক। এটিই হতে যাচ্ছে মালিকের শেষ এশিয়া কাপ। পাকিস্তানের হয়ে ২৬৬ ওয়ানডেতে ৭১০৫ রান করেছেন মালিক। গড় ৩৬ দশমিক ০৮। শুধুমাত্র ব্যাট হাতেই নয়, বল হাতেও নিজের সেরাটা দিতে পারেন মালিক। দলের প্রয়োজনে ব্রেক-থ্রু এনে দেন মালিক। তাই তার ভান্ডারে রয়েছে ১৫৬ উইকেট। কঠিন সময়ে দলের হার ধরার সামর্থ্য রয়েছে মালিকের। সেই প্রমাণ তিনি বহুবার দিয়েছেন। তাই এশিয়া কাপে মালিকের ওপরও থাকছে স্পটলাইট।

রশিদ খান : আফগানিস্তান দলের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় লেগ-স্পিনার রশিদ খান। প্রতিপক্ষ ব্যাটসম্যানদের কাছে আতংকের নাম রশিদ। টি-২০ ফরম্যাটের মতো সীমিত ওভারেও সেরা বোলার হলেন তিনি। ৪৬ ওয়ানডেতে ১০৮ উইকেট রয়েছে রশিদের। নিজের প্রথম এশিয়া কাপকে স্মরণীয় করে রাখার জন্য উদগ্রীব হয়ে আছেন তিনি। বাংলাদেশ-ভারত-পাকিস্তান ও শ্রীলংকার সাথে এশিয়ার মধ্যে সেরা হতে রশিদের পারফরমেন্স দিকে তাকিয়েই থাকতে হবে আফগানিস্তানকে।


আরো সংবাদ