১৯ নভেম্বর ২০১৮

ভিসা জটিলতায় তামিম

তামিম ইকবাল - সংগৃহীত

গত দুইদিন ধরে দুবাইয়ে অনুশীলনে ব্যস্ত বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। অথচ ওইদলে যোগ দেয়ার জন্য এখনো ভিসাই পাননি ওপেনার তামিম ইকবাল। মঙ্গলবার বেলা একটার দিকে রুবেল হোসেনকে হাসিমুখে বিসিবি কার্যালয় থেকে বেরিয়ে যেতে দেখা গেল। তার ভিসা জটিলতা কেটেছে, মঙ্গলবার সন্ধ্যার ফ্লাইটে রওনা দিচ্ছেন বাংলাদেশ দলের পেসার। সংযুক্ত আরব আমিরাতের ভিসা পাওয়ায় রুবেলের মুখে হাসি ফুটলেও অস্বস্তিতে আছেন তামিম ইকবাল। বাঁহাতি ওপেনার ভিসা এখনো পাননি।

জাতীয় দলের ক্রিকেটার, এশিয়া কাপে বাংলাদেশ দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য তামিমের ভিসাসংক্রান্ত জটিলতার সমাধান হয়তো আজকালের মধ্যে হয়ে যাবে। কিন্তু বাঁহাতি ওপেনারের দুশ্চিন্তা অন্য জায়গায়। দুবাই পৌঁছে দল এরই মধ্যে দুদিন অনুশীলন করে ফেলেছে। অথচ তামিম এখন আরব আমিরাতে রওনাই দিতে পারলেন না। কদিন আগে বাঁহাতি ওপেনার অনুশীলন করতে গিয়ে পেয়েছেন আঙুলে চোট। চোট কাটিয়ে ব্যাটিং অনুশীলনে কতটা স্বচ্ছন্দ হতে পেরেছেন, সেটি ভালোভাবে বুঝতে পারতেন দলের অনুশীলনে যোগ দিতে পারলে। দুবাইয়ের কন্ডিশনে মানিয়ে নেওয়ার ব্যাপার তো আছেই।

বসে না থেকে তামিম অবশ্য ব্যক্তিগত উদ্যোগে ব্যাটিং অনুশীলন শুরু করে দিয়েছেন। মঙ্গলবার দুপুরে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে আড্ডার ফাঁকে জানালেন,  মঙ্গলবার রাতের মধ্যে যদি ভিসা পান, তবে চেষ্টা করবেন কাল সকালেই রওনা দিতে। আর যদি বুধবার সকালে পান, তবে রওনা দেবেন রাতে। কিন্তু বুধবারও যদি ভিসা না পান? তামিমের কপালে দুশ্চিন্তার ভাঁজ যেন বাড়ল!

কাল-পরশুর মধ্যে ভিসার সমাধান না হলে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এশিয়া কাপের উদ্বোধনী ম্যাচ খেলা নিয়ে সংশয় জাগবে। শেষ পর্যন্ত খেলতে যদি পারেনও, পুরোপুরি প্রস্তুত না হয়েই খেলতে হবে তাকে। তামিম অবশ্য বুঝে উঠতে পারছেন না তাঁর ভিসা নিয়ে কেন জটিলতা তৈরি হয়েছে। এ বছরের শুরুতে পাকিস্তান সুপার লিগ (পিএসএল) খেলতে দুবাই গিয়েছিলেন। তখনো তামিমকে একই সমস্যায় পড়তে হয়।

ভিসা-সংক্রান্ত জটিলতা শুধু তামিমের একার নয়, দলের ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ ও বিসিবির প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীনও একই সমস্যায় পড়েছেন। তাদেরও দুবাই যাত্রা আটকে আছে ভিসা না পাওয়ায়।

১৫ সেপ্টেম্বর এশিয়া কাপের উদ্বোধনী দিনেই বাংলাদেশের ম্যাচ আছে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। কাল ভিসা না পেলে তামিমের জন্য প্রথম ম্যাচ খেলা কঠিন হয়ে যাবে। অন্তত ম্যাচের আগের দিন অনুশীলনে বিঘ্ন তো ঘটবেই।

আরো পড়ুন : আফগান প্রিমিয়ার লিগ : তামিম মুশফিক একই দলে
নয়া দিগন্ত অনলাইন ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৬:০১

একঝাঁক তারকা ক্রিকেটার নিয়ে প্রথম আসরেই চমক দেখাতে আসছে আফগানিস্তান প্রিমিয়ার লিগ। ক্রিস গেইল, শহীদ আফ্রিদি, আন্দ্রে 
রাসেল, বেন্ডন ম্যাককালামের মতো তারকারা ইতোমধ্যেই নাম লিখিয়েছেন এই টুর্নামেন্টের খেলোয়াড় তালিকায়।

আগামী মাসে সংযুক্ত আরব আমিরাতে বসবে এই টুর্নামেন্টের আসর। ৫ থেকে ২১ অক্টোবর পর্যন্ত মরুর বুকে লড়াই হবে ব্যাটে বলে। টুর্নামেন্টে পাঁচটি দলের আইকন খেলোয়াড় হিসেবে থাকবেন গেইল, আফ্রিদি, আন্দ্রে রাসেল, ম্যাককালাম ও আফগান তারকা রশিদ খান। মোট পাঁচটি ফ্রাঞ্চাইচি দল অংশ নেবে টুর্নামেন্টে। আফগানিস্তানের পাঁচটি অঞ্চল পাকতিয়া, কাবুল, বালখ, নানগারহার ও কান্দাহারের নামে গঠন করা হয়েছে দলগুলো।

সোমবার রাতে দুবাইয়ে এই টুর্নামেন্টের খেলোয়াড় নিলাম অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৭ থেকে ২০ জন করে খেলোয়াড় কিনেছে প্রতিটি দল। নিম্নে দলগুলোর উল্লেখযোগ্য খেলোয়াড়দের তালিকা দেয়া হলো :

পাকতিয়া স্কোয়াড : শহীদ আফ্রিদি(আইকন), থিসারা পেরেরা, ক্যামেরন ডেলপোর্ট, ক্রিস জর্ডান, ফাহিম আশরাফ, লুক রাইট, মোহাম্মাদ শাহজাদ, শরফুদ্দিন আশরাফ, সামিউল্লাহ শেরওয়ান।

কাবুল স্কোয়াড : রাশিদ খান(আইকন) লুক রঞ্চি, কলিন ইনগ্রাম, সোহেল তানভীর, লরি ইভান্স, ওয়েন পারনেল

বালখ স্কোয়াড : ক্রিস গেইল(আইকন), কলিন মুনরো, মোহাম্মাদ নবী, রবি বোপারা, মোহাম্মাদ ইরফান, কামরান আকমল, রায়ান টেন ডাসকাট, মোহাম্মাদ নওয়াজ।

নানগারহার স্কোয়াড : আন্দ্রে রাসেল(আইকন) তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহীম, বেন কাটিং, মুজিব জাদরান, মিচেল ম্যাকক্লেনাঘান, মোহম্মাদ হাফিজ, স্বন্দীপ লামিচান

কান্দাহার স্কোয়াড : ব্রেন্ডন ম্যাকাকালাম(আইকন), ওয়াহব রিয়াজ, পল স্টারলিং, নাজিবুল্লাহ জাদরান, তায়মাল মিলস, স্যাম বিলিংস।

আরো পড়ুন: ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে যাচ্ছেন জিদান!

ফের কোচ হিসেবে কাজ করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন সাবেক রিয়াল মাদ্রিদ কোচ জিনেদিন জিদান। অচিরেই তিনি কোচের নতুন দায়িত্ব পাওয়ার আশা করছেন।

টানা তৃতীয় বারের মত চ্যাম্পিয়ন্স লীগের শিরোপা পাইয়ে দিয়ে গত মৌসুম শেষে আকস্মিকভাবে রিয়াল মাদ্রিদের কোচের দায়িত্ব ছেড়ে দেন জিদান। ফ্রান্সের এই সাবেক ফুটবল তারকা মনে করেন ‘জয়ের ধারাবাহিকতা’ অক্ষুন্ন রাখতে পরিবর্তনের প্রয়োজন। যদিও লা লীগায় হতাশাজনক পারফম্যান্সের পর চ্যাম্পিয়ন্স লীগের শিরোপা জয় করে নিজের অবস্থানকে সুমন্নত করেছেন জিদান।


এদিকে হোসে মরিনহোর অবস্থান ক্রমেই নরবড়ে হয়ে উঠেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে। যে কারণে ওল্ড ট্রাফোর্ডে তার ভবিষ্যৎ অনেকটাই অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। ক্লাবটিতে যোগ দেয়ার বিষয়ে জিদানের সঙ্গে যোগাযোগ হতে পারে।

স্প্যানিশ সম্প্রচার কেন্দ্র আরটিভিইকে জিদান রোববার বলেন, ‘এটি নিশ্চিত অচিরেই আমি কোচিংয়ে ফিরছি।’ ২০১৬ সালের জানুয়ারিতে রাফায়েল বেনিতেজ বরখাস্ত হবার পর রিয়াল মাদ্রিদের প্রধান কোচের দায়িত্ব লাভ করেন জিদান। এর আগে ওই ক্লাবেরই ‘বি’ দলের দায়িত্ব নিয়ে কোচিং ক্যারিয়ার শুরু করেন এই ফরাসি তারকা।

ওই বছরই তিনি রিয়ালকে পাইয়ে দেন ঘরোয়া লীগের শিরোপা। তবে গত মৌসুমে তিনি লা লীগার শিরোপা এনে দিতে ব্যর্থ হয়েছেন। ওই মৌসুমটি তৃতীয় স্থান নিয়ে শেষ করে লাব্লাংকোসরা। শিরোপাধারী বার্সেলোনার সঙ্গে ব্যবধান ছিল ১৭ পয়েন্টের।

 


আরো সংবাদ