২১ নভেম্বর ২০১৮

কোহলিকে টপকে গেলেন হাসান আলি

হাসান আলি - সংগৃহীত

এশিয়া কাপের দল আগেই ঘোষণা করেছে ভারত। এবার আরব আমিরাতে আয়োজিত এই টুর্নামেন্টের জন্য দল ঘোষণা করেছে পাকিস্তান। সেখানে অপ্রত্যাশিতভাবে বাদ পড়েছেন মোহাম্মদ হাফিজের মতো অভিজ্ঞ ক্রিকেটার। ইয়ো-ইয়ো টেস্টে ফেল করে দল থেকে বাদ পড়েছেন তরুণ অলরাউন্ডার ইমাদ ওয়াসিমও। ফিটনেস পরীক্ষায় সর্বাধিক নম্বর পেয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন পাকিস্তানের স্পিডস্টার হাসান আলি (২০)। যে কিনা বিরাটের বেঞ্চমার্ককেও (১৯) টপকে গেছেন। পাক-ভারত ক্রিকেটারদের মধ্যে তিনিই এখন ফিটেস্ট ক্রিকেটার।

ইয়ো-ইয়ো টেস্টে অবাক করা পারফরম্যান্স দিয়ে সবার চোখ কপালে তুলে দিয়েছেন সরফরাজ আহমেদ এবং শোয়েব মালিকও। ৩১ বছরের পাক তারকা সরফরাজ ফিটনেস্ট পরীক্ষায় বিরাটের থেকে কেবল আট পয়েন্ট পিছিয়ে।

অবিশ্বাস্য মনে হলেও, এটাই সত্যি। পাকিস্তানের ফিটেস্ট ক্রিকেটারদের মধ্যে সামনের সারিতেই আছেন ৩৬ বছরের শোয়েব মালিকও। ইয়ো-ইয়ো টেস্টে তার অর্জিত পয়েন্ট ১৭.২।

ইয়ো-ইয়ো টেস্টের রিপোর্ট অনুযায়ী, ভারতের সবচেয়ে ফিট ক্রিকেটার ভারতীয়-এ দলের অধিনায়ক মনীষ পান্ডে (১৯.২)। তারপরেই আছেন বিরাট কোহলি।

উল্লেখ্য, চলতি মাসের ১৯ তারিখ এশিয়া কাপে মুখোমুখি হবে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বি ভারত-পাকিস্তান। বিরাটরা পাকিস্তানের বিরুদ্ধে শেষ একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছিলেন ২০১৭ সালের ১৮ জুন। সেটা ছিল আইসিসি চ্যাম্পিয়নস ট্রফির ফাইনাল। ইংল্যান্ডে দেখা হওয়ার বছর খানেক পর আবার সাক্ষাৎ হতে চলেছে এই দুই প্রতিপক্ষের।

 

আরো পড়ুন : সেই ঘটনা নিয়ে এখন মুখ খুললেন কোহলি

২০১২ সালে অস্ট্রেলিয়া সফরে মেজাজ হারিয়ে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। ওই সফরে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সিডনি টেস্টে দর্শকদের দিকে বাজে 'অঙ্গভঙ্গি' করেন তিনি। সেই ঘটনা নিয়ে এই প্রথম মুখ খুললেন কোহলি।

ঘটনাটি ২০১২ সালে অস্ট্রেলিয়া সফরের। সিডনিতে দ্বিতীয় টেস্টে বাউন্ডারি লাইনের ধারে ফিল্ডিং করছিলেন বিরাট কোহলি। তখন বেশ কিছু অস্ট্রেলিয়ান সমর্থক বিরাটকে উদ্দেশ্যে করে কিছু কথা বলেছিলেন। যা বিরাট সহ্য করতে পারেননি। মাথা গরম হয়ে যায় তার। দর্শকদের দিকে খারাপ অঙ্গভঙ্গি করেছিলেন। গোটা ঘটনাটি ভিডিও ক্যামেরায় ধরাও পড়ে। সেই টেস্টের ম্যাচ রেফারি রঞ্জন মধুগালে পরদিন বিরাটকে ডেকেও পাঠিয়েছিলেন।

উইজডনের এক সাক্ষাৎকারে কোহলি বলেন, "‌২০১২ সালে সিডনি টেস্টে অস্ট্রেলিয়ান দর্শকদের 'মধ্যমা' দেখিয়েছিলাম। পর দিন ম্যাচ রেফারি রঞ্জন মধুগালে আমাকে নিজের ঘরে ডেকে পাঠান। তিনি আমাকে বলেন, বাউন্ডারি লাইনের ধারে কী হয়েছিল?‌ আমি বলেছিলাম, তেমন কিছুই না। এরপরেই তিনি খবরের কাগজটা আমাকে খুলে দেখান, যেখানে প্রথম পাতায় ছিল আমার ছবিটা। আমি এরপর ওনাকে বলেছিলাম সত্যি আমি দুঃখিত। আমাকে নিষিদ্ধ করবেন না প্লিজ। সত্যি বলতে রঞ্জন মধুগালে খুব ভালো মানুষ ছিলেন। আমায় শাস্তি দেননি। কারণ উনি বুঝেছিলেন আমার বয়স তখন কম। কম বয়সে এমন ভুল মানুষ করে ফেলে।"

প্রসঙ্গত, সেই ঘটনার জন্য কোহলিকে শুধু ম্যাচ পারিশ্রমিকের ৫০ শতাংশ কেটে নিয়েই ছেড়ে দেয়া হয়েছিল।

 

আরো পড়ুন : পদত্যাগ করলেন শোয়েব আখতার

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা পদ থেকে সরে দাড়ালেন স্পিডস্টার শোয়েব আখতার। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে টুইটারে এই কথা জানিয়েছেন তিনি।

তিনি জানান, 'আমি পিসিবি চেয়ারম্যানের উপদেষ্টার পদ থেকে এই মুহূর্তে সরে দাড়ালাম।'

শোয়েব আখতারকে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে সাবেক পিসিবি চেয়ারম্যান নাজাম শেঠির উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়। গত ২০ আগস্ট পদত্যাগ করেন নাজাম শেঠি। মঙ্গলবার এহসান মানি নতুন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তিনি নির্বাচিত হওয়ার দুই দিন পরই পদত্যাগ করলেন শোয়েব আখতার।

দেখুন:

আরো সংবাদ