১৯ ডিসেম্বর ২০১৮

ভারতকে হারিয়ে সিরিজে প্রত্যাবর্তন ইংল্যান্ডের

ভারতকে হারিয়ে সিরিজে প্রত্যাবর্তন ইংল্যান্ডের - ছবি : সংগৃহীত

ভারতকে পাঁচ উইকেটে হারিয়ে টি-টোয়েন্টি সিরিজে কামব্যাক করল ইংল্যান্ড৷ ১৪৯ রান তাড়া করতে নেমে ২ বল বাকি থাকতে ম্যাচ জিতল মর্গ্যান অ্যান্ড কোম্পানি৷ তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের ফল এখন ১-১৷ রোববার ৮ জুলাই সিরিজের ফাইনাল ম্যাচ খেলা হবে নটিংহ্যামে৷

টস জিতে শুক্রবার শুরুতে বোলিং নেয় ইংল্যান্ড৷ ধোনি-কোহলিদের বিরুদ্ধে শুরুতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত যে ভুল ছিল না প্লাওয়ার প্লে’তে প্রমাণ করে দেন ব্রিটিশ পেসাররা৷ ভারতীয় ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই জ্যাক বলের বলে বাটলারের হাতে ক্যাচ দিয়ে ৫ রানে ডাগআউটে ফেরেন রোহিত৷

অন্য ওপেনার ধাওয়ানের সংগ্রহ ১০৷ পঞ্চম ওভারের মধ্যেই ফিরে যান লোকেশ রাহুলও৷ গত ম্যাচের সেঞ্চুরিয়নের এদিন সংগ্রহ মাত্র ৬ রান৷ ২২/৩ থেকে রায়ানের ২৭ ও কোহলির ৪৭ রানের ইনিংসে ভর করে ১৪৮ রানের সন্মানজনক স্কোর করে ‘মেন ইন ব্লু’৷ ফিনিশার হিসেবে ২৪ বলে ধোনি করেন ৩২ রান৷ ১০ বলে ১২ রান করে স্কোরবোর্ড সচল রাখেন হার্দিক৷ ইংল্যান্ডের হয়ে টি-টোয়েন্টিতে অভিষেক করে দুই উইকেট তুলে নেন জ্যাক বল৷ ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক ধোনি এদিন ৫০০ তম আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলে ফেললেন৷ সচিন-দ্রাবিড়ের পর তৃতীয় ভারতীয় হিসেবে দেশের হয়ে ৫০০টি ম্যাচ খেলার নজির গড়লেন মাহি৷

ধোনির কেরিয়ারের স্মরণীয় ম্যাচে অবশ্য জয় উপহার দিতে পারল না ‘মেন ইন ব্লু৷’ জেসন রসকে ১৫ ও জোস বাটলারকে ১৪ রান ডাগআউটে ফিরিয়ে শুরুটা ভালোই করেছিল ভারত৷ এরপর ইংল্যান্ডের ইনিংসে হাল ধরেন অ্যালেক্স হেলস৷ ডান হাতি হেলসের দাপুটে ব্যাটিংয়ের সামনে উমেশ-হার্দিকরা রান খরচ করে বসে৷ ১৪৯ রান তাড়া করতে নেমে হেলসের ৪১ বলে ৫৮ রানের ইনিংসের সুবাদে পাঁচ উইকেট সহজ জয় পায় ইংল্যান্ড৷ হেলসের ইনিংস সাজানো ছিল ৪টি চার ও ৩টি ছয় দিয়ে৷

আরো পড়ুন :
ক্রিকেটের স্পিরিট মানছে না ভারত
প্রথম ম্যাচে হারের পরও ইংল্যান্ড ড্রেসিংরুমে দেখা গিয়েছিল রীতিমতো উচ্ছ্বাসের ছবি। পার্টি-মুডে রাতভর উতসবও করতে দেখা গিয়েছিল ইংরেজ ক্রিকেটারদের। আসলে ক্রিকেট সিরিজের মাঝেও ইংল্যান্ড ড্রেসিংরুমে বিশ্বকাপের হ্যাংওভার। ইংল্যান্ড কলম্বিয়া ম্যাচের পর তাই সেলিব্রেশনে মেতেছিলেন ইংল্যান্ড ক্রিকেটাররা। নিজেদের হারের দুঃখ ভুলতে ফুটবল দলের জয়কেই হাতিয়ার করেছিলেন ইয়ন মর্গ্যান, জো রুটরা। আরেক ইংল্যান্ড ক্রিকেটার অবশ্য হারের জ্বালা জুড়োতে অন্য পন্থা নিয়েছেন।

মাঠে হারাতে না পেরে ডেভিড উইলি অভিযোগ করছেন প্রথম ম্যাচে নাকি ক্রিকেটের স্পিরিট মেনে খেলেনি ভারত। আসলে, ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে দেখা গিয়েছিল একাধিকবার রান-আপ নিয়েও বল ডেলিভারি করেননি কুলদীপ যাদব, ভুবনেশ্বর কুমাররা। ওই প্রসঙ্গে তুলে ধরেই এদিন ভারতকে একহাত নেন উইলি। তিনি বলেন, “আমার মনে হয় এটা খেলার অংশ নয়, ভারতের বোলাররা খেলার স্পিরিট মানেনি।”


আরো সংবাদ