১৭ আগস্ট ২০১৮

নেতানিয়াহু বর্তমান যুগের শিমার : খামেনি

নেতানিয়াহু বর্তমান যুগের শিমার : খামেনি - ছবি : সংগৃহীত

ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুকে বর্তমান যুগের শিমার হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলি খামেনি। রোববার সন্ধ্যায় দেশের প্রখ্যাত গবেষক ও অধ্যাপকদের সঙ্গে এক বৈঠকে তিনি এ কথা বলেন।

খামেনি আরো বলেন, নেতানিয়াহু সম্প্রতি ইউরোপ সফরে গিয়ে নিজেদেরকে মজলুম হিসেবে তুলে ধরে দাবি করেছেন ইরান লাখ লাখ ইহুদিকে ধ্বংস করতে চায়। কিন্তু ইরান যে সমাধানের পন্থা বাতলে দিয়েছে তা হলো সম্পূর্ণ যৌক্তিক এবং গণতান্ত্রিক নীতিমালার সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ।

ইউরোপীয় সরকারগুলোর সমালোচনা করে খামেনি বলেন, ইউরোপীয়রা নেতানিয়াহুর অভিযোগ শুনেছে আর মাথা নেড়েছে। কিন্তু তারা একবারও বলেনি, তোমরাই (নেতানিয়াহু) তো গাজা ও বায়তুল মুকাদ্দাসে অপরাধ করে যাচ্ছ।

ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা বলেন, প্রকৃত ফিলিস্তিনিদের অংশগ্রহণে গণভোট আয়োজনই হচ্ছে ফিলিস্তিন সমস্যার যৌক্তিক সমাধান। তিনি বলেন, ফিলিস্তিনের ভবিষ্যৎ নির্ধারণে বিশ্বের সবার কাছে গ্রহণযোগ্য পন্থা অর্থ্যাৎ জনগণের মতামতকে প্রাধান্য দিতে হবে। অন্তত ৮০ বছর ফিলিস্তিন ভূখণ্ডে বংশ পরম্পরায় যারা বসবাস করেছে তাদের অংশগ্রহণে গণভোটের আয়োজন করতে হবে। ফিলিস্তিনের ভেতরে ও বাইরে থাকা মুসলমান, ইহুদি ও খ্রিস্টানসহ সব প্রকৃত ফিলিস্তিনি এ গণভোটে তাদের মতামত দেবে। খামেনি বলেন, ফিলিস্তিনের সব প্রকৃত নাগরিকের অংশগ্রহণে গণভোট আয়োজনের প্রস্তাব ইরানের উদ্যোগে জাতিসংঘে উত্থাপন ও তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। তিনি প্রশ্ন করে বলেন, এটা কি আন্তর্জাতিক আইনের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ নয়। তাহলে কেন ইউরোপীয়রা তা মানতে রাজি নয়?

ইরানের পারমাণবিক চুক্তির পক্ষে জোরালো সমর্থন শির
এএফপি

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং ইরানের পারমাণবিক চুক্তি আন্তরিকভাবে বাস্তবায়নের আহ্বান জানিয়েছেন। এ চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্র বের হয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেয়ার পর দেশটির প্রেসিডেন্টের সঙ্গে সাক্ষাৎকালে তিনি এ আহ্বান জানান। গতকাল সোমবার ইরানের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম এ কথা জানায়। 


চীনের পূর্বাঞ্চলীয় কিংদাও নগরীতে দুই দিনব্যাপী এক আঞ্চলিক নিরাপত্তা সম্মেলনের পর রোববার ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির সঙ্গে একান্ত সাক্ষাৎ করেন শি। এ সম্মেলনে রাশিয়াও অংশ নেয়। গত মাসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প পারমাণবিক চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রের বের হওয়ার ঘোষণা দিয়ে ইরানের বিরুদ্ধে আবার অবরোধ আরোপের কথা বলেন। ২০১৫ সালে চুক্তিটি স্বাক্ষরিত হয়। তবে এ চুক্তির অন্য স্বাক্ষরকারী দেশ ব্রিটেন, ফ্রান্স, জার্মানি, চীন ও রাশিয়া এ চুক্তি বহাল রাখার প্রতিশ্র“তি ব্যক্ত করে। রুহানির সঙ্গে বৈঠকে শি এ চুক্তিকে জোটবদ্ধ প্রচেষ্টার একটি গুরুত্বপূর্ণ অর্জন হিসেবে উল্লেখ করেন। শি বলেন, এ চুক্তি হচ্ছে মধ্যপ্রাচ্যের শান্তি ও স্থিতিশীলতা রক্ষার সহায়ক এবং আন্তরিকভাবে চুক্তিটির বাস্তবায়ন অব্যাহত রাখা উচিত।

যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বের ওপর তার নীতি চাপিয়ে দিচ্ছে : রুহানি
আলজাজিরা

পুরো বিশ্বের ওপর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নীতি চাপিয়ে দেয়ায় দেশটির কঠোর সমালোচনা করেছেন ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি। গতকাল চীনের উপকূলবর্তী কিংদাও শহরে অনুষ্ঠিত এসসিও শীর্ষ সম্মেলনে দেয়া ভাষণে রুহানি আরো বলেন, ইরান পারমাণবিক চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সরে আসা বিশ্বের বাকি দেশগুলোর ওপর বিশাল হুমকির সৃষ্টি করেছে।


সম্মেলনে রুহানি বলেন, বিশ্ব সম্প্রদায়ের ওপর চাপিয়ে দেয়া এই ধরনের কাণ্ডজ্ঞানহীন সিদ্ধান্তের সাম্প্রতিক একটি উদাহরণ হচ্ছে ২০১৫ সালে ইরানের সাথে করা পারমাণবিক চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রের বের হয়ে যাওয়া। উল্লেখ্য সাংহাই কো-অপারেশন অর্গানাইজেশন (এসসিও) একটি আঞ্চলিক নিরাপত্তা জোট এবং ইরান এই জোটের পর্যবেক্ষক হিসেবে সম্মেলনে অংশগ্রহণ করে।


মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গত মাসে ইরান পরমাণু চুক্তি থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বের হয়ে আসার এবং ইরানের ওপর নতুন অবরোধ আরোপের ঘোষণা দেন। অবশ্য যুক্তরাষ্ট্রকে ছাড়াই এই পরমাণু চুক্তি টিকিয়ে রাখার প্রচেষ্টা চালানোর কারণে চীন ও রাশিয়ার প্রশংসা করেন রুহানি।


পরমাণু চুক্তি থেকে বের হয়ে আসায় রাশিয়ান প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিনও যুক্তরাষ্ট্রের সমালোচনা করেন। যুক্তরাষ্ট্রের এই সিদ্ধান্ত শান্ত পরিস্থিতিকে কঠিনভাবে অস্থিতিশীল করতে পারে বলেও দাবি করেন তিনি। পুতিন বলেন, ইরানের সাথে চুক্তিকারী দেশ হিসেবে রাশিয়া এই চুক্তিকে সম্মান করে এবং যুক্তরাষ্ট্রের বের হয়ে যাওয়া সত্ত্বেও মস্কো এই চুক্তির বাস্তবায়নের পক্ষেই রয়েছে।

সৌদি আরবে চার ইরানি গুপ্তচরের মৃত্যুদণ্ড
আনাদোলু ও আলজাজিরা

ইরানের সাথে গোপন সম্পর্ক রাখার দায়ে চার ব্যক্তিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে সৌদি আরব সরকার। সৌদি সরকারি বার্তা সংস্থায় জানানো হয়, দণ্ডপ্রাপ্তরা ইরানের হয়ে গুপ্তচরবৃত্তি করার দায়ে অভিযুক্ত।

জানা যায়, অভিযুক্তরা ইরানের বিপ্লবী গার্ডের শিবিরে প্রশিক্ষণ নেন এবং ভারী অস্ত্র ও গোলাবারুদ ব্যবহারে পারদর্শিতা অর্জন করেন। তবে তাদের পরিচয় ও জাতীয়তা সম্পর্কে কিছুই প্রকাশ করেনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম বৃহস্পতিবার জানিয়েছে, ওই চারজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে তারা রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের হত্যার পরিকল্পনা করেছিলেন।

 


আরো সংবাদ

শিল্পী হত্যার প্রতিবাদে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক অবরোধ সংযোগের আগেই বিদ্যুৎ বিল! জার্মানির স্বার্থেই তুরস্কের শক্তিশালী অর্থনীতি দরকার : মারকেল আর্থা ফ্রাঙ্কলিন আর নেই গাজার মানবিক পরিস্থিতির উন্নয়নে যুক্তরাষ্ট্রের আগ্রহ স্বার্থসিদ্ধির পরিকল্পনা : মাহমুদ আব্বাস তাহিরপুরে ভুয়া ডাক্তারকে ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা রাতে ইন্টারনেট বন্ধ রাখার পরিকল্পনা! যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার কবলে তুরস্ক-ইরান-রাশিয়া-চীন-উত্তর কোরিয়া-সিঙ্গাপুর! বাজপেয়িকে নিয়ে এমন ভুল করলো সিনহুয়া! সব দ্বন্দ্ব ভুলে যুক্তরাষ্ট্রের সাথে কথা বলতে প্রস্তুত তুরস্ক তালায় কপোতাক্ষের দু’ধারে ফলদ বৃক্ষের চারা রোপণের উদ্বোধন

সকল