১৬ জানুয়ারি ২০১৯

সকল প্রধান নদীর পানি বিপদসীমার নিচে

সকল প্রধান নদীর পানি বিপদসীমার নিচে - ছবি : বাসস

দেশের সকল প্রধান নদনদীর পানি সমতল বিপদসীমার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পাশাপাশি, ব্রহ্মপুত্র- যমুনা নদনদী এবং আপার মেঘনা অববাহিকার প্রধান নদীসমূহের পানি সমতল হ্রাস পাচ্ছে। অন্যদিকে, গঙ্গা- পদ্মা নদীর পানি সমতল স্থিতিশীল আছে, যা আগামি ২৪ ঘন্টা পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।
মঙ্গলবার সকালে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে নদনদীর পরিস্থিতি ও পূর্বাভাসে একথা জানানো হয়।
এতে বলা হয়, ‘ব্রহ্মপুত্র- যমুনা নদনদীর পানি সমতল হ্রাস পাচ্ছে, যা আগামি ৭২ ঘন্টা পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে। আপার মেঘনা অববাহিকার প্রধান নদীসমূহের পানি সমতল হ্রাস পাচ্ছে, যা আগামি ৪৮ ঘন্টা পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।’
সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, মঙ্গলবার সকাল ৯টা পর্যন্ত দেশের পর্যবেক্ষণাধীন ৯৪টি পানি সমতল স্টেশনের মধ্যে ৭০টিতে হ্রাস পেয়েছে, ১৮টিতে পানি সমতল বৃদ্ধি পেয়েছে এবং ৪ টি অপরিবর্তিত রয়েছে। কোনো স্টেশনেই পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে না।
মঙ্গলবার সকাল ৯ টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘন্টায় কমলগঞ্জে ৬২ মি.মি. এবং নোয়াখালীতে ৪৭ মি.মি. বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।


আরো সংবাদ

ব্রিটিশ পার্লামেন্টে ব্রেক্সিট চুক্তি প্রত্যাখ্যান নারায়ণগঞ্জে ডাকাতির মালামালসহ ছাত্রলীগ সেক্রেটারি আটক রাখাইনে আবারো সঙ্ঘাতের শঙ্কা, জাতিসঙ্ঘ দূতের সফর স্থগিত ২০ দল ও ঐক্যফ্রন্টের সাথে বৈঠকের পর সিদ্ধান্ত নেবে বিএনপি ২০ দল ও ঐক্যফ্রন্টের সাথে বৈঠকের পর সিদ্ধান্ত নেবে বিএনপি সাংবাদিক মানিক সাহা হত্যাকাণ্ডের পুনঃতদন্ত দাবি নতুন সেবা চালু করল ইসলামিক ফাইন্যান্স জাপার প্রার্থীদের আবেদনপত্র বিতরণ শুরু আজ সংরক্ষিত নারী আসনে আ’লীগের ফরম বিক্রি শুরু অভিনেত্রী নওশাবার বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন ৩ মার্চ আদমজী ইপিজেডে হয়রানির প্রতিবাদে সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টদের বিক্ষোভ : কর্মবিরতি

সকল