২৪ জানুয়ারি ২০১৯

জাতীয় পার্টির ১০০ জনের তালিকা চূড়ান্ত, জানেন না রওশন

-

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে মহাজোটের অংশীদার হিসেবে বিরোধী দলের নেতা ও পার্টির কো-চেয়ারম্যান বেগম রওশন এরশাদের অগোচরেই গোপনে দলীয় প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। ১০০ জনের গোপন এ তালিকায় দলের অনেক সিনিয়র নেতাসহ রওশনপন্থী অনেকেই জায়গা পাননি। বর্তমান সংসদ সদস্যদের মধ্যেও কেউ কেউ বাদ পড়েছেন। তবে এমন অনেকেই প্রার্থী তালিকায় স্থান করে নিয়েছেন, যারা কখনো আগে জাতীয় পার্টি করেননি, এমনকি এই তালিকায় বিতর্কিত ও মামলার আসামিরাও স্থান পেয়েছেন বলে জানা গেছে। 

জাপার একাধিক সিনিয়র নেতা জানান, আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি এলে মহাজোটের অংশীদার হয়ে নির্বাচন করবেন এরশাদ। এ জন্য তিনি আগে ভাগেই নির্বাচনী প্রস্তুতির অংশ হিসেবে ১৪ দলীয় জোটনেত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে ১০০ আসন চাইবেন। যদি সম্ভব না-ও হয়, সে ক্ষেত্রে কমপক্ষে ৭০টি আসন দাবি করবেন তিনি। সেই হিসাব মাথায় রেখে তৃণমূলের মতামত ছাড়া রওশন এরশাদকে না জানিয়ে গোপনে প্রার্থী তালিকা তৈরি করেছেন সাবেক এই রাষ্ট্রপতি। যেকোনো সময় সেই তালিকা প্রধানমন্ত্রীর হাতে পৌঁছানো হবে বলেও এরশাদ-ঘনিষ্ঠ সূত্র থেকে জানা গেছে।


এরশাদের গোপন তালিকায় যারা স্থান করে নিয়েছেন তারা হলেনÑ ঢাকা-১ আসনের অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম, ঢাকা-৪ আসনে সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, ঢাকা-৬ আসনে কাজী ফিরোজ রশীদ ও ঢাকা-১৭ আসনে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ, গাজীপুর-২ এস এম নেওয়াজউদ্দিন, নরসিংদী-২ আজম খান, নরসিংদী-৪ নেওয়াজ আলী ভূঁইয়া, মানিকগঞ্জ-২ সৈয়দ আব্দুল মান্নান, মানিকগঞ্জ-৩ জহিরুল আলম রুবেল, ময়মনসিংহ-৪ রওশন এরশাদ, ময়মনসিংহ-৫ সালাউদ্দিন আহমেদ মুক্তি, ময়মনসিংহ-৮ ফখরুল ইমাম, ময়মনসিংহ-১০ ক্বারী হাবিবুল্লাহ বেলালী, কিশোরগঞ্জ-২ সৈয়দ সাদরুল উল্লাহ মাজু, কিশোরগঞ্জ-৩ মজিবুল হক চুন্নু, নারায়ণগঞ্জ-১ সাইফুল ইসলাম, না


আরো সংবাদ