film izle
esans aroma Umraniye evden eve nakliyat gebze evden eve nakliyat Ezhel Şarkıları indirEzhel mp3 indir, Ezhel albüm şarkı indir mobilhttps://guncelmp3indir.com Entrumpelung wien Installateur Notdienst Wien
২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০

স্বল্প-কার্বন নগর গড়ে তোলার পরামর্শ শিল্পমন্ত্রীর

-

চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের সুফল কাজে লাগিয়ে স্বল্প-কার্বন নির্গমন নগর গড়ে তোলার পরামর্শ দিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন। তিনি বলেন, এর মাধ্যমে পরিবেশবান্ধব শিল্পায়ন, প্রতিবেশ সুরক্ষা এবং সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য সমুন্নত রাখার চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা সহজ হবে। তিনি বিশ্বমানের শিল্প প্রযুক্তি ও প্রতিবেশগত নকশার আলোকে টেকসই শিল্পায়ন ও পরিবেশবান্ধব নগরায়নের লক্ষ্য অর্জনে এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের দেশগুলোকে পারস্পরিক সহায়তার ভিত্তিতে কাজ করার তাগিদ দেন।
চীন সফররত শিল্পমন্ত্রী গতকাল দ্বিতীয় ওয়ার্ল্ড ইকো-ডিজাইন কনফারেন্সে ২০১৯ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথির বক্তৃতায় এ পরামর্শ দেন। গুয়াংজুর বিশুয়ান হট ¯িপ্রং রিসোর্টে দু’দিনব্যাপী এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে জাতিসঙ্ঘ শিল্প উন্নয়ন সংস্থার (ইউনিডো) মহাপরিচালক লি ইয়াং, এলেন ম্যাকআর্থার ফাউন্ডেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এন্ড্রিও মরলেট, রিকো ইন্ডাস্ট্রি কোম্পানি লিমিটেডের করপোরেট ভাইস প্রেসিডেন্ট কাজুমি হানাদা এবং ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন জয়েন্ট রিসার্স সেন্টারের মহাপরিচালক ড. ফেব্রিস ম্যাথুয়াস বক্তব্য রাখেন। শিল্প মন্ত্রণালয়ের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে গতকাল এ কথা জানানো হয়।
শিল্পমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বে বাংলাদেশ সাফল্যের সাথে সহস্রাব্দের উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের পর টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট (এসডিজি) অর্জনের পথে দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের, ২০৩০ সাল নাগাদ এসডিজি লক্ষ্য অর্জন এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হতে বাংলাদেশ পরিবেশ ও প্রতিবেশবান্ধব শিল্পায়ন কার্যক্রমের ধারা জোরদার করেছে। এ সম্মেলন পরিবেশ ও প্রতিবেশগত চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে ইকো-টাউনশিপ প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে অংশগ্রহণকারী দেশগুলোকে এগিয়ে নেবে। তিনি টেকসই উন্নয়নের জন্য পরিবেশ ও জলবায়ুর ঝুঁকি মোকাবেলার পাশাপাশি নিজস্ব সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য সমুন্নত রাখার তাগিদ দেন। এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশ অন্য দেশগুলোর সাথে অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে কাজ করতে আগ্রহী বলে তিনি জানান।
চীন সরকার এবং জাতিসঙ্ঘ শিল্প উন্নয়ন সংস্থা (ইউনিডো) যৌথভাবে দ্বিতীয় ওয়ার্ল্ড ইকো-ডিজাইন কনফারেন্সের আয়োজন করে। এতে বাংলাদেশকে ‘সম্মানিত অতিথি রাষ্ট্র’ এর মর্যাদা দেয়া হয়। সম্মেলন উপলক্ষে বাংলাদেশী ডিজিটাল আর্ট প্রদর্শনীর পাশাপাশি নৃত্য, গানসহ সমৃদ্ধ সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড উপস্থাপন করা হয়। এ ছাড়া বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী হস্ত ও কারুশিল্প, ফ্যাশন ওয়্যার ইত্যাদি প্রদর্শন করা হয়েছে। সম্মেলনে শিল্পমন্ত্রী ৯ সদস্যের বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন। শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো: হেলাল উদ্দীন, উপসচিব মো: আবদুল ওয়াহেদ, প্রধান হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তা মো: রেজাউল ইসলাম, বুটিক শিল্প উদ্যোক্তা মানতাশা আহমেদ ও মরিয়াম নার্গিস, পাট পণ্য উদ্যোক্তা মোহাম্মদ জুল হোসেন জনি, কণ্ঠশিল্পী মনির হোসেন এবং নৃত্যশিল্পী হেনা হোসেন প্রতিনিধিদলে অন্তর্ভুক্ত রয়েছেন।

 


আরো সংবাদ

স্বাধীনতার গৌরব থেকে বামপন্থীদের বাদ দেয়া যাবে না : মেনন ঢাকা ট্যাকসেস বারের সভাপতি ইকবাল সম্পাদক সূফী মামুন খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় জেলে দিয়ে আ’লীগ নিজেদের ফাঁদে পড়েছে : হাসান সরকার বাহান্নর ভাষা আন্দোলনেই স্বাধীনতা সংগ্রামের বীজ বপন হয়েছিল : জি এম কাদের প্রতিবন্ধকতার দেয়াল ভেঙে নারীরা এগিয়ে যাচ্ছে : শিক্ষামন্ত্রী সাংবাদিক সুমন হত্যাচেষ্টা মামলায় আরো একজন গ্রেফতার খালেদা জিয়ার জামিন নিয়ে উচ্চ আদালতের দিকে তাকিয়ে বিএনপি ইনসাফ প্রতিষ্ঠার সংগ্রাম বেগবান করতে হবে : খেলাফত মজলিস দেশ ত্যাগের সময়ে বিমানবন্দরে জালনোটসহ গ্রেফতার ৪ দুর্ঘটনায় ৪ নেতার মৃত্যুতে ছাত্রদলের শোক দেড় কেজি স্বর্ণসহ গ্রেফতারকৃত নীলুফা রিমান্ডে

সকল