২২ আগস্ট ২০১৯

চট্টগ্রামে ইসকনের কর্মকাণ্ডের প্রতিবাদ বিভিন্ন সংগঠনের

-

চট্টগ্রামে ইসকন নামে একটি সংগঠনের উদ্যোগে ‘হরে কৃষ্ণ হরে রাম’ মন্ত্র পাঠে স্কুলে স্কুলে শিক্ষার্থীদের প্রসাদ খাওয়ানোর ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বিভিন্ন সংগঠন।
জামায়াত : আন্তর্জাতিক কৃষ্ণ ভাবনা মৃত সঙ্ঘ ইসকনের উদ্যোগে ‘হরে কৃষ্ণ হরে রাম’ মন্ত্র পাঠে স্কুলে স্কুলে শিক্ষার্থীদের প্রসাদ খাওয়ানোর ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা এ টি এম মা’ছুম এক বিবৃতিতে বলেন, আন্তর্জাতিক কৃষ্ণ ভাবনা মৃত সঙ্ঘ ইসকনের উদ্যোগে ‘হরে কৃষ্ণ হরে রাম’ মন্ত্র পাঠে স্কুলে স্কুলে শিক্ষার্থীদের প্রসাদ খাওয়ানোর ঘটনার আমি তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। এ ধরনের গর্হিত কর্মকাণ্ড মূলত কোমলমতি মুসলিম ছাত্রদের ঈমান নষ্ট করার ষড়যন্ত্র ছাড়া আর কিছু নয়।
তিনি আরো বলেন, হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সংগঠন ইসকনের তরফ থেকে দাবি করা হয়েছে যে, হিন্দুদের রথ যাত্রা উপলক্ষে তারা গত ১১ জুলাই থেকে সপ্তাহব্যাপী ৩০টি স্কুলে প্রায় ৩০ হাজার শিক্ষার্থীকে ওই মন্ত্র পড়িয়ে প্রসাদ খাইয়েছে। একটি মুসলিম দেশে হিন্দু সংগঠনের এ ধরনের ইসলাম বিরোধী তৎপরতা মুসলিম ছাত্র-ছাত্রীদের ঈমান নষ্ট করা ছাড়া আর কিছুই নয়। এ ধরনের গর্হিত অপতৎপরতার মাধ্যমে সাম্প্রদায়িক-সম্প্রীতি বিনষ্ট করার অপচেষ্টা চালানো হয়েছে।
বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস : হিন্দুত্ববাদী সংগঠন ‘ইসকন’ হিন্দু সম্প্রদায়ের রথযাত্রা উপলক্ষে চট্টগ্রামের বেশ কিছু স্কুলে মুসলিম শিক্ষার্থীদের মধ্যে প্রসাদ বিতরণ কার্যক্রম চালানোর তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের আমির শায়খুল হাদিস আল্লামা ইসমাঈল নূরপুরী ও মহাসচিব মাওলানা মাহফুজুল হক। এক বিবৃতিতে নেতাদ্বয় বলেন ‘ইসকন’ মুসলিম শিক্ষার্থীদের মধ্যে প্রসাদ বিতরণ করতে পারে না। এটা হিন্দুরা পুণ্যের কাজ মনে করে আহার করে। ইসকন এত বড় সাহস কোথায় থেকে পেল তা ক্ষতিয়ে দেখতে হবে।
বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন: সংগঠনের আমির মাওলানা শাহ আতাউল্লাহ হাফেজ্জী সম্প্রতি চট্টগ্রামের বিভিন্ন বিদ্যালয়ে ইসকন কর্তৃক কোমলমতি মুসলিম শিশু শিক্ষার্থীদের মধ্যে খাবার বিতরণের নামে কৌশলে হিন্দুত্ববাদী সেøাগান শিখানোর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন। তিনি বলেন, এ ঘটনা বাংলাদেশে বিদ্যমান সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের এক গভীর ষড়যন্ত্র। একদিকে ভারতে মুসলমানদের জোরপূর্বক হিন্দুত্ববাদী সেøাগান দিতে বাধ্য করা আর বাংলাদেশে সুকৌশলে কোমলমতি মুসলিম শিশুদের দিয়ে হিন্দু ধর্মের দেব-দেবীর জয়গান গাওয়ানো একই সূত্রে গাঁথা। এই গভীর ষড়যন্ত্রের মূলোৎপাটন করতে না পারলে বাংলাদেশে স্বাধীনভাবে নিজ নিজ ধর্ম পালনের সাংবিধানিক ও নাগরিক অধিকার হুমকির মুখে পড়ার পাশাপাশি দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব বিলুপ্ত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। কামরাঙ্গীরচর মাদরাসায় খেলাফত আন্দোলনের কেন্দ্রীয় মজলিসে আমেলার নিয়মিত বৈঠকে সভাপতির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন। এতে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেনÑ দলের মহাসচিব মাওলানা হাবিবুল¬াহ মিয়াজী, মাওলানা আব্দুর রহমান খান তালুকদার, মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী, হাজী জালাল উদ্দিন বকুল, মুফতি আব্দুল আজিজ, মাওলানা ফিরোজ আশরাফী ও মুফতি সুলতান মুহিউদ্দিন।
ইসলামী আন্দোলন : সম্প্রতি ‘ফুড ফর লাইফ’ কর্মসূচির আড়ালে চট্টগ্রামের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের ‘হরে কৃষ্ণ’ মন্ত্র পাঠ ও ‘প্রসাদ’ খাওয়ানোর ঘটনায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে ইসলামী আন্দোলন ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ বলেন, ‘ইন্টারন্যাশনাল সোসাইটি ফর কৃষ্ণ কনশাসনেস’ (ইসকন) সেবার আড়ালে উসকানিমূলক ধর্মীয় অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সাম্প্রদায়িকতার বিষবাষ্প ছড়াচ্ছে। বাংলাদেশে অবিলম্বে ইসকনের কার্যক্রম নিষিদ্ধ করতে হবে এবং প্রসাদকাণ্ডের সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। গতকাল ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর উত্তরের জরুরি প্রস্তুতি সভায় সভাপতির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন। এতে মহানগর নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


আরো সংবাদ




mp3 indir bedava internet