১৭ জানুয়ারি ২০২০

দেশে যে কবরের শান্তি বিরাজ করছে : বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি

-

বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সভায় গৃহীত রাজনৈতিক প্রস্তাবে বলা হয়, দেশে বিদ্যমান যে কবরের শান্তি বিরাজ করছে তা গণতন্ত্র নয়। সরকারের একদলীয় চরম কর্তৃত্ববাদী দমনমূলক স্বৈরতান্ত্রিক শাসন যেভাবে জনগণের কণ্ঠকে স্তব্ধ করে দিয়েছে তা দেশের গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক ভবিষ্যৎকে এক গভীর খাদের অনিশ্চিত অন্ধকারে নিক্ষেপ করেছে।
সেগুনবাগিচায় পার্টির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে গতকাল এক সভায় পার্টির রাজনৈতিক পরিষদের সদস্য আবু হাসান টিপুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, কেন্দ্রীয় নেত্রী বহ্নিশিখা জামালী, আকবর খান প্রমুখ।
সভায় আরো বলা হয়, সরকার দমন করে শাসনের যে নীতি গ্রহণ করেছে তা মানুষের মনের পুঞ্জিভূত ক্ষোভ কেবল আরো বাড়িয়ে দেবে। দেশ শাসনের এই কৌশল শেষ অবধি দেশ ও সরকারের জন্য আত্মঘাতী হয়ে উঠতে পারে।
সভায় গৃহীত প্রস্তাবে বলা হয়, শ^াসরুদ্ধকর বিদ্যমান পরিস্থিতি অব্যাহত থাকলে দেশে চরম দক্ষিণপন্থী ফ্যাসিবাদী শক্তির উত্থানের বিপদ বাড়তে পারে। সভার প্রস্তাবে এই পরিস্থিতি উত্তরণে সব প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক ও দেশপ্রেমিক শক্তির বৃহত্তর ঐক্য প্রতিষ্ঠার ডাক দেয়া হয়। অপর এক প্রস্তাবে ২০ রোজার আগেই গার্মেন্ট ও গার্মেন্ট শ্রমিকসহ শ্রমিক কর্মচারীদের বকেয়া বেতন বোনাস ভাতা পরিশোধের জন্য সরকার ও মালিকদের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।


আরো সংবাদ

বিপিএলের নতুন চ্যাম্পিয়ন রাজশাহী ‘কেরলে কেউ খাবারের সাথে ধর্ম মেশায় না’ সাংবাদিকতার ইতিহাসে প্রথম! রাজার পোশাকে, হাতে তলোয়ার নিয়ে রিপোটিং (ভিডিও) দাবানলে বিধ্বস্ত অস্ট্রেলিয়ায় বৃষ্টি, ১৮ মাসের বাচ্চার নাচ ভাইরাল দূতাবাস অ্যাপে খুব সহজে ৩৪ সেবা পাওয়া যাচ্ছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী লজ্জাজনক হারের পর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে জয় ভারতের সোলাইমানি হত্যার দায়ে ট্রাম্পের প্রাণদণ্ড হওয়া উচিত : মার্কিন সাংবাদিক ইরান-মার্কিন সঙ্ঘাত : ওআইসির আত্মসমালোচনার সুযোগ যে কথা বলতে চাই না প্রাণভিক্ষার আবেদন নাকচ, ভারতের নির্ভয়া কাণ্ডে ফাঁসি ১ ফেব্রুয়ারি ‘হিউম্যান মিল্ক ব্যাংক’ : প্রসঙ্গ কথা

সকল