২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ফেনীতে পোলট্রি ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা

-

ফেনী সদর উপজেলার ছনুয়া ইউনিয়নের উত্তর ছনুয়া গ্রামে পোলট্রি ব্যবসায়ী বেলায়েত হোসেনকে মনোমালিন্যের জেরে কুপিয়ে হত্যা করেছে তার কর্মচারী ফুজায়েল আহমেদ। সোমবার দুপুরে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো: জাকির হোসাইনের আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দীতে হত্যার দায় স্বীকার করে।
ফেনী মডেল থানার ওসি (তদন্ত) সাজেদুল ইসলাম জানান, ফুজায়েলকে সোমবার দুপুরে আদালতে হাজির করা হলে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী প্রদান করে। জবানবন্দীতে সে হত্যাকাণ্ডের পুরো কাহিনী বর্ণনা দেয়। ফুজায়েল আদালতকে জানায়, তাকে ঠিকমতো বেতন না দেয়া, বাড়ি যেতে ছুটি না দেয়ায় বেলায়েত হোসেনের সাথে তার মনোমালিন্য হয়। এর জেরে ১৫ থেকে ২০ দিন আগে তাকে হত্যার পরিকল্পনা করে ফুজায়েল। বৃহস্পতিবার রাতে সাহরি খেয়ে বেলায়েত হোসেন ফার্মে ঘুমিয়ে পড়লে ফুজায়েল দা দিয়ে গলায় এলোপাতাড়ি কুপিয়ে মৃত্যু নিশ্চিত করে। পরে রক্ত বের না হতে গামছা ও শার্ট দিয়ে ছেপে ধরে। লাশ গুম করতে পার্শবর্তী ডোবায় ফেলে দেয়।
বোগদাদিয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ওমর হায়দার জানান, ফেনী সদর হাসপাতালে নিহত বেলায়েত হোসেনের লাশ ময়নাতদন্ত শেষে সোমবার দুপুরে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। রোববার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতের ভাই আমির হোসেন বাদি হয়ে ফুজায়েলকে আসামি করে ফেনী মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। ফুজায়েল নেত্রকোনা জেলার বারহাট্টা থানার আবদুল ওহাবের ছেলে।

 


আরো সংবাদ