২২ মে ২০১৯

ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি নিয়ে যত অভিযোগ

-

দীর্ঘদিনের নাটকীয়তার পর গত সোমবার বিকেলে আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণা করা হয়। এত দীর্ঘ সময় পরে হওয়া পূর্ণাঙ্গ কমিটি বিতর্কমুক্ত থাকার কথা থাকলেও কার্যত তা হয়নি বলে অভিযোগ পদবঞ্চিত এবং যথাযথ মূল্যায়ন না পাওয়া ছাত্রলীগ নেতানেত্রীদের। কমিটি নিয়ে সংগঠনটির বর্তমান সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের কাছে বেশ কিছু অভিযোগ আনেন তারা। এর মধ্যে ত্যাগী এবং রাজপথে থাকা নেতাকর্মীদের বাদ দিয়ে অঞ্চলপ্রীতি, স্বজনপ্রীতির আশ্রয় নেয়া তুমুল বিতর্কিতদের দিয়ে কমিটি পূর্ণাঙ্গ করার অভিযোগ প্রধান হয়ে দেখা দিয়েছে। বর্তমান কমিটিতে যারা আছেন তাদের মধ্যে রয়েছেন বিবাহিত, মাদক ব্যবসায়ী, হত্যা মামলার আসামি, বয়স-উত্তীর্ণ, চাকরিজীবী, নিষ্ক্রিয়, ছাত্রী নির্যাতনকারী, ঢাবি শিক্ষককে মারধর করে বিশ^বিদ্যালয় থেকে আজীবন বহিষ্কৃত হওয়া ব্যক্তিরা। নারীদের যথাযথ মূল্যায়নের কথা বলা হলেও বর্তমান কমিটিতে নারী নেত্রীদের তেমন কোনো গুরুত্বপূর্ণ পদ দেয়া হয়নি। এ নিয়ে একটি বিরাট অংশের মনে ক্ষোভ দানা বাঁধে। সর্বশেষ গত সোমবার কমিটি ঘোষণার পরপরই বিক্ষোভ করে দুই শতাধিক নেতাকর্মীর এ বিদ্রোহী অংশ। তারা ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে কমিটি পুনর্গঠনের আলটিমেটাম দেন।
পূর্ণাঙ্গ কমিটির বিষয়ে অভিযোগ এনে তিলোত্তমা শিকদার বলেন, গত কমিটিতে অর্থ উপসম্পাদক ছিলেন তিনি। এবার সাংস্কৃতিক উপসম্পাদক বলেন, যাদের দীর্ঘদিন দেখি না, বিবাহিত, মাদক ব্যবসায়ী তারা বড় বড় পদ পেয়েছে। আমাদের বঞ্চিত করা হয়েছে। এই কমিটি মানি না। অভিযোগ রয়েছে, বর্তমানে পূর্ণাঙ্গ কমিটির সহসভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল হত্যা মামলার আসামি। সহসভাপতি শাহরিয়ার কবির বিদ্যুৎ মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত। সহসভাপতি বরকত হাওলাদারকে শিক্ষকের গায়ে হাত তোলায় ঢাবি থেকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার করা হয়। আরেক সহসভাপতি পদে তানজিল ভূঁইয়া তানভীরের বয়স ৩০ এর ঊর্ধ্বে। সহসভাপতি আতিকুর রহমান খানের বিরুদ্ধে রয়েছে মাদক ও ইয়াবা সেবন এবং মাদককারবারির সাথে জড়িত থাকার অভিযোগ। এ ছাড়া পয়লা বৈশাখের কনসার্টে আগুন দেয়ার অভিযোগও আছে তার বিরুদ্ধে।
দফতর সম্পাদক আহসান হাবীব সাবেক চাকরিজীবী এবং তার বিরুদ্ধে বিশ^বিদ্যালয়ের মল চত্বরে বৈশাখী কনসার্টে আগুন দেয়ার অভিযোগ আছে। সহসভাপতি সুরঞ্জন ঘোষের বয়স ত্রিশের ঊর্ধ্বে। সংগঠনটির ২ নম্বর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ চৌধুরী ২০১৪-১৫ সেশনে পরীক্ষায় নকলের দায়ে ঢাবি থেকে তিন বছরের জন্য বহিষ্কৃত হয়েছিল। এ ছাড়া তার বিরুদ্ধেও রয়েছে বৈশাখী কনসার্টে আগুন দেয়ার অভিযোগ। সহসভাপতি পদ পাওয়া আরেফিন সিদ্দিক সুজনকে এক সময় ইয়াবা সেবন ও মাদক রাখার জন্য হল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছিল। সহসভাপতি সোহেল রানার বয়স ত্রিশের ঊর্ধ্বে। তিনি ছাত্রলীগে নিষ্ক্রিয় ছিলেন বলে জানা যায়।
স্বজনপ্রীতিতে আন্তর্জাতিক সম্পাদক হলেনÑ সভাপতির ভাই : ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনের ছোট ভাই রাকিনুল হক চৌধুরী ছোটনকে নিয়ে চলছে সমালোচনা। ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের অভিযোগ, ছোটন ছাত্ররাজনীতির মাঠে যেমন অপরিচিত, কেন্দ্রীয় রাজনীতিতেও ততটাই ছিলেন নিষ্ক্রিয়। গেল এক বছরেই তাকে সবাই চেনে। সেটাও ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনের কল্যাণে। ছোটন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) শিক্ষার্থী। এবার ছোটনকে ছাত্রলীগের গুরুত্বপূর্ণ পদে বসিয়েছেন শোভন। কেন্দ্রীয় কমিটিতে তাকে আন্তর্জাতিক সম্পাদকের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। এ জন্য শোভনের বিরুদ্ধে স্বজনপ্রীতির অভিযোগ তুলেছেন ছাত্রলীগের পদবঞ্চিত কর্মীরা। এর আগে ছোটন ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সমাজসেবা সম্পাদক ছিলেন।
কমিটিতে রাব্বানীর জেলার ২২ জন : ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর জেলা মাদারীপুর থেকেই পদ পেয়েছেন ২২ জন। ৩০১ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে আর কোনো জেলা থেকে এতসংখ্যক পদ দেয়া হয়নি। পদপ্রাপ্তদের মধ্যে অনেকে ব্যবসা, ঠিকাদারি, বিলাসবহুল জীবনযাপন এবং কারো কারো বয়সসীমা পার হয়েছে বলে জানা যায়। এর মধ্যে কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী ছাড়াও মাদারীপুরের রয়েছেন সহসভাপতি তানজিল ভূঁইয়া তানভীর। তিনি ঠিকাদারি ব্যবসার সাথে যুক্ত রয়েছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। তার বয়স ৩১ বছর বলে জানা যায়।
আরো রয়েছেনÑ আরেফিন সিদ্দিক সুজন, ইমরুল হাসান নিশু। নিশুকে কখনো ছাত্ররাজনীতে সক্রিয় দেখা যায়নি। সাদিক খানের স্ত্রী সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুবরণ করেন। তৌহিদুর রহমান হিমেল যার প্রতিষ্ঠিত ঠিকাদারি ব্যবসা রয়েছে। রুয়েট পড়াশোনা শেষ করে ব্যবসায় যুক্ত হন তিনি। আরো আছেন সাইফুল ইসলাম জনি, কামাল খান ও আওলাদ খান। যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাকিল ভূঁইয়া যার পরিবার বিএনপির রাজনীতির সাথে যুক্ত থাকার অভিযোগ রয়েছে। এ ছাড়া উপশিক্ষা ও পাঠচক্র সম্পাদক মনসুর হেলাল, সাংস্কৃতিক সম্পাদক খালিদ হাসান রবিন, উপ-আন্তর্জাতিক সম্পাদক এস এম মাহাবুবুর রহমান সালেহী, উপ-আন্তর্জাতিক সম্পাদক এস এম শওকত হোসেন, উপ-পাঠাগার সম্পাদক জিয়াসমিন শান্তা, উপসাহিত্য সম্পাদক শরিফুল ইসলাম, উপ-বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম সাকিব, উপমানব সম্পদ উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদক সোলায়মান খান সুজন, কৃষি শিক্ষা সম্পাদক এস এম মাসুদুর রহমান মিঠু, উপপ্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক মিশকাত হাসান, সহসম্পাদক আহসান হাবীব বাপ্পী, সহসম্পাদক মেহেদী হাসান রাজু।
বিবাহিতরাও কমিটিতে : ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্রের ৫-এর গ ধারা অনুযায়ী, কোনো বিবাহিত ব্যক্তি সংগঠনটির পদে আসতে পারবেন না বলে উল্লেখ আছে। তবে সদ্য ঘোষিত কমিটিতে বেশ কয়েকজন বিবাহিত হয়েও ঠাঁই পেয়েছেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কমিটিতে সহসভাপতি পদ পাওয়া সোহানী তিথি, সাংস্কৃতিক বিষয়ক উপসম্পাদক পদ পাওয়া আফরিন সুলতানা লাবণী, সহসম্পাদক পদ পাওয়া আনজুমান আরা আনু ও সামিহা সরকার সুইটি বিবাহিত। এ ছাড়াও সহসভাপতি ইশাত কাসফিয়া ইরাও বিবাহিত বলে অভিযোগ অনেকের। এমন কমিটির সমালোচনা করে শামসুন্নাহার হলের সাধারণ সম্পাদক জেয়াসমিন শান্তা তার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বলেন, নারীদের বিবাহিত হওয়া এবং আন্ডারগ্রাউন্ড প্রটোকল দেয়া বাংলাদেশ ছাত্রলীগের বর্তমান কমিটিতে বড় পোস্ট পাওয়ার মূলমন্ত্র।
কমিটি নিয়ে অভিযোগ তুলে ছাত্রলীগের সাবেক কর্মসূচি ও পরিকল্পনা বিষয়ক সম্পাদক রাকিব হোসেন বলেন, আমাদের মূল্যায়ন করা হয়নি তাতে কোনো আফসোস ছিল না। তবে বিতর্কিতদের দিয়ে কমিটি করার মানে আমাদের অসম্মান করা। এমন কমিটির বিষয়ে মন্তব্য জানতে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর মোবাইলে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তারা কল রিসিভ করেননি।
৪৮ ঘণ্টার মধ্যে কমিটি পুনর্গঠনের আলটিমেটাম : ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ছাত্রলীগের ঘোষিত পূর্ণাঙ্গ কেন্দ্রীয় কমিটি বাতিলের আলটিমেটাম দিয়েছেন পদবঞ্চিতরা। তা না হলে অনশনে বসার কথাও জানান তারা। এ ছাড়া ছাত্রলীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকের নির্দেশেই মধুর ক্যান্টিনে ছাত্রলীগ নেত্রীদের ওপর হামলা হয়েছে বলেও অভিযোগ তাদের। গত মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তারা এসব অভিযোগ করেন।
সংবাদ সম্মেলনে বি এম লিপি আক্তার বলেন, আমি রোকেয়া হলের সভাপতি এবং ডাকসুর কমনরুম ও ক্যাফেটেরিয়া সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করা অবস্থায় আমাকে ছাত্রলীগের উপসম্পাদক পদ দেয়া হয়েছে। আমি ছাত্রলীগের সেক্রেটারিকে জিজ্ঞেস করেছি, কোন ক্রাইটেরিয়ায় আমাকে ছাত্রলীগের উপ সম্পাদক পদ দিয়েছেন। তিনি উত্তর দিয়েছেন, ডাকসুর গুরুত্বপূর্ণ পদে আছি বলে। সাধারণ সম্পাদকের উদ্দেশে লিপি বলেন, আমার প্রশ্ন হলোÑ তাহলে আপনি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পদে থেকেও কেন ডাকসু নির্বাচন করলেন? তিন সদস্যের (আল নাহিয়ান খান জয়, ফুয়াদ হোসেন শাহাদাত, পল্লব কুমার বর্মণ) তদন্ত কমিটির বিষয়ে লিপি আক্তার বলেন, যারা মধুর ক্যান্টিনে মারধর করেছে তাদেরই তদন্ত কমিটির সদস্য করা হয়েছে। এই তদন্ত কমিটি আমরা মানি না। এ সময় তিনি ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে কমিটি বাতিল করা না হলে সবাই মিলে অনশন করার হুঁশিয়ারি দেন। এ ছাড়া একমাত্র প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশ দিলে তদন্ত কমিটি মানবেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, অন্যথায় তারা মানবেন না।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে ছাত্রলীগের সাবেক প্রচার সম্পাদক সাইফ বাবু বলেন, কেন্দ্রীয় কমিটি পূর্ণাঙ্গ হওয়ায় নিবেদিত প্রত্যেকটি ছাত্রলীগ নেতাকর্মীর আজ আনন্দিত হওয়া, উল্লাস করার কথা ছিল। কিন্তু তা না করে উল্টো ভারাক্রান্ত মন নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করতে হচ্ছে। তিনি বলেন, আমরা বিস্ময়ের সাথে লক্ষ্য করেছি বিগত সময়গুলোতে যারা সক্রিয়ভাবে ছাত্রলীগের সাথে জড়িত ছিল, তাদের একটি বৃহৎ অংশকে বাদ কিংবা সঠিক পদে মূল্যায়ন না করে অপরাধী ও বিতর্কিতদের পদায়ন করা হয়েছে। এমন ব্যক্তিদের পদায়ন দেখে ছাত্রলীগের একজন নিবেদিতপ্রাণ কর্মী হিসেবে আমরা বঞ্চিত হয়েছি।


আরো সংবাদ

কাশ্মীরে নিরাপত্তা হেফাজতে নির্যাতনের লোমহর্ষক বিবরণ সন্ত্রাস ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে : প্রধানমন্ত্রী পেশাজীবীদের সম্মানে প্রধানমন্ত্রীর ইফতার ৬ মাস পর কারামুক্ত বিএনপি নেতা শেখ রবিউল আলম নারী ও শিশু নির্যাতন রোধে তিন মন্ত্রণালয়কে সমন্বিতভাবে কাজ করার পরামর্শ বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির মামলায় তদন্ত প্রতিবেদন ২ জুলাই ৩ টাকার বালিশ তুলতে খরচ ৫ টাকা? রুমিন ফারহানার প্রার্থিতা বৈধ কৃষকেরা অধিকার থেকে বঞ্চিত : মাওলানা আতাউল্লাহ শাহজালাল বিমানবন্দরে সোয়া ৩ কোটি টাকার স্বর্ণসহ একজন গ্রেফতার পশ্চিম রাজাবাজারের জলাবদ্ধতা নিরসনের দাবি আওয়ামী লীগ-বিএনপির তরুণ নেতাদের

সকল




agario agario - agario