১৫ নভেম্বর ২০১৮

অনলাইনে নৌযান সেবা উদ্বোধন এমপি তালিকার বিষয়ে কিছু জানেন না : নৌমন্ত্রী

-

আওয়ামী লীগের প্রাথমিক এমপিপ্রার্থী তালিকার বিষয়ে কিছু জানেন না বলে দাবি করেছেন নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান। তিনি বলেন, কিছু গণমাধ্যমের খবরের রেফারেন্সে আমি ওই বক্তব্য দিয়েছিলাম। তবে এ ব্যাপারে আমি নিজে কিছু জানি না। মনোনয়নের বিষয়ে পার্লামেন্টারি বোর্ডের যিনি প্রধান তিনি সিদ্ধান্ত নেবেন। প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করা হয়ে থাকলে তা উনি (শেখ হাসিনা) জানেন, আমি ব্যক্তিগতভাবে জানি না। গতকাল রাজধানীর নৌপরিবহন অধিদফতরে ‘সফটওয়্যার ফর ইনল্যান্ড শিপ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম’ এর উদ্বোধনের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।
এর আগে গত রোববার নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লার পাগলা মেরি এন্ডারসনে বিআইডব্লিউটিএর নবনির্মিত ১০ তলা স্টাফ কোয়ার্টারের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে নৌপরিবহনমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ প্রাথমিকভাবে ১০০ আসনের প্রার্থী তালিকা করেছে। পরে মন্ত্রীর ওই বক্তব্যের সমালোচনা করেন আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা। এরপরই গতকাল নৌমন্ত্রী এ বিষয়ে নিজের অবস্থান ব্যাখ্যা করলেন।
এর আগে উদ্বোধন অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বলেন, নৌপথ সচল, নৌপথ রা ও নদী কাজে লাগানো এবং নৌপথের নিরাপত্তা ও যাত্রীসেবার মান উন্নয়নের ল্েয সরকার কাজ করে চলেছে। নৌযান সার্ভে ও পরিদর্শন কাজ তদারকির জন্য নৌপরিবহন অধিদফতরকে আধুনিকায়ন করা হয়েছে। সরকারের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় এ অধিদফতরের জন্য নতুন ১৫৬টি পদ সৃষ্টি করা হয়েছে। নৌযান সার্ভের জন্য ২১টি সার্ভেয়ারের পদ সৃষ্টি করা হয়েছে। আরো ১০ জন সার্ভেয়ার নিয়োগ করা হবে। পরিদর্শকের পদ ছিল আটটি। নতুন করে ১২ জন পরিদর্শকের নিয়োগের প্রক্রিয়া শেষপর্যায়ে রয়েছে।
এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, নৌপরিবহন অধিদফতরের যে দুইজন প্রধান প্রকৌশলী দুর্নীতির দায়ে গ্রেফতার হয়েছেন, দায়দায়িত্ব তাদের নিজেদের, অধিদফতরের নয়। তাদের বিচার কোর্টে আছে, দুদকে আছে এবং আমাদের ডিপার্টমেন্টেও এ ব্যাপারে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব। তাদের কেউ এখানে কর্মরত নয়।
নৌপরিবহন অধিদফতরের মহাপরিচালক কমোডর সৈয়দ আরিফুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব আবদুস সামাদ, বিআইডবিউটিএ চেয়ারম্যান কমোডর এম মোজাম্মেল হক ও নৌযান মালিক নেতারা। অনুষ্ঠানে বক্তারা আশা প্রকাশ করে বলেন, অনলাইনে নৌযানসংক্রান্ত সেবা দেয়ার ফলে এ সংস্থাটির অনিয়ম ও হয়রানির মাত্রা কমে আসবে। অনুষ্ঠানে জানানো হয়, এখন থেকে অনলাইনের মাধ্যমে নৌযান রেজিস্ট্রেশন, ফিটনেস পরীার আবেদন ও সনদ গ্রহণ, নতুন নৌযানের নামকরণ, নকশা অনুমোদনের জন্য আবেদনসহ বিভিন্ন ধরনের সেবা পাওয়া যাবে।


আরো সংবাদ