১৯ জুলাই ২০১৯

দরজা চাপায় গুরুতর আহত উড়ির নায়ক!

‘উরি : দ্য সার্জিক্যাল স্ট্রাইক’-এর অভিনেতা ভিকি কৌশলকে দেখে ভারতীয়দের রক্ত গরম হয়। নিজেরাও ভিকির মতো যুদ্ধে গিয়ে শত্রু দেশের সবকিছু চুরমার করে দেয়ার অঙ্গীকার করেন। কিন্তু এবার সেই ভিকিই দরজা চাপায় গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

জানা গেছে, পরিচালক ভানুপ্রতাপ সিংয়ের একটি ভৌতিক ছবির জন্য গুজরাটে শুটিং করছিলেন ভিকি। এতে একটি অ্যাকশন দৃশ্য এমন ছিল, যাতে ভিকি দৌড়ে দরজা খুলবেন। কিন্তু উরির নায়ক দরজা খোলার সময় সেটি ভেঙে তার ওপরই পড়ে যায়। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হন ভিকি। সবচেয়ে বেশি আঘাত পান মুখে। সাথে সাথে তাকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে গতকাল শুক্রবার তাকে মুম্বাইয়ে নিয়ে আসা হয়।

গুজরাটে শুটিং চলছিল এ ছবিটির। দুর্ঘটনার কারণে শুটিং বন্ধ রাখা হয়েছে।

২০১৯ সালের জানুয়ারিতে মুক্তিপ্রাপ্ত উরি : দ্য সার্জিক্যাল স্ট্রাইক ছিল এ বছরের প্রথম মুক্তিপ্রাপ্ত ভারতীয় অ্যাকশন চলচ্চিত্র। ভিকি কৌশল, পরেশ রাওয়াল, মোহিত রায়না ও ইয়ামি গৌতমের অভিনীত এই চলচ্চিত্রে ২০১৬ সালের উরি আক্রমণের প্রতিশোধের একটি নাটকীয় ঘটনা প্রকাশ করা হয়। ভারতের দর্শকদের কাছে চলচ্চিত্রটি ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায়। পাশাপাশি আয়ের ক্ষেত্রেও ভালো অবস্থানে ছিল চলচ্চিত্রটি।

 

আরো পড়ুন : পাকিস্তানি শিল্পীদের বাদ দিলে ভারত ছাড়বেন শাহরুখ!
নয়া দিগন্ত অনলাইন, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৪:২৫

যদি ভারতে পাকিস্তানি অভিনেতা-অভিনেত্রীদের বয়কট করা হয় তাহলে আমি ভারত ছেড়ে চলে যাবো। ভারতের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বলিউড অভিনেতা শাহরুখ খানের নামে এই বার্তাটি ভাইরাল হয়েছে। ‘নমো ভক্তি’ নামের একটি ফেসবুক গ্রুপ থেকে এ মেসেজটি ছাড়া হয়।

মেসেজটি ভারতীয় জনতা পার্টি বিজেপির ফেসবুক পেজ বিজেপি সোশ্যাল মিডিয়াতেও শেয়ার করা হয়েছে। বেশ কয়েকটি টুইটারে বার্তাটি ঘুরছে।

তবে কোনো স্বীকৃতি গণমাধ্যমে শাহরুখ খানের পক্ষ থেকে এমন কোনো বার্তা পাওয়া যায়নি। কোনো ক্ষেত্রেই এমন খবর বের হয়নি, যাতে শাহরুখ এমনটা বলেছেন। অথচ ওই মেসেজে বলা হয়, স্পষ্টভাষায় শাহরুখ বলেছেন, যদি ভারত পাকিস্তানি শিল্পীদের নিষিদ্ধ করে তাহলে আমি দেশ ত্যাগ করব।

বাস্তবে ১৪ ফেব্রুয়ারি সংঘটিত ওই আত্মঘাতী হামলার ব্যাপারে শাহরুখ নিন্দা জানান এবং হতাহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান।

ওই ঘটনার জেরেই ১৮ ফেব্রুয়ারি অল ইন্ডিয়া সিনে ওয়ার্কার্স অ্যাসোসিয়েশন এক ঘোষণায় জানায়, ভারতের চলচ্চিত্রে কাজ করা পাকিস্তানি সব অভিনেতা-অভিনেত্রীর ওপর এখন থেকে নিষেধাজ্ঞা দেয়া হচ্ছে।

পুলওলামা হামলার পর শাহরুখ খানের ব্যাপারে শুধু এই মেসেজই নয়, বরং আরো কিছু মিথ্যে সংবাদ প্রচারিত হয়েছে। এরকম একটি খবরে বলা হয়েছে, শাহরুখ খান পাকিস্তানে ৪৫ কোটি রুপি দান করেছেন, অথচ ভারতের নিহত এসব জওয়ানদের ব্যাপারে তিনি কিছুই করেননি।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারত অধিকৃত কাশ্মিরে দেশটির কেন্দ্রীয় রিজার্ভ পুলিশ বাহিনীর (সিআরপিএফ) দু’টি গাড়ি লক্ষ্য করে আত্মঘাতী হামলার ঘটনা ঘটে। এই হামলায় ওই বাহিনীর অন্তত ৪৪ সদস্য নিহত হয়।

জয়েশ-এ-মোহাম্মদ নামে একটি সংগঠন এ হামলার দায় স্বীকার করেছে। তাদের দাবি, স্থানীয় তরুণের মাধ্যমে আত্মঘাতী হামলা চালানো হয়েছে। হামলার শিকার হওয়ার পর সিআরপিএফ সদস্যদের বহনকারী বাসটি লোহার জঞ্জালে পরিণত হয়।

ওই দিন দু’টি গাড়িতে করে রিজার্ভ পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা জম্মু থেকে কাশ্মির যাওয়ার পথে পুলওয়ামা জেলায় হামলার মুখে পড়ে। দু’টি গাড়ির মধ্যে একটি বাসে ৫৪ জন জওয়ান ছিলেন। ওই বাসে বিস্ফোরণ ঘটানো হলে হতাহতের এ ঘটনা ঘটে।

শ্রীনগর থেকে ৩০ কিলোমিটার দূরে জম্মু-শ্রীনগর মহাসড়কের লেথপোরা এলাকায় এই হামলার ঘটনা ঘটে। কাশ্মির পুলিশ জানায়, ইম্প্রোভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস (আইইডি) ব্যবহার করে এই হামলা চালানো হয়েছে। বিস্ফোরণের পর পুলিশ সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি চালানো হয় বলেও জানিয়েছে কাশ্মির পুলিশ। আত্মঘাতী হামলাকারী হিসেবে পুলওয়ামা জেলার কাকাপোরা এলাকার বাসিন্দা আদিল আহমাদকে চিহ্নিত করেছে ভারতীয় পুলিশ।

এর পরে অবশ্য অভিযান চালিয়ে এ হামলার মূল পরিকল্পনাকারী কামরানকে হত্যার দাবি করে ভারতের নিরাপত্তা বাহিনী। তবে ওই সময়ে পাল্টা গোলাগুলিতে এক মেজরসহ নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য নিহত হয়।


আরো সংবাদ

gebze evden eve nakliyat instagram takipçi hilesi