২৩ মার্চ ২০১৯

২২ বছর পর ঢাকায় বেদের মেয়ে জোসনার নায়িকা

জায়েদ খানের সাথে অঞ্জু ঘোষ - সংগৃহীত

এলেন, দেখলেন, জয় করলেন কথা গুলোর মতোই বাংলাদেশী চলচ্চিত্রে নিজেকে পরিচিত করিয়ে ছিলেন। দেশের ইতিহাসে অন্যতম সেরা ব্যবসা সফল ছবি ‘বেদের মেয়ে জোসনা’ ছবির নায়িকা হিসেবে দর্শকের মনে স্থায়ি আসন পাতা এই অভিনেত্রীর নাম অঞ্জু ঘোষ। তার মিষ্টি হাসি, বড় চোখের মায়াবী চাহনি, মন মাতানো অভিনয়, প্রাণ দুলানো নাচ দাগ কেটেছিলো লাখো যুবকের অন্তরে। কিন্তু সব ছেড়ে নব্বই দশকের শেষের দিকে তিনি চলচ্চিত্র থেকে দূরে সরে যান। বসবাস করতে শুরু করেন কলকাতায়।

সেখানে অবশ্য কিছু চলচ্চিত্রে তাকে অভিনয় করতে দেখা গেছে। তবে দীর্ঘ বিরতি কাটিয়ে ২২ বছর পর ঢাকায় এলেন অঞ্জু ঘোষ। মূলত বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির আমন্ত্রণে অঞ্জু ঘোষ ঢাকায় এসেছেন।

এমনটাই জানিয়েছেন শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান। এই চিত্রনায়ক বলেন, শিল্পী সমিতি তাকে (অঞ্জু ঘোষ) ঢাকায় এনেছে। সমিতির আমন্ত্রণেই বৃহস্পতিবার তিনি ঢাকায় আসেন। রাজধানীর বনানীতে অঞ্জু ঘোষের এক আত্মীয় আছেন। তার বাসায় আপাতত উঠেছেন।

জায়েদ খান বলেন, ওখান থেকে শিল্পী সমিতির পক্ষ থেকে অঞ্জু ঘোষকে ঢাকার একটি অভিজাত হোটেলে রাখার ব্যবস্থা করছি। আগামী রোববার (৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরের পর শিল্পী সমিতিতে তিনি গণমাধ্যমের সাথে কথা বলবেন। জানাবেন কেন ঢাকা ছেড়েছিলেন। এতদিন কীভাবে কেটেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, অঞ্জু ঘোষ এ যাত্রায় তিন থেকে চারদিন ঢাকায় থাকবেন। তারপর ফিরে যাবেন কলকাতায়।

জায়েদ খান জানান, অঞ্জু ঘোষ এদেশে চলচ্চিত্র প্রযোজনা করবেন। তিনি এমন ইচ্ছে পোষণ করেছেন। এসব বিষয়েও রোববার তিনি গণমাধ্যমে কথা বলবেন। পাশাপাশি শিল্পী সমিতির পক্ষ থেকে গুণী এই শিল্পীকে সংবর্ধনাও দেয়া হবে। জায়েদ খান বলেন, তিনি পুরোপুরি সুস্থ আছেন। আজ (শুক্রবার) দুপুরে তার সঙ্গে আমি দেখা করেছি।

জায়েদ আরো বলেন, ‘আমাদের কমিটি শিল্পী সমিতির দায়িত্ব নেয়ার পর থেকে শিল্পীদের কল্যাণার্থে নানা রকম উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। এরমধ্যে অন্যতম হচ্ছে পুরনো খ্যাতনাম শিল্পীদের সাথে এফডিসির যোগাযোগ বৃদ্ধি করা। আমরা সেই কাজটি নিয়মিত করার চেষ্টা করছি। অঞ্জু ঘোষ  আশির দশকের শেষ এবং নম্বইয়ের দশকের শুরুতে বাংলাদেশের তরুণদের মনের রাণী ছিলেন। কিন্তু দীর্ঘদিন তার সাথে আমাদের কোন যোগাযোগ না থাকায় একটা দূরত্ব তৈরী হয়েছিল। আমরা সেই দূরত্ব দূর করার চেষ্টা করছি মাত্র।’ 

অঞ্জুর প্রকৃত নাম অঞ্জলি ঘোষ। ফরিদপুরের ভাঙ্গায় তার জন্ম। ঢাকাই চলচ্চিত্রের একসময়ের তুমুল জনপ্রিয় এই নায়িকা অঞ্জু ঘোষ এখন কলকাতাবাসী। সেখানেই নিজে ফ্ল্যাট কিনেছেন। এছাড়া অঞ্জু কলকাতার বিশ্বভারতী যাত্রা পালাতেও নিয়মিত অভিনয় করেন। ১৯৯৬ সালে মনের ভেতর এক অজানা কষ্ট নিয়ে বাংলাদেশ ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন অঞ্জু। তারপর থেকেই কলকাতাতেই তার নিবাস।

বাংলাদেশে তার উল্লেখ্যযোগ্য ছবিগুলোর মধ্যে রয়েছে ‘বড় ভালো লোক ছিলো’, ‘আবে হায়াত’, ‘প্রাণ সজনী’, ‘ধন দৌলত’, ‘চন্দন দ্বীপের রাজকন্যা’, ‘রক্তের বন্দি’, ‘আওলাদ’, ‘চন্দনা ডাকু’, ‘মর্যাদা’, ‘নিয়ত’, ‘দায়ী কে’, ‘কুসুমপুরের কদম আলী’, ‘অবরোধ’, ‘শিকার’, ‘রঙ্গিন নবাব সিরাজউদ্দৌলা’, ‘চোর ডাকাত পুলিশ’, ‘শঙ্খমালা’, ‘আদেশ’, ‘আয়না বিবির পালা’, ‘এই নিয়ে সংসার’, ‘গাড়ীয়াল ভাই’, ‘প্রেম যমুনা’ ইত্যাদি।


আরো সংবাদ




iptv al Epoksi boya epoksi zemin kaplama Daftar Situs Agen Judi Bola Net Online Terpercaya Resmi

Hacklink

instagram takipçi satın al ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme

instagram takipçi satın al