১৬ আগস্ট ২০১৮

'হিন্দু সন্ত্রাস' : বিপাকে 'দেশী গার্ল' প্রিয়াঙ্কা

'হিন্দু সন্ত্রাস' : বিপাকে 'দেশী গার্ল' প্রিয়াঙ্কা - ছবি : সংগৃহীত

হলিউডের পাট চুকিয়ে ভারতে ফেরার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। কিন্তু এর মধ্যেই নয়া বিতর্কে জড়ালেন অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। এবার নেটদুনিয়ায় তীব্র কটাক্ষের শিকার হতে হলো ‘দেশি গার্ল’কে। ‘কোয়ান্টিকো’-র সাম্প্রতিক সিরিজের জন্য তাকে কাঠগড়ায় দাঁড় করালেন নেটিজেনরা। ‘হিন্দু সন্ত্রাস’ দেখিয়ে বিপাকে টেলিভিশন সিরিজের প্রযোজনা সংস্থা এবিসি-ও। ক্ষমা চেয়ে বিবৃতি দিতে হল মার্কিন মুলুকের সংস্থাকে।

‘কোয়ান্টিকো’-র তৃতীয় মরশুম চলছে। সম্প্রতি তার এপিসোড আমেরিকান টেলিভিশনে সম্প্রচারিত হয়েছে। যেখানে দেখানো হয়েছে মুখ্য চরিত্র অ্যালেক্স প্যারিস (প্রিয়াঙ্কা চোপড়া) ম্যানহাটনের ওপর পরমাণু হামলার পরিকল্পনা করছে। এর দায় পাকিস্তানের উপর চাপানোই তার লক্ষ্য। ইন্দো-পাকিস্তান সামিটের আগেই এই চেষ্টা করে অ্যালেক্স। এই বিষয়টিকেই ‘হিন্দু সন্ত্রাস’ আখ্যা দেয়া হয়েছে। আর এতেই আপত্তি তুলেছেন নেটিজেনরা। প্রিয়াঙ্কাকে একহাত নিয়েছেন অনেকে। এমন চিত্রনাট্যে তিনি কীভাবে সায় দিলেন? তাতে অভিনয়ও করলেন? এর জন্য তার লজ্জা হওয়া উচিত বলে মনে করেন অনেকে।

ঘটনায় প্রিয়াঙ্কার পক্ষ থেকে প্রতিক্রিয়া এখন পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। তবে প্রযোজনা সংস্থা এবিসি-র পক্ষ থেকে ক্ষমা চাওয়া হয়েছে। পাশাপাশি জানানো হয়েছে, টেলিভিশন সিরিজের চিত্রনাট্যের সঙ্গে প্রিয়াঙ্কার কোনো যোগাযোগ নেই। তিনি কেবল অভিনয় করেছেন মাত্র। তাই তাকে যেন আক্রমণের নিশানা না হতে হয়।


আচমকা নিজের নাম পালটে ফেললেন প্রীতি জিন্টা!

দুই বছর হতে চলল বিয়ে করেছেন। বলিউডের নায়িকার তুলনায় এখন ‘কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব’-এর মালিকের ভূমিকাতেই বেশি দেখা যায় তাকে। তবে সিনেমা কিংবা ক্রিকেট নয়, সম্প্রতি অন্য এক কারণে সংবাদের শিরোনামে উঠে এলো প্রীতি জিন্টার নাম। কারণ আচমকা নিজের নাম পালটে ফেললেন বলিউড অভিনেত্রী। টুইটারে ফলাও করে সেকথা ঘোষণাও করেছেন তিনি।

খুব বেশি বদল নিজের নামে করেননি প্রীতি। কেবল নিজের নাম ও পদবীর মাঝে ‘G’ শব্দটি যোগ করেছেন। ২০১৬ সালের ২৯ ফেব্রুয়ারি আমেরিকান প্রেমিক জেন গুডেনাফকে বিয়ে করেন প্রীতি। তার নামের আদ্যাক্ষরই নিজের নামে যুক্ত করেছেন বলিউড তারকা। নিজের নামের এই পরিবর্তনের কথা সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে নায়িকা লিখেছেন, বিয়ের পরই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তিনি। এই একটি ‘G’-ই তার পক্ষে যথেষ্ট।

কিছু দিন আগেই নাম পরিবর্তন করেছিলেন সোনম কাপুরও। বিয়ের পরই স্বামী আনন্দ আহুজার পদবী ব্যবহার করেছেন তিনি। এ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় নায়িকাকে কটাক্ষের শিকার হতে হয়। তবে স্ত্রীর সিদ্ধান্তকে প্রকাশ্যে স্বাগত জানান আনন্দ। সোনমের মতো তিনিও সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের নাম পরিবর্তন করে নেন। কিন্তু বিয়ের দুই বছর পর প্রীতির কেন আচমকা নাম পরিবর্তনের প্রয়োজন পড়ল? শোনা যাচ্ছে, বিয়ের এত বছর পরও স্বামীর প্রেমে হাবুডুবু খাচ্ছেন প্রীতি। তাই এভাবেই নিজের ভালোবাসা জাহির করেছেন তিনি। অবশ্য এর জন্য নায়িকাকে এখন পর্যন্ত কোনো কটাক্ষের স্বীকার হতে হয়নি। বরং তার এ সিদ্ধান্তকে অনেকেই স্বাগত জানিয়েছেন।


আরো সংবাদ