০৬ ডিসেম্বর ২০১৯

প্রত্যাবাসনের তালিকাভুক্ত রোহিঙ্গাদের সাক্ষাৎকার শুরু

প্রত্যাবাসনের জন্য তৈরি পলিথিনের ঘর ও ঘাট - ছবি : নয়া দিগন্ত

প্রত্যাবাসনের তালিকায় নাম থাকা রোহিঙ্গাদের সাক্ষাৎকারের জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। এরই অংশ হিসেবে আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টা থেকে কক্সবাজার টেকনাফের শালবাগান রোহিঙ্গা শিবিরে এই সাক্ষাৎকার পর্ব শুরু হয়েছে। ইউএনএইচসিআর এবং শরণার্থী, ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনারের প্রতিনিধিরা ক্যাম্পে ক্যাম্পে গিয়ে এসব রোহিঙ্গাদের সাক্ষাৎ নিচ্ছেন। এসময় প্রত্যাবাসনের বিষয়ে তাদের বোঝানো হচ্ছে।

টেকনাফের জাদিমোরা শালবাগান রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ইনচার্জ মোহাম্মদ খালেদ হোসেন জানিয়েছেন, ‘প্রত্যাবাসনের তালিকায় নাম থাকা রোহিঙ্গাদের সাক্ষাৎকার নেয়া হচ্ছে। এজন্য ক্যাম্প ইনচার্জের অফিসের পাশে বেশ কয়েকটি প্লাস্টিকের ঘর তৈরি করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে ৩ হাজার ৫৪০ জনের সাক্ষাৎকার নেয়া হবে।

২২ আগস্ট প্রত্যাবাসনের জন্য ৩ হাজার ৫৪০ জন রোহিঙ্গাকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে। এজন্য কাজ করছে জাতিসঙ্ঘের শরণার্থীবিষয়ক সংস্থা ‘ইউএনএইচসিআর’ এবং শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনারের (আরআরআরসি) কার্যালয়।

রোহিঙ্গাদের সাথে কথা বলে জানা যায়, নিজ জন্মভূমি মিয়ানমারের রাখাইনে ফিরতে প্রস্তুত রয়েছে তারা। তবে নাগরিকত্ব প্রদান, নিজ ভিটে-জমি ফিরিয়ে দেয়া, মিয়ানমারে আটককৃতদের মুক্তি, হত্যা, গণধর্ষণ ও বাড়িঘরে অগ্নিসংযোগের বিচারসহ তাদের অধিকার ফিরিয়ে দিলেই ফিরে যাবে এমন অভিমত রোহিঙ্গাদের।

স্বেচ্ছায় যারা মিয়ানমারে যেতে ইচ্ছুক তাদের প্রত্যাবাস করা হবে। জোর করে কাউকে পাঠানো হবে না বলে কর্মকর্তারা আশ^স্ত করেছেন।

এ ছাড়া ক্যাম্প ইনচার্জের পক্ষ থেকে লিফলেট বিতরণ করা হচ্ছে। এসব লিফলেট বার্মিজ ভাষায় লিখা রয়েছে। লিফলেটসমূহে প্রত্যাবাসনের পর এনভিসি কার্ডের মাধ্যমে ছয় মাস পরে নাগরিকত্বের জন্য আবেদনের কথা বলা রয়েছে জানান রোহিঙ্গারা।

ক্যাম্প ২৭ এর চেয়ারম্যান আব্দু রহমান বলেন বশর বলেন, নিজ জন্মভূমিতে ফেরত যাওয়ার জন্য আমরা প্রস্তুত রয়েছি। হঠাৎ করে বলা নেই, বার্তা নেই প্রত্যাবাসনের বার্তা পেয়ে আমরা হতাশ ও ক্ষুব্দ।

একই ক্যাম্পের ব্লক এ’র মাঝি মো: নুর বলেন, সিআইসি ক্যাম্পের আশেপাশে কিছু ঘর তৈরী করা হয়েছে। যারা মিয়ানমারে ফেরত যাবে তাদেরকে এ ঘরে রাখানো হবে। সেখান থেকে মিয়ানমারে ফেরত পাঠানো হবে। মিয়ানমার সরকার ওখানেও ক্যাম্পে রেখে তদন্ত সাপেক্ষে কোথায় রাখবে সিদ্ধান্ত নিবে। কিন্তু সিদ্ধান্ত এসব এখনো কেউ জানে না। কিন্তু এতদিন ধরে আমরা ন্যাশনাল ভেরিফিকেশন কার্ড (এনভিসি) কার্ডের বিপক্ষে ছিলাম। এখন প্রত্যাবসন কবরার সময় এনভিসি কার্ড ধরিয়ে দেয়া হবে। এটা রোহিঙ্গারা মেনে নেবে না। এভাবে কোনো রোহিঙ্গা ফেরত যাবে বলে এই মাঝির মনে হয় না।এভাবে নিয়ে যাওয়ার পক্ষে আমাদের মতো থাকতে পারে না।

নয়াপাড়া শালবাগান ক্যাম্পের (নং-২৬) রোহিঙ্গা হেড মাঝি বলেন, সম্প্রতি মিয়ানমারের এক প্রতিনিধি দল রোহিঙ্গা শিবিরে পরিদর্শনে এসেছিলেন। তাদের সাথে আমাদের কথা হয়। আমরা চারটি শর্ত ছুড়ে দিয়েছিলাম। এ ছাড়া আমাদের সাথে ডায়ালগ করার কথা রয়েছে। এসব বিষয় সম্পন্ন না হতে রোহিঙ্গারা ফিরবে না বলেও জানান তিনি।

একাধিক রোহিঙ্গা নেতা ও সাধারণ রোহিঙ্গারা জানান, তাদের পক্ষ থেকে পুনরায় তাদের ন্যায্য অধিকারের বিষয়গুলো তুলে ধরা হয়েছে। এরমধ্যে নাগরিকত্ব প্রদান, নিজ ভিটে জমি ফিরিয়ে দেয়া, মিয়ানমারে আটককৃতদের মুক্তি, হত্যা, গণধর্ষণ ও বাড়িঘরে অগ্নিসংযোগের বিচারের দাবি রয়েছে। এসব দাবি পূরণ হলে স্বেচ্ছায় মিয়ানমারে ফিরবে রোহিঙ্গারা।

দেশ বিদেশ থেকে প্রত্যাবাসন বিরোধী একটি চক্র (কতিপয় রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী ও সরকারি বিরোধী পক্ষ) ভয়েস কল ও অনলাইন রেডিওর মাধ্যমে কার্যক্রম পরিচালনা করছে বলে জানা গেছে। এমনি একটি অডিও বার্তা এক এনজিওর কর্মকর্তার কাছে রয়েছে। সেখানে জানা যায়, রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনবিরোধী নানা কথা বলতে শোনা গেছে।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালে ২৫ আগস্ট রাখাইনের ৩০টি নিরাপত্তা চৌকিতে একযোগে হামলার ঘটনা ঘটে। প্রতিক্রিয়ায় মিয়ানমার সেনাবাহিনী রোহিঙ্গাদের ওপর নিপীড়ন শুরু করে। ফলে প্রাণ বাঁচাতে প্রায় সাত লাখ রোহিঙ্গা সীমান্ত পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশে এসে আশ্রয় নেয়। পুরনোসহ উখিয়া-টেকনাফের ৩০টি শিবিরে এখন ১১ লাখের বেশি রোহিঙ্গা অবস্থান করছে। তবে জাতিসঙ্ঘের তথ্য অনুযায়ী, এই সংখ্যা ১১ লাখ ৮৫ হাজার ৫৫৭। তাদের মধ্যে নারী ও শিশুর সংখ্যাই বেশি।

দেখুন:

আরো সংবাদ

পর্দা নামলো নাগরিক নাট্য সম্প্রদায়ের নতুনের উৎসবের চার গুণীজনকে সম্মাননা না’গঞ্জে ল ইয়ার্স কাউন্সিল : সভাপতি আবদুল কাদের সেক্রেটারি মাইন উদ্দিন জানুয়ারিতে পরীক্ষামূলক পণ্য ট্রান্সশিপমেন্ট করবে ভারত ১২ ডিসেম্বরের আগ পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির সিদ্ধান্ত জাগপার জাতীয় সম্মেলন আজ সিদ্ধেশ্বরী থেকে উদ্ধার হওয়া লাশটি স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটির ছাত্রী রুম্পার কায়সার কামালকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ সরকারের তিন মন্ত্রণালয়সহ ৭ জনকে বিবাদি করে মেয়র আইভীর রিট টঙ্গীতে স্পিনিং মিলে অগ্নিকাণ্ডে ব্যাপক ক্ষতি গণতন্ত্রের ইতিহাসে হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী উজ্জ্বল নক্ষত্র উদ্ধার হওয়া লাশটি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর

সকল




Paykwik Paykasa
Paykwik