১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

বাস-সিএনজি সংঘর্ষে একই পরিবারের ৬ জনসহ নিহত ৮

কুমিল্লায় বাসের সঙ্গে সিএনজি চালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে একই পরিবারের ৬ জন, হোটেল বয় এবং সিএনজি চালকসহ ৮ নিহত হয়েছে। দুর্ঘটনায় আহত হয় চারজন বাস যাত্রীসহ পাঁচজন। রোববার সোয়া ১২টার দিকে কুমিল্লা-নোয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড়কের লালমাই উপজেলার জামতলী এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার ঘোড়াময়দান গ্রামের মৃত আবদুর জব্বারের ছেলে জসিম উদ্দিন (৪৫), জসিম উদ্দিনের মা সাকিনা বেগম (৭০), স্ত্রী সেলিনা বেগম (৪০), ছেলে শিপন (২৩), ছেলে হৃদয় (১৫), মেয়ে নিপু আক্তার (১৩) ও একই গ্রামের হোসেন মিয়ার ছেলে সায়মন (১৫)। এছাড়া সিএনজি চালিত অটোরিকশার চালক একই উপজেলার করপাতি গ্রামের মৃত জিতু মিয়ার ছেলে জামাল হোসেন (৩০) নিহত হয়। জসিমের পরিবারের একমাত্র জীবিত সদস্য রিফাতকে (১০) উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

জসিম উদ্দিনের ভাই মো. মহসিন জানান, জসিম উদ্দিন তার মা, স্ত্রী এবং ছেলে-মেয়ে নিয়ে কুমিল্লা নগরীর গাংচরে থাকতেন। পাশের গোয়াল পট্টিতে রেস্টুরেন্টের ব্যবসা করতেন। কুরবানির ঈদের ছুটিতে স্বপরিবারে বাড়িতে আসেন। ঈদের ছুটি শেষে সবাই মিলে সিএনজি অটোরিকশা যোগে কুমিল্লা যাচ্ছিলেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(দক্ষিণ) আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, ঢাকার সায়দাবাদ থেকে ছেড়ে আসে লাকসামগামী তিশা বাস সার্ভিসের গাড়িটি লালমাই উপজেলার জামতলীতে আসলে একটি মাইক্রোবাসকে বাঁচাতে গিয়ে লেন পরিবর্তন করে বিপরীত দিক থেকে আসা সিএনজি চালিত অটোরিকশার উপর চাপা দেয়। এসময় মুখোমুখি সংঘর্ষের সিএনজি অটো রিকশাটি দুমড়ে মুচড়ে যায়।


আরো সংবাদ