১৫ অক্টোবর ২০১৯

বিজয়নগরে নৌকার এজেন্টদের বিরুদ্ধে ইভিএমের সরঞ্জামাদি লুটে নেয়ার অভিযোগ

-

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আজ মঙ্গলবার সকাল থেকে শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ চললেও দুপুর ১২টার দিকে একটি ভোটকেন্দ্র থেকে ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) সরঞ্জামাদি লুটে নেয়া অভিযোগ উঠেছে নৌকা প্রতীকের এজন্টদের বিরুদ্ধে।

উপজেলার চান্দুরা ইউনিয়নের সাতগাঁও মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, ইভিএমে শান্তিপূর্ণ ভোট চললেও সকাল থেকেই বিভিন্ন কেন্দ্রের বাইরে অবস্থান করে নৌকার সমর্থকরা সাধারণ ভোটারদের ভয়-ভীতি দেখিয়ে নৌকায় ভোট দেয়ানোর চেষ্টা চালাচ্ছিল বলে অভিযোগ উঠে।

চান্দুরা ইউনিয়নের সাতগাঁও মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের অন্যান্য প্রতীকের এজেন্টরা জানান, বাইরে থেকে নৌকার সমর্থকদের চাপের পরও স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী নাছিমা মুকাই আলীর ঘোড়া প্রতীকে বেশি ভোট পড়ছে বুঝতে পেরে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী তানভীর ভূঁইয়ার নৌকা প্রতীকের এজেন্টরা হঠাৎ করে আক্রমণ চালায়। এ সময় তারা কয়েকটি মনিটর লুটে নিয়ে যায় এবং কয়েকজনকে মারধর করে। এ ঘটনায় প্রায় এক ঘণ্টা ভোটগ্রহণ বন্ধ ছিল।

সাতগাঁও মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা নূর মাহমুদ জানান, দুপুরে হঠাৎ করে কয়েকজন বুথে আক্রমণ করে। এ সময় তারা ইভিএমের সাথে সংযুক্ত একটি মনিটর ভাঙচুর করে এবং চারটি মনিটর লুটে নিয়ে যায়।

খবর পেয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খাঁন, পুলিশ সুপার আনোয়ার হোসেন খান, বিজিবির ২৫ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মুহাম্মদ গোলাম কবির ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো: জিল্লুর রহমান ওই কেন্দ্র পরিদর্শন করেন। তবে এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বিকেল তিনটা) লুট হওয়া নেয়া যন্ত্রাংশ উদ্ধা করা সম্ভব হয়নি।


আরো সংবাদ




astropay bozdurmak istiyorum