১৯ জুন ২০১৯

আবারো কিশোর গ্যাং ঈগল বাহিনীর ছুরিকাঘাতে স্কুল ছাত্র খুন

কুমিল্লা নগরীতে কিশোর সন্ত্রাসী গ্রুপ ঈগল বাহিনীর ছুরিকাঘাতে আবারো খুনের ঘটনা ঘটেছে। সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে নগরীর মোগলটুলি এলাকার কর্ণফুলী পেপার হাউজের ছুরিকাঘাতে আজমাইন আদিল (১৬) নামের এক স্কুল ছাত্র নিহত হন।

নিহত আদিল নগরীর ঝাউতলা এলাকার আবদুস সাত্তারের ছেলে এবং সে এ বছর নগরীর মডার্ণ হাই স্কুল থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে জিপিএ ৩.৬৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছিল। হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কোতয়ালী মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো: সালাহ উদ্দিন।

তিনি আরও জানান, হত্যাকাণ্ডের নিশ্চিত কারণ এখনো জানা সম্ভব হয়নি। ঘটনাস্থল ও কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে গিয়ে আমরা নিহতের সহপাঠি এবং আত্মীয়-স্বজনদের সাথে কথা বলে হত্যাকাণ্ডের কারণ সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়ার চেষ্টা করছি।

পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদিলের কয়েকজন সহপাঠিকে থানায় নিয়ে গেছে বলে জানা গেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক নিহতের একাধিক সহপাঠি জানান, ঈগল গ্রুপের ৪ কিশোর সন্ত্রাসী ধারালো অস্ত্র নিয়ে অতর্কিতভাবে আদিলের মাথা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। তাকে উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

রাত সাড়ে ১১টায় কুমেক হাসপাতালে আসেন কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) তানভীর সালেহীন ইমন ও কোতয়ালী মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ আবু ছালাম মিয়া। এ সময় তারা সাংবাদিকদের জানান, ‘ঘটনার নেপথ্যের কারণ ও ঘাতকদের গ্রেফতারে পুলিশের একাধিক টিম মাঠে রয়েছে, শিগগিরই তাদের আটক করা সম্ভব হবে।

এর আগে গত ২১ এপ্রিল শবে বরাতের রাতে নগরীতে কিশোর সন্ত্রাসীদের ছুরিকাঘাতে কুমিল্লা মডার্ন হাই স্কুলের ৮ম শ্রেণির ছাত্র মুমতাহিন হাসান মিরণ নিহত হয়েছিল। পরে এ ঘটনায় দায়ের করা হত্যা মামলায় দুই আসামি মো. আমিন ও সৌরভ হোসেন পল্টুকে চট্টগ্রাম থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।


আরো সংবাদ