২৪ মে ২০১৯

মরণ ফাঁদে আটকে গেল মাদক বিক্রেতা

মরণ ফাঁদে আটকে গেল মাদক বিক্রেতা - সংগৃহীত

গোপন সংবাদ পেয়ে পুলিশ ধরতে গিয়েছিলেন মাদক বিক্রেতাকে। টের পেয়ে সেই মাদক বিক্রেতা পালানোর চেষ্টা করে। এই চেষ্টাই তাকে নিয়ে যায় মৃত্যুর দুয়ারে। শেষ পর্যন্ত তাকে আটকের চেয়ে পুলিশের প্রধান কাজ হয়ে দাড়ায় তার জীবনটা বাঁচানোর। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১০টায় চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলার উত্তর ঠাকুর বাজারে।

কাজী খোকন প্রকাশ নামের ওই মাদক বিক্রেতা দুই বিল্ডিংয়ের ফাঁকে লুকাতে গিয়ে আটকে যায় মরণ ফাঁদে। স্থানীয়রা তাকে সিস্টেম খোকন নামে চেনে।

ঘটনার দিন রাতে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (কচুয়া সারকেল) মো. শেখ রাসেলের নেতৃত্বে মাদকবিরোধী অভিযান চালায়। এ সময় পৌরসভার পূর্ব উপলতা কাজী বাড়ির খোকন ওরফে সিষ্টেম খোকন (৫২) পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে নিজেকে লুকাতে ঠাকুর বাজারের দুই বিল্ডিংয়ের ভেতরে আশ্রয় নেন।

প্রথমে ঢুকতে পারলেও পরে আর বের হতে পারছিলেন না সিস্টেম খোকন। মাঝখানে মরণ ফাঁদে আটকে যান তিনি। পুলিশ তাকে উদ্ধারে ব্যর্থ হয়ে ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়। আটকে যাওয়া খোকনকে বাঁচাতে ছুটে আসে স্থানীয় ফায়ার সার্ভিস।

এদিকে আটকেপড়া মাদক বিক্রেতার শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকলে দেয়ালে ড্রিল করে তাকে খাওয়ার পানি এবং চার্জার ফ্যানের মাধ্যমে বাতাস দেয়া হতে থাকে।

আড়াই ঘণ্টার চেষ্টায় শাহরাস্তি ও হাজীগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট তাকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। উদ্ধারের সময় সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. শেখ রাসেল, অফিসার ইনচার্জ মো. শাহ আলমসহ পুলিশের অন্যান্য অফিসার উপস্থিত ছিলেন।

উদ্ধারের পর রাত দেড়টায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

এ ব্যাপারে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. শেখ রাসেল বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঘটনাস্থলে যাই এবং ওই বিল্ডিংয়ের সম্ভাব্য সকল কক্ষ তল্লাশি করি। একপর্যায়ে খোকনকে দুই বিল্ডিংয়ের ফাঁকে আটকে থাকতে দেখি এবং প্রায় আড়াই ঘণ্টা চেষ্টা করে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট যৌথভাবে উদ্ধার অভিযান চালিয়ে তাকে উদ্ধার করে।

সিস্টেম খোকনের বিরুদ্ধে মাদকের নিয়মিত মামলা রুজু করা হবে বলে নিশ্চিত করেছেন এসপি মো. শেখ রাসেল।


আরো সংবাদ

Instagram Web Viewer
agario agario - agario