১৫ নভেম্বর ২০১৯

টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ রোহিঙ্গাসহ নিহত ৩

টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ রোহিঙ্গাসহ নিহত ৩ - নয়া দিগন্ত

টেকনাফের কেরুনতলী সীমান্তে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে দুই রোহিঙ্গা নিহত হয়েছে। নিহত দুই রোহিঙ্গাকে ইয়াবা কারবারী বলে দাবি করা হয়েছে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ২০ হাজার ইয়াবা ও ধারালো কিরিচসহ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। সোমবার সকাল ৬টায় টেকনাফের করুনতলী মৃত আবুল কাশেমের বাঁশবাগানে এ ঘটনা ঘটে।

বন্দুকযুদ্ধে নিহতরা হলেন- উখিয়া উপজেলার পালংখালী ইউনিয়নের থাইংখালী এলাকার ১৩নং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের শামসুল আলমের ছেলে সাইফুল ইসলাম (২১) ও ১৯নং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের নবী হোসেনের ছেলে ফারুক হোসেন (২৫)। তারা মিয়নামরে সৃষ্ট সহিংসতার পরে বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছিলেন।

হোয়াইক্যং পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই দীপংকর রায় জানিয়েছেন, উখিয়া উপজেলার পালংখালী এলাকায় বিজিবির সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে দুই রোহিঙ্গা নিহত হয়। পরে বিজিবির পক্ষ থেকে পুলিশকে এই সংবাদ জানানো হলে তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ ঘটনাস্থল উপস্থিত হয়। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে দুইজনের গুলিবিদ্ধ লাশ ও ধারালো কিরিচসহ কিছু দেশীয় অস্ত্র ও ২ কার্ড ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। গুলিবিদ্ধদের টেকনাফ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। পরে ময়নাতদন্তের জন্য নিহতদের লাশ কক্সবাজার মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

অপরদিকে টেকনাফে র‌্যাবের সাথে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মহিউদ্দিন (২৬) নামে এক মাদক কারবারী নিহত হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে ১০ হাজার ইয়াবা, একটি এলজি, তিন রাউন্ড কার্টুজ উদ্ধার করা হয়। রোববার ভোরে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিনড্রাইভ সড়কের বাহারছড়া পুরানপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত মহিউদ্দিন বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার কম্বানিয় গ্রামের সিরাজুল ইসলামের পুত্র।

নবগঠিত র‌্যাব-১৫ এর উপ-অধিনায়ক মেজর মোহাম্মদ রবিউল ইসলাম জানান, মেরিনড্রাইভ সড়কের বাহারছড়া পুরানপাড়া এলাকায় মাদক বিরোধী অভিযানের সময় র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করে মাদক কারবারীরা। এসময় র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালালে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। একপর্যায়ে মাদক কারবারীরা পালিয়ে গেলে ঘটনাস্থলে তল্লাশি করে গুলিবিদ্ধ একজনকে নিহত ও ১০ হাজার ইয়াবা, একটি এলজি, তিন রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করা হয়। পরে নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

উখিয়ায় সাজাপ্রাপ্ত ২ ইয়াবাকারবারী আটক

এদিকে উখিয়ার জালিয়াপালং ইউনিয়নের পশ্চিম পাইন্যাশিয়া গ্রামের রশিদ আহম্মদের ছেলে শীর্ষ ইয়াবা কারবারী আমির হোসেনকে পুলিশ রোববার মধ্যরাতে বাংলা জার্মান সম্প্রীতি অফিস এলাকা থেকে আটক করেছে।

উখিয়া থানার এসআই প্রভাত কর্মকার জানান, আদালত তাকে ইয়াবা পাচার মামলায় ৬ মাসের সাজা প্রদান করেছে। আদালত থেকে জামিনে বেরিয়ে এসে সে আত্মগোপন করে। একই সময়ে পুলিশ রুমখাঁ হাতিরঘোনা এলাকায় অভিযান চালিয়ে ইয়াবা কারবারী রশিদ আহম্মদের ছেলে বেলাল উদ্দিনকে আটক করা হয় বলে জানিয়েছেন উখিয়া থানার ওসি মোঃ আবুল খায়ের।

বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে সৌদি প্রবাসীর মৃত্যু

এদিকে উখিয়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক সৌদি প্রবাসী মারা গেছেন। নিহত ব্যক্তির নাম মোঃ রফিক উদ্দিন(৪০)। এসময় গুরুতর আহত তার বাবা হাসন আলী(৭৫) প্রকাশ লালু বৈদ্ধকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
রোববার সন্ধ্যায় ৬টার দিকে নিজ বাড়ি রাজাপালং ইউনিয়নের পশ্চিম গয়ালমারা গ্রামে এ মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে।

উখিয়া থানার ওসি মোঃ আবুল খায়ের ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।


আরো সংবাদ

আগুন নেভাতে সাহসী ভূমিকা রাখা ১৬ ব্যক্তিকে সংবর্ধনা দিলো হোটেল কস্তুরি ঘুষ সন্ত্রাস মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে বাংলাদেশ-নেপাল যোগাযোগ ও বাণিজ্য বাড়ানোর পরামর্শ রাষ্ট্রপতির মেহেদির রঙ মুছতে না মুছতেই... সর্বদা আল্লাহর জিকিরে থাকতে হবে : আল্লামা শফী খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা অত্যন্ত খারাপ, তাকে জামিনে মুক্তি দিন রোহিঙ্গা নিপীড়নের অভিযোগ তদন্তের আদেশ দিয়েছে আন্তর্জাতিক আদালত ৩০ বছর পর সগিরা হত্যার রহস্য উদঘাটন : চার আসামি গ্রেফতার ট্রেন দুর্ঘটনার পেছনে কোনো ষড়যন্ত্র থাকলে সরকার খতিয়ে দেখবে : প্রধানমন্ত্রী অর্থমন্ত্রীর পরিবারের আয়কর ৭ কোটি ৬ লাখ ৭৮ হাজার টাকা না’গঞ্জে আদালত চত্বরে বাদি ও আসামিপক্ষের মারামারি

সকল