২০ আগস্ট ২০১৯

জ্বিন তাড়ানো নামে ৪ সন্তানের জননীর গায়ে আগুন দিল শিশু ওঝা

ভোলায় এক ওঝার অপচিকিৎসায় প্রাণ যেতে বসেছে জোসনা বেগম নামের ৪৫ বছর বয়সী এক গৃহবধুর। জ্বীন তাড়ানোর নামে গায়ে কেরোসিন দিয়ে ঝাড়-ফুঁকের সময় আগুন লেগে শরীরের প্রায় ৫০ ভাগ পুড়ে গেছে। অগ্নিদগ্ধ ওই গৃহবধুকে ভোলা সদর হাসপাতাল থেকে প্রথমিক চিকিৎসা শেষে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়।

ভোলা সদর থানার ওসি মো. ছগির মিঞা জানিয়েছেন, এ ঘটনায় ২ অভিযুক্তকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। জড়িত অন্যদের আটকে অভিযানে চলছে। ভোলা সদর উপজেলার পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়নের বাঘারহাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এই গ্রামে প্রবাসী জসীম এর স্ত্রী জোসনা বেগমকে গত বৃহস্পতিবার রাতে জ্বীন তাড়ানোর নামে গায়ে কেরোসিন দিয়ে ঝাড়-ফুঁকের সময় আগুন ধরিয়ে দেয় শিশু ওঝা রুনা।

আহতের মা মাহফুজা জানান, কিছুদিন ধরে তার মেয়ে জোসনা বেগম (৪৫) অস্বাভাবিক আচরণ শুরু করে। এটাকে জ্বীনের আছর মনে তারা পাশ্ববর্তী গ্রামের ওঝা বেলায়েত হোসেন ও তার নাতনি শিশু ওঝা খ্যাত রুনা বেগমকে (১৩ বছর বয়সী)কে দেখায়। বৃহস্পতিবার রাতে শিশু ওঝা রুনা বেগম জোসনা বেগমের গায়ে কেরসিন মেখে আগরবাতি ও ধূপ জ্বালিয়ে ঝাড় ফুকের এক পর্যায়ে গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। ডাক চিৎকারে পার্শ্ববর্তী লোকজন ছুটে এসে আগুন নিভিয়ে রাতেই জোসনা বেগমকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করায়। হাসপাতালে আনার আগেই তার শরীরের প্রায় ৫০ ভাগ ঝলসে যায়। সদর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে শুক্রবার দুপুরে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে। এদিকে পুলিশ শুক্রবার বিকালে অভিযান চালিয়ে ওঝা বেলায়েত হোসেন ও তার স্ত্রী অহিদা বেগমকে আটক করেছে।

জোসনা বেগম এর মেয়ে সাথী আক্তার জানায়, আমার মা অসুস্থ থাকায় শিশু খলিফাকে আনা হয়। উনি ঝাড়-ফুকের সময় আগুন লাগিয়ে দেয় আমার মায়ের শরীরে।

এই ঘটনার জন্য দোষী রুনার শাস্তি দাবি করেন তারা। তবে এই ঘটনায় শিশু ওঝা রুনা জড়িত নয় বলে দাবী করছে তার নানা-নানী।

ভোলা সদর থানার ওসি মো. ছগির মিঞা জানিয়েছেন, সদর থানার এসআই সাহবুল জানিয়েছেন, এ ঘটনায় ২ অভিযুক্তকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। জড়িত অন্যদের আটকে অভিযানে চলছে। অগ্নিদগ্ধ জোসনার বাড়ি সদর উপজেলার পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়নের বাঘারহাট এলাকায়। ৪ সন্তানের জননী জোসনার স্বামী মো. জসিম সৌদি প্রবাসী।

 


আরো সংবাদ

প্রত্যাবাসনের তালিকাভুক্ত রোহিঙ্গাদের সাক্ষাৎকার শুরু দুদকের মামলায় তালতলীর সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিন্টু জেলহাজতে মিন্নির জামিন নিয়ে হাইকোর্টের রুল, মামলার তদন্ত কর্মকর্তাকে তলব সিন্ডিকেট করে চামড়ার টাকা লুটপাটে প্রভাবশালীরা জড়িত : গণতান্ত্রিক বাম ঐক্য ৫ দাবি পূরণ হলে মিয়ানমারে ফিরতে রাজি রোহিঙ্গারা কুমিল্লার মামলায় খালেদা জিয়ার জামিনের মেয়াদ বাড়লো এক বছর মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ছাত্রদলের প্রার্থীরা দেশে ফিরে ডেঙ্গুতে মারা গেলেন ডা. রেহানা বেগম এই সরকার পুরোপুরি ব্যর্থ ও প্রতারক : মির্জা ফখরুল শেখ হাসিনার ট্রেনে হামলা : দণ্ডপ্রাপ্তদের আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ কাশ্মিরিদের অধিকার খর্ব হয়েছে, ভারতীয় হিসেবে আর গর্ব করি না : অমর্ত্য সেন

সকল

স্ত্রীর ছলচাতুরীতে ফতুর প্রবাসী স্বামী (৩৬৭২৪)পুলিশ হেফাজতে বাসর রাত কাটলেও ভেঙ্গে গেল বিয়ে (২৩৯০৭)ইমরানকে ‘পেছন থেকে ছুরি মেরেছেন’ মোদি (২১৩৩১)ভারতের পরমাণু অস্ত্রভাণ্ডার এখন ফ্যাসিস্ট মোদির হাতে : ইমরান খানের হুঁশিয়ারি (১৭৪৫৮)সন্ধ্যায় বাবার কিনে দেয়া মোটর সাইকেল সকালে কেড়ে নিল ছেলের প্রাণ (১৪৯৫২)নুরকে ‘খালেদা জিয়ার মতো পরিণতির’ হুমকি (১৩৯০০)স্বামীর সাথে ঘুরতে বেরিয়ে ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ, ধর্ষক আটক (১২৫৭৯)সীমান্তে ফের পাল্টাপাল্টি গুলি, দুই ভারতীয় সেনাসহ নিহত ৪ (১১৩১৮)ব্যাগে টাকা আছে ভেবে শারমিনকে হত্যা করে রিকশা চালক রাজু উড়াও (১০৯৫০)গ্রীনল্যান্ড বিক্রির প্রস্তাব হাস্যকর : ড্যানিশ প্রধানমন্ত্রী (১০৫২৩)



bedava internet