২২ মার্চ ২০১৯

নারী আসনে এমপি হতে চান যুবলীগের কেন্দ্রীয় নেত্রী শেফালী

জাকিয়া সুলতানা শেফালী - সংগৃহীত

সংসদ নির্বাচন এবং সরকার গঠনের পর এবার আলোচনায় উঠে আসছে সংসদে সংরক্ষিত নারী (মহিলা) আসনে কারা হচ্ছেন নারী সংসদ সদস্য। ৫০টি আসনের বিপরীতে প্রত্যেক জেলায়ই রয়েছে একাধিক প্রার্থী রয়েছেন।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রাপ্ত আসন অনুযায়ী সংরক্ষিত ৫০টি আসনের মধ্যে ৪৩টি আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টি ৪টি, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ১টি এবং স্বতন্ত্র ও অন্যান্য দল মিলে ২টি আসন পাবে। তবে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচিত এমপিরা এখনও শপথ নেয়নি। ফলে সংরক্ষিত নারী আসনে তাদের মনোনয়ন দেয়ার সম্ভাবনা খুবই কম।

এদিকে নারী আসনে চাঁদপুর থেকে আলোচনায় আছেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের মহিলা সম্পাদক ও চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য জাকিয়া সুলতানা শেফালী। এক-এগারোর সময় তিনি দলের নেত্রীর মুক্তির জন্য আন্দোলন করেছেন। আন্দোলন করতে গিয়ে তিনি কারাবরণও করেন। এছাড়া ছাত্র জীবন থেকেই তিনি ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত।

চাঁদপুরের ঐতিহ্যবাহী মতলব ডিগ্রী কলেজের ছাত্র-ছাত্রী সংসদে মহিলা বিষয়ক সম্পাদক নির্বাচিত হন। এছাড়া সদ্য সমাপ্ত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন। কিন্তু দলের নেত্রীর নির্দেশে দলের প্রার্থীর পক্ষে সার্বক্ষণিক প্রচার-প্রচারণা চালান।

চাঁদপুর জেলার মতলব উত্তর উপজেলার বেগমপুর গ্রামের বাসিন্দা শেফালীর চাচা প্রয়াত তোফাজ্জল হোসেন মিয়াজী (টি হোসেন নামে অধিক পরিচিত) বৃহত্তর মতলব উপজেলার (এখন মতলব উত্তর ও দক্ষিণ উপজেলা) নির্বাচিত চেয়ারম্যান ছিলেন। পারিবারিকভাবেই রাজনৈতিক আবহে বেড়ে উঠা শেফালী জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়েও ছাত্রলীগের বিভিন্ন দায়িত্ব পালন করেছেন। তার ছোট ভাই পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা। বর্তমানে ডিএমপিতে মিরপুর জোনে দায়িত্ব পালন করছেন।

বর্তমানে যুবলীগের কেন্দ্রিয় কমিটিতে মহিলা সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন শেফালী। তিনি সংরক্ষিত আসনে সংসদ সদস্য হতে পারবেন বলে আশাবাদী।

মতলব বাজারের একজন আওয়ামী লীগ নেতা ও ব্যবসায়ী বলছিলেন, আমাদের নেত্রী (প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা) তৃণমল থেকে আসা নেতৃত্বকে গুরুত্ব দেন। শেফালীও তৃণমূল থেকে সংগ্রাম করে আজকের পর্যায়ে পৌঁছেছে। আমরা আশা করি তিনি সঠিক মূল্যায়ন করবেন। আন্দোলন-সংগ্রামে তার অবদানকে বিবেচনা করবেন।

উল্লেখ্য, একাদশ জাতীয় সংসদ অধিবেশনের প্রথম অধিবেশন আগামী ৩০ জানুয়ারি শুরু হবে। অধিবেশন শুরুর আগেই সংরক্ষিত ৫০ নারী আসনের সদস্যরা নির্বাচিত হতে পারেন। দ্রুতই এ নারী আসনের নির্বাচন এবং মনোনয়ন প্রক্রিয়া শুরু হবে বলে জানা গেছে।


আরো সংবাদ




iptv al Epoksi boya epoksi zemin kaplama Daftar Situs Agen Judi Bola Net Online Terpercaya Resmi

Hacklink

instagram takipçi satın al ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme

instagram takipçi satın al