২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ঢাকার মাদক কারবারি নিহত

অস্ত্র-গুলি ও ইয়াবা উদ্ধার
-

কক্সবাজারের টেকনাফে র‌্যাবের সাথে বন্দুকযুদ্ধে ঢাকা সাভার এলাকার এক মাদক কারবারি নিহত হয়েছে। এসময় ঘটনাস্থল থেকে ৬৮ হাজার ইয়াবা, বিদেশী একটি পিস্তল ও তিন রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

আজ শুক্রবার ভোর রাতে টেকনাফ সদরের পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের সামনে সড়কে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

নিহত আজিজুল হক (৪০) ঢাকা সাভারের হেমায়েতপুর এলাকার আনিসুর রহমানের ছেলে।

র‌্যাব-৭ কক্সবাজার ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার মেজর মো: মেহেদী হাসান জানান, টেকনাফ থেকে মাইক্রোবাসে করে ইয়াবার একটি চালান ঢাকা নেয়ার গোপন সংবাদ পায় র‌্যাব। ওই সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাবের একটি দল টেকনাফে পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের সামনে সড়কে অস্থায়ী তল্লাশি চৌকি বসিয়ে যানবাহনে তল্লাশি করে। এসময় একটি মাইক্রোবাস আসতে দেখে থামানোর নির্দেশ দেয় র‌্যাব। নির্দেশ অমান্য করে মাইক্রোবাসটি না থামিয়ে গাড়ির ভেতর থেকে গুলি চালানো হয়। র‌্যাবও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছোড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই ইয়াবা বিক্রেতা আজিজুর রহমান আজাদ নিহত হয়। ঘটনাস্থল থেকে ৬৮ হাজার ইয়াবা, বিদেশী একটি পিস্তল, তিন রাউন্ড গুলি ও তিনটি গুলির খোসা উদ্ধার করা হয়েছে।

টেকনাফ থানার ওসি রনজিত কুমার বড়ুয়া জানান, আজ সকালে নিহত আজিজুল হকের লাশ টেকনাফ থানায় হস্তান্তর করেছে র‌্যাব। লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে র‌্যাব ৭ এর একটি দল গত ঈদের দিন (বুধবার) দুপুরে টেকনাফের হোয়াইক্ষ্যং আমতলি এলাকায় অভিযান চালিয়ে ইয়াবা ক্রয়-বিক্রয়ের সময় মোহাম্মদ রাসেল (২০) নামে একজনকে ১৯ হাজার ইয়াবাসহ গ্রেফতার করেছে। রাসেল টেকনাফের হ্নীলা বাজার ফুলের ডিল এলাকার মৃত সৈয়দ আলমের পুত্র।


আরো সংবাদ