২২ জুলাই ২০১৮

নির্দলীয় সরকারের অধীনেই নির্বাচন হতে হবে : চরমোনাই পীর

-

চরমোনাইর পীর ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির মাওলানা মুফতি সৈয়দ মোহাম্মদ রেজাউল করীম বলেছেন, এ দেশে নির্বাচন হতে হলে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনেই হতে হবে। নির্দলীয় সরকারের অধীন ছাড়া এ দেশে যতো নির্বাচন হয়েছে সবগুলোই প্রশ্নবিদ্ধ ছিল। তাই আমাদের দাবি নির্দলীয় নিরপেক্ষ সুন্দর পরিবেশে জাতীয় নির্বাচনের। যদি এ দাবি না মানা হয় তবে আমরা আলোচনা পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্ত নেবো সামনের জাতীয় নির্বাচনে অংশগ্রহন করবো কি না। তিনি বলেন, এ সরকারের অধীনে কেমন নির্বাচন হয় দেশবাসী দেখেছে। বিগত তিন সিটি নির্বাচনে ভোট কারচুপি হয়েছে, জাল ভোটের মহড়া হয়েছে।
এ সরকারের অধীনে দেশের মানুষ নিরাপদ নয় দাবি করে তিনি বলেন, দেশে এখন পুলিশি রাজত্ব চলছে। গুম-খুন-ক্রসফায়ারের দেশ এখন এটা। সরকার ও প্রশাসন লুটপাট-ঘুষ-দুর্নীতিতে নিমজ্জিত। এসবের বিরুদ্ধে জাতীয় ঐক্যের ওপর গুরুত্বারোপ করে তিনি বলেন, অন্যায় অবিচারের বিরুদ্ধে কথা বলা ইসলামের অন্যতম নীতি। আর ইসলামী নীতি-আদর্শ বাস্তবায়নের জন্যই আমরা রাজনীতির মাঠে আছি। এ নীতি আদর্শের প্রতি যারা একমত থাকবে তাদের সাথে আমাদের সম্পর্ক থাকবে এবং ভবিষ্যতে জোটও হবে। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমাদের কাছে বিভিন্ন জায়গা থেকে জোটে যাবার প্রস্তাব আসছে। তখন আমরা ইসলামের স্বার্থ আগে রেখে ওদের সাথে কথা বলছি। এতে একমত হলেই আমাদের সাথে জোট হবে ইনশাআল্লাহ।
চলমান কোটা আন্দোলন প্রসঙ্গে সৈয়দ রেজাউল করীম বলেন, ‘ছাত্রদের আন্দোলনের মুখে প্রধানমন্ত্রী ওয়াদা করেছেন কোটা রাখবেন না। আমি বলবো তাঁর কথা তিনি বাস্তবায়ন করবেন এটাই বাস্তবতা। কিন্তু এখন কোটা আন্দোলনকারীদের ওপর নানাভাবে জুলুম নির্যাতন করা হচ্ছে। রিমান্ডে নিয়ে মারপিট করা হচ্ছে। এটা সর্র্ম্পূণ অযৌক্তিক, অনৈতিক এবং অন্যায়। অত্যাচারি কোনো সরকারই টিকে থাকতে পারে না।’
গত মঙ্গলবার (১০ জুলাই) রাতে কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জে উপজেলা মুজাহিদ কমিটি আয়োজিত ‘ওয়াজ মাহফিল ও হালকায়ে জিকির’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা দেয়ার আগে নয়াদিগন্তকে তিনি এসব কথা বলেন।
পরে করিমগঞ্জ মডেল পাইলট উচ্চবিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত ওয়াজ মাহফিলে রাত ১০টায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন চরমোনাই পীর। ওই সময় তিনি বলেন, একমাত্র ইসলামী শাসন ব্যবস্থাতেই মানুষের শান্তি। প্রচলিত রাজনীতি মানুষকে অশান্তি ছাড়া কিছুই দিতে পারেনি। তাই আমাদেরকে আল্লাহ এবং রাসূলের পথে ফিরে আসতে হবে।
করিমগঞ্জ ছোবহানিয়া ফাজিল মাদরাসার সাবেক ভাইস প্রিন্সিপাল মাওলানা আলী আকবর খানের সভাপতিত্বে ওয়াজ মাহফিলে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ কিশোরগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি হাফেজ মাওলানা আলমগীর হোসাইন তালুকদার, কিশোরগঞ্জ জেলা শাখার সহকারী ইমাম কাম অডিটর মাওলানা মাহমুদুর রহমান মাহমুদ, করিমগঞ্জ ছোবহানিয়া মাদরাসার প্রভাষক মুফতি মো: নাসির উদ্দিন প্রমুখ।


আরো সংবাদ