২৩ মার্চ ২০১৯

এমপিকে নিয়ে সরকার বিব্রত, মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী: সাধনা দাশ গুপ্তা

উখিয়া প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের সাথে মত বিনিময়কালে সংসদ সদস্যপদে প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তাঁতী লীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাধনা দাশ গুপ্তা - ছবি: নয়া দিগন্ত

‘কক্সবাজার-৪ আসনে যে দল জয়ী হয়, সেই দলই সরকার গঠন করে’-এমন কথা সেখানকার লোকমুখে প্রচলিত রয়েছে। হয়তো আসনটির গুরুত্বের কথা বিবেচনা করেও কথাটি বলা হতে পারে।

এবার উখিয়া-টেকনাফ আসনে আওয়ামীলীগ থেকে সংসদ সদস্যপদে মনোনয়ন প্রত্যাশী তাঁতী লীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি ও বাংলাদেশ জাতীয় সমবায় শিল্প সমিতি লি: এর চেয়ারম্যান সাধনা দাশ গুপ্তা। তিনি মঙ্গলবার বেলা ১২ টায় উখিয়া প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের সাথে মত বিনিময়কালে সংসদ সদস্যপদে প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমাকে এলাকায় কাজ করার নির্দেশ দিয়ে মনোনয়নের বিষয়টি দেখবেন বলে জানিয়েছেন। তাতে আমি খুবই আশাবাদী। এলাকায় এসেই ডিজিটাল ব্যানার-ফেস্টুন টানিয়ে গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সাথে যোগাযোগ করছি। শেষ বয়সে এসে জনসেবার মাধ্যমে উখিয়া-টেকনাফের জনগণকে মাদকমুক্ত সমাজ উপহার দিব।

রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে কথা বলতে গিয়ে তিনি বলেন, ১৯৭১ সালে যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশ থেকে আমার পরিবারের সাথে আমি মিয়ানমারে পালিয়ে গিয়েছিলাম। সেদিন মিয়ানমার আমাদের এক গ্লাস পানিও দেয়নি। অথচ ভারত আমাদের দেশের মানুষকে সেই সময়ে সব রকমের সাহায্য সহযোগিতা করেছেন।

আজ মিয়ানমারের অসহায় লোকজন নিপীড়নের শিকার হয়ে আমাদের দেশে আশ্রয় নিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী মানবতার মা হিসেবে সারা বিশ্বে পরিচয় লাভ করেছেন। রোহিঙ্গাদের মৌলিক অধিকার ও নাগরিকত্ব দিয়ে তাদের নিজদেশে ফিরিয়ে নেয়ার আহবান জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, আমি যখন উখিয়ায় কুটির শিল্পের মাধ্যমে মানুষের উপকার ও নারীর অধিকার নিয়ে কথা বলি, তখন বিএনপি আমাকে নির্যাতন করে এলাকা ছাড়া করেছে। এবার আমি জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে দেখা করে দোয়া নিয়ে এমপি নির্বাচনের প্রস্তুতি গ্রহণ করেছি।

উখিয়া-টেকনাফে আওয়ামী লীগের হেভিওয়েটদের বাদ দিয়ে নেত্রী আপনাকে কেন মনোনয়ন দেবেন এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, নানা কারণে এই আসনের এমপিকে নিয়ে সরকার বহুবার বিব্রত হয়েছেন। তাছাড়া মাদক নির্মুলে সরকারের জিরো ট্রলারেন্স নীতির ফলে মাদকের সাথে জড়িত কাউকেই এবার মনোনয়ন দেবেন না। সে ক্ষেত্রে নেত্রী আস্থাভাজন হিসেবে আমাকেই মনোনয়ন দেবেন বলে আমি শতভাগ আশাবাদী।

এই নারী নেত্রী বলেন, আমি এমপি নির্বাচিত হলে উখিয়া-টেকনাফে শিল্প কারখানা তৈরি করে এলাকার বেকার সমস্যা সমাধান করব। এলাকার জনগণ এমনকি জামায়াতও আমাকে ভোট দেবেন। এখানকার মানুষের সাথে আমার সম্পর্ক বহু বছরের।

মতবিনিময় সভায় তিনি আরো বলেন, নারী শিক্ষার উন্নয়নে আমি জাফর আলম চৌধুরীকে নিয়ে উখিয়া বঙ্গমাতা মুজিব মহিলা কলেজ প্রতিষ্ঠা করেছি। বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও এলাকার বেকার শিক্ষিত যুবকদের চাকরির ব্যবস্থা করেছি। এমপি নির্বাচিত হলে ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্ন পূরণে মাদকমুক্ত সুন্দর সমাজ গঠনে কাজ করব।

তিনি কলম সৈনিকদের সহযোগিতা চেয়ে বলেন, সাংবাদিকরা সারা পৃথিবীকে জাগাতে পারেন। আমি সকলের সহযোগিতা ও দোয়া কামনা করছি।

উখিয়া প্রেস ক্লাবের সভাপতি সরওয়ার আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মত বিনিময় সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, কক্সবাজার জেলা মুক্তিযোদ্ধা লীগের আহবায়ক জাফর আলম চৌধুরী, উখিয়া উপজেলা যুব লীগের সাবেক সভাপতি সোলতান মাহমুদ চৌধুরী, উপজেলা তাঁতী লীগের সভাপতি হেলাল উদ্দিন, তাঁতীলীগ নেতা কাজি জাফর আলম ভুলু, নুরুল আলম ও উখিয়া-টেকনাফের আওয়ামী অঙ্গ সংগঠন এবং তাঁতী লীগের নেতৃবৃন্দ।


আরো সংবাদ

iptv al Epoksi boya epoksi zemin kaplama Daftar Situs Agen Judi Bola Net Online Terpercaya Resmi

Hacklink

instagram takipçi satın al ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme

instagram takipçi satın al