২৪ জানুয়ারি ২০১৯

মুহুরী ও ফেনী নদীর বাঁধ ভেঙ্গে ৮০ গ্রামের মানুষ পানিবন্দি

-

তিন দিন ধরে টানা ভারী বর্ষণ ও সীমান্তের ওপার থেকে ধেঁয়ে আসা পাহাড়ি ঢলের পানির তোড়ে ফেনীর ভারত সীমান্তবর্তী মুহুরী,কহুয়া ও ফেনী নদীর মিজান বাঁধ ভেঙ্গে ছাগলনাইয়া, পরশুরাম ও ফুলগাজী লক্ষাধিক মানুষ দুই দিন ধরে পানিবন্দি রয়েছেন। বাড়ি-ঘরে পানি ওঠায় পবিত্র রমজান মাসে খাবারের সঙ্কটের মানবেতর জীবন যাপন করছেন বানভাসী মানুষ ।
বৃহস্পতিবার বিকেল ছাগলনাইয়া উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পানিবন্দি ৫ হাজার মানুষের কাছে শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়েছে । এদিকে, পরশুরাম ও ফুলগাজীতে বুধবার বিকেলে ফেনী জেলা প্রশাসক মনোজ কুমার রায়, উপজেলা নিবার্হী অফিসার ও জনপ্রতিনিধিরা পানিবন্দি কয়েক হাজার মানুষের শুকনো খাবার বিতরণ করেছেন । স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও বন্যা দূর্গত মানুষের অভিযোগ, দুই দিন ধরে পানিবন্দি হয়ে আটকে পড়ে থাকলেও বেশিরভাগ কোন ত্রানসামগ্রী পাননি ।
জানাগেছে, তিন দিনের ভারী বর্ষণ ও ভারত সীমান্তের ওপারে ভারী বর্ষণে সৃষ্ঠ পাহাড়ি ঢলের পানির তোড়ে বুধবার বিকেলে ছাগলনাইয়ার লাঙ্গলমোড়া গ্রামে ফেনী নদীর মিজান বাঁধ ভেঙ্গে যায় । এ ছাড়া বিভিন্ন ছড়া ও খাল দিয়ে ভারতে আসা পানির চাপে ছাগলনাইয়া উপজেলার ৫০টি গ্রাম পানির নিচে তলিয়ে গেছে । এর মধ্যে ঘোপাল ইউনিয়নের ২৪টি, শুভপুরে ১১টি, মহামায়ায় ৬টি, পৌর এলাকার ৩টি ও রাধানগর ইউনিয়নের ৭টি গ্রামের বেশিরভাগ এলাকা পানির নিচে তলিয়ে আছে । পানিবন্ধি হয়ে পড়েছেন অনন্ত অর্ধলক্ষাধিক গ্রামবাসী । বাড়ি ঘরে পানি ওঠায় রান্না করতে না পারায় পানিবন্দি পরিবারগুলোতে চলছে খাবারের সংকট ।
অপরদিকে, সীমান্তবর্তী পরশুরাম ও ফুলগাজী উপজেলায় মুহুরী,কহুয়া ও সিলোনিয়া নদীর বেড়িবাঁধের তাকিয়া, ডিএম সাহেবনগর, উত্তর বরই,দৌলতপুর,নাপিতকোনা,বাহারমিয়া জামে মসজিদ এলাকাসহ ১৬টি স্থানে ভয়াবহ ভাঙ্গনের ফলে ৩০টি গ্রামের কমপক্ষে কমপক্ষে ৬০ হাজার মানুষ পানিবন্দি পড়েছেন । বন্যার পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় ফেনী পরশুরাম,ফুলগাজী,ছাগলনাইয়া-মহুরীগঞ্জ প্রধান সড়কসহ তিনটি উপজেলার স্থানীয় সড়কগুলো দুইদিন ধরে পানির নিয়ে তলিয়ে আছে । এদিকে, স্থানীয়রদের অভিযোগ মুহুরী নদীর বাঁধ সংস্কারে নিয়মের কারণেই প্রতি বছর বর্ষার শুরুতেই পরশুরাম ও ফুলগাজী উপজেলার মানুষের জীবনে দুর্ভোগ নেমে আসে । এদিকে, ঈদের মাত্র দুই-তিন দিন বাকি থাকলেও ছাগলনাইয়া,পরশুরাম ও ফুলগাজী উপজেলার গ্রামের পর গ্রাম বানের পানিতেবন্দি হয়ে পড়েছেন ।
ছাগলনাইয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহিদা ফাতেমা চৌধুরী গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে জানান,ঘোপাল,মহামায়া,রাধানগর ও শুভপুর ইউনিয়নে পানিবন্দি পাঁচ হাজার মানুষের মাঝে শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়েছে ।


আরো সংবাদ

স্ত্রীর পরকীয়া দেখতে এসে বোরকা পরা স্বামী আটক (১৬৩৩৪)ইসরাইল-ইরান যুদ্ধ যেকোনো সময়? (১৫৮১৫)মেয়েদের যৌনতার ওষুধ প্রকাশ্যে বিক্রির অনুমোদন দিল মধ্যপ্রাচ্যের এ দেশটি (১৫৪৭৯)মানুষ খুন করে মাগুর মাছকে খাওয়ানো স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা গ্রেফতার (১৫২৩২)ইরানি লক্ষ্যবস্তুতে প্রচণ্ড ইসরাইলি হামলা, নিহত ১১ (১৩৮১২)মাস্টার্স পাস করা শিক্ষকের চেয়ে ৮ম শ্রেণি পাস পিয়নের বেতন বেশি! (১১৪৪৩)৩০টি ইসরাইলি ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র ভূপাতিত (৯৩৬২)একসাথে চার সন্তান, উৎসবের পিঠে উৎকণ্ঠা (৮২৮৫)করাত দিয়ে গলা কেটে স্বামীকে হত্যা করলেন স্ত্রী (৬০৭৯)শারীরিক অবস্থার অবনতি, কী কী রোগে আক্রান্ত এরশাদ! (৫৩৪৫)