০৭ ডিসেম্বর ২০১৯

লালমোহন ও চরফ্যাসনে ঘূর্ণিঝড়ে ১৫ ঘর বিধ্বস্ত, আহত ১০

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে ভোলায় শনিবার রাতে লালমোহন ও চরফ্যাসনে প্রচণ্ড ঘূর্ণিঝড়ে ১৫ ঘর বিধ্বস্ত হয়েছে। এতে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে। স্থানীয়রা জানান, শনিবার রাত ৯ টার পর লালমোহন উপজেলার লডহাডিঞ্জ ইউনিয়নের পিয়ারি মোহন গ্রামে হঠাৎ করে ঘূর্ণিবাতাসে ৮টি ঘর বিধ্বস্ত হয়।

এতে ঘর চাপা পড়ে ওই গ্রামের সাজেদা বেগম, তারেক, আরিফ, শরিফ, মোস্তাফিজসহ অন্তত ১০ জন আহত হয়। এদের মধ্যে গুরুতরদেরকে চরফ্যাসন হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে। তাদের মধ্যে তারেকের অবস্থা বেশি গুরুতর।

লালমোহন থানার ওসি মীর খায়রুল কবির জানান, তারেক নামে (১৭) এক কিশোরের পেট টিনের সাথে লেগে কেটে যাওয়ায় তাকে চরফ্যাসন হাসপাতাল থেকে বরিশাল মেডিকেল কলেজ হাসপাপাতালে রেফারড করা হয়েছে। 

লালমোহন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাবিবুল হাসান রুমি জানান, ঘূর্ণিঝড়ে লালমোহনে লডহার্ডিঞ্জ ইউনিয়নে ৮ জন আহত হয়েছে। এদের মধ্যে ৪ জন চরফ্যাসন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া গজারিয়া বাজারের আশাপাশে এলাকায় ৭০/৮০টি গাছ বিধ্বস্থ হয়।

অপর দিকে, চরফ্যাসনের এওয়াজপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাহাবুব আলম খোকন জানান, রাত ৯ টার দিকে হঠাৎ শব্দ করে ঘূর্ণিবাতাস আঘাত হানে। এতে ৭টি ঘর বিধ্বস্ত হয়। এ সময় ওই এলাকার রাস্তার গাছপালাও উপড়ে পরেছে বলে জানান তিনি। সূত্র : ইউএনবি।


আরো সংবাদ




Paykwik Paykasa
Paykwik